সারা আলি খান ও কার্তিক আরিয়ান নাকি আবার একসঙ্গে?

কানাঘুষোয় শোনা যাচ্ছে যে সারা আর কার্তিক আরও একবার পর্দায় একসঙ্গে আসতে চলেছেন।

কানাঘুষোয় শোনা যাচ্ছে যে সারা আর কার্তিক আরও একবার পর্দায় একসঙ্গে আসতে চলেছেন।

  • Share this:

#মুম্বই: সারা আলি খান (Sara Ali Khan) ও কার্তিক আরিয়ানের (Kartik Aaryan) অনস্ক্রিন ও অফস্ক্রিন জুটির রসায়ন নিয়ে গদগদ ছিল দর্শকরা। অফস্ক্রিনের প্রেম ছবি মুক্তির পরে বেশিদিন টেঁকেনি যদিও। যে সারা এক সময় বড় মুখ করে বলতেন যে তাঁর প্রথম বলিউড ক্রাশ হল কার্তিক সেই সারাই তাঁকে Instagram-এ আনফলো করেন। আর যে কার্তিক সাক্ষাৎকারে বলতেন যে তাঁর প্রচুর পয়সা হলে সারাকে নিয়ে তিনি বিলাসবহুল ডেটে যাবেন, সেই কার্তিকই বলেন যে কেরিয়ার তাঁর প্রথম প্রেম, সারা নন!

‘খিচুড়ি’ কী রান্না হয়েছিল ঈশ্বরই জানেন, তবে দর্শকদের সব আশা ভরসায় জল ঢেলে তাঁদের বহু চর্চিত অনস্ক্রিন রসায়নও বেশি বুদবুদ কাটতে পারেনি। বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ে লাভ আজ কাল ২ (Love Aaj Kal 2)। তাঁর উচ্চগ্রামের অতি অভিনয় নিয়ে অনেক কথাও শুনতে হয়েছিল সারাকে।

তবে কানাঘুষোয় শোনা যাচ্ছে যে সারা আর কার্তিক আরও একবার পর্দায় একসঙ্গে আসতে চলেছেন। প্রযোজক সাজিদ নাদিয়াদওয়ালার (Sajid Nadiadwala) আগামী কোনও ছবিতে একসঙ্গে কাজ করতে পারেন দু'জনে। সাজিদ একটি রোম্যান্টিক ছবি তৈরি করতে আগ্রহী আর সেখানে তিনি সারা আর কার্তিককে মুখ্য ভূমিকায় দেখতে চান। কার্তিক ইতিমধ্যেই সাজিদের সঙ্গে ‘সত্যনারায়ণ কি কথা’ (Satyanarayan Ki Katha) ছবিতে কাজ করছেন। তাই তাঁর সাজিদের দ্বিতীয় ছবিতে থাকার সম্ভাবনা আছে। সূত্রের খবর প্রোডাকশন হাউজ থেকে সারাকে ছবির চুক্তিপত্র সই করানোর কথা চলছে।

তবে কার্তিক এখন রোহিত ধাওয়ানের (Rohit Dhawan) পরিচালনায় আলা বৈকুণ্ঠপুরমুলু (Ala Vaikunthapurramuloo) ছবির রিমেকে কাজ করছেন। ছবির নাম সম্ভবত শেহজাদা (Shehzada)। ছবিতে কার্তিকের মায়ের ভূমিকায় দেখা যাবে মনীষা কৈরালাকে (Manisha Koirala)। এই ছবির কাজ শেষ করে তবেই ‘সত্যনারায়ণ কি কথা’-তে কাজ করবেন তিনি? এই ছবিতে কার্তিকের সঙ্গে প্রথমবার কাজ করবেন শ্রদ্ধা কাপুর (Sraddha Kapoor)।

তবে এই খবরে কার্তিকের ভক্তরা বেশ উচ্ছ্বসিত হয়েছেন। কারণ অনেকেই সারা আর কার্তিককে বাস্তব জীবনে একসঙ্গে দেখতে চান। তাই তাঁদের আবার একসঙ্গে পর্দায় দেখার উৎসাহ থাকবেই। যদিও এই বিষয়ে সারা বা কার্তিক কেউই কোনও মন্তব্য করেননি।

Published by:Arpita Roy Chowdhury
First published: