corona virus btn
corona virus btn
Loading

লকডাউনে রুক্মিণীর প্রিয় মায়ের হাতের 'কোয়ারেন্টাইন চিকেন', একেবারে তেলছাড়া রান্না, রইল রেসিপি

লকডাউনে রুক্মিণীর প্রিয় মায়ের হাতের 'কোয়ারেন্টাইন চিকেন', একেবারে তেলছাড়া রান্না, রইল রেসিপি

লকডাউনে চটজলদি রেঁধে ফেলুন চিকেনের এই পদ

  • Share this:

#কলকাতা: এক মাসের বেশি গৃহবন্দি গোটা দেশ। স্তব্ধ জনজীবন। নিজের রুটিন কাজ কেউই তেমন ভাবে করতে পারছেন না। ভিড় করে রয়েছে অনিশ্চয়তা, উদ্বেগ ... কিন্তু এর মধ্যেই খুঁজে পেতে হবে জীবনের রসদ। সব রকম নেগেটিভিটি কাটিয়ে নিজেকে সুস্থ রাখতে হবে। ঘরবন্দি থাকতে থাকতে অনেকেই অবসাদে ভুগছেন। মনে হচ্ছে জীবন বুঝি যবনিকা টেনে দিয়েছে। কিন্তু এই মনোভাব কাটিয়ে বেরিয়ে আসতে হবে। ফোকাস শিফট করে অন্য কিছু ভাবতে হবে, এমনটাই মনে করেন বাংলা ছবির জনপ্রিয় নায়িকা রুক্মিণী মৈত্র।

'কবীর' তারকার মতে, এই লকডাউনের সময়ে নিজের শখকে প্রশ্রয় দিন। বাড়ির কাজে হাত লাগান, পাশাপাশি জমিয়ে খাওয়া দাওয়া করুন। লকডাউনের সময় খাদ্য রসিক রুক্মিণী রসনা তৃপ্তিতেও ভালরকম মনোনিবেশ করছেন। মায়ের হাতের রান্না প্রিয় তাঁর। মায়ের হাতের একটি চটজলদি রেসিপি শেয়ার করলেন নিউজ 18 বাংলা-র সঙ্গে! রুক্মিণীর নামকরণ 'মায়ের হাতের কোয়ারেন্টাইন চিকেন'! েক্কেবারে তেলছাড়া চিকেনের লা-জবাব রেসিপি!

বানাতে লাগবে-- মাঝারি সাইজের টুকরো করা চিকেন ৫০০গ্রাম, দুটো কিউবের আকারে কাটা পেঁয়াজ, সরু করে কাটা আদা কুচি, দুটো রসুনের কোয়া, দুটো কিউবের আকারে কাটা টোম্যাটো, স্বাদমতো নুন, গোটা গোলমরিচ, পরিমাণমত মাখন। ইচ্ছে হলে গাজর, ক্যাপসিকাম, বিন্স দিতে পারেন। পরিমাণমত জল।

প্রেশার কুকার গ্যাসে চাপিয়ে, চিকেনের টুকরোগুলো দিয়ে দিন। চিকেন ডুবে যায় ঠিক ততটা জল দিন। পেঁয়াজ, আদা, রসুন, টোম্যাটো একে একে দিয়ে দিন। একবার ভাল করে মিশিয়ে নিন। যদি অন্য সবজি দেন সেগুলোও একেবারে দিয়ে নিন। গোটা গোলমরিচ, নুন মিশিয়ে প্রেশার কুকারের ঢাকনা বন্ধ করে দিন। আধঘন্টা মত প্রেশারে রান্না করুন। পরিবেশন করার আগে উপর থেকে কিছুটা মাখন ছড়িয়ে দিন। গরম ভাতের সঙ্গে খেতে দারুন লাগে, স্যুপ হিসেবেও খেতে পারেন।

তণ্বী তরুণী রুক্মিণীকে দেখে কে বুঝবে তিনি এতটা খাদ্যরসিক ? কব্জি ডুবিয়ে পরোটা মাংস, বিরিয়ানি বেজায় পছন্দ সুন্দরীর। খাওয়া-দাওয়া রুক্মিণীর প্রায়োরিটি লিস্টে , তবে নিজে একেবারেই রান্না করতে পারেন না । রসিকতা করে বলেন, 'রান্নাঘর থেকে আমার জন্য খাবার বাইরে আসে, আমি কখনও রান্না ঘরের ভিতরে যাই না।'

ARUNIMA DEY

Published by: Rukmini Mazumder
First published: April 21, 2020, 6:32 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर