বলিউডে পা রাখার আগেই রণবীরের এই শর্ট ফিল্ম গিয়েছিল অস্কারের দৌড়ে, দেখে নিন ছবিটি

বলিউডে পা রাখার আগেই রণবীরের এই শর্ট ফিল্ম গিয়েছিল অস্কারের দৌড়ে, দেখে নিন ছবিটি!

২০০৭ সালে সঞ্জয় লীলা বনশালির (Sanjay Leela Bhansali) সাওয়ারিয়া (Sawariya) ছবির হাত ধরে বলিউডে অভিষেক ঘটে তাঁর।

  • Share this:

#মুম্বই: বলিউডের অনেক আগেই বিশ্বের দরবারে পরিচিত হয়েছিলেন রণবীর কাপুর (Ranbir Kapoor)। অভয় চোপড়া (Abhay Chopra) পরিচালিত শর্ট ফিল্ম কর্মর (Karma) জন্য অস্কার নমিনেশনও পেয়েছিলেন বলিউডের বর্তমান হার্টথ্রব রণবীর। কিংবদন্তি প্রযোজক বি.আর. চোপড়ার (B.R.Chopra) নাতি অভয় চোপড়ার পরিচালিত এই ছবি, স্টুডেন্ট অস্কারের জন্য মনোনীত হয়। ভারতবর্ষে দীর্ঘ দিন ধরে চলা মৃত্যুদণ্ডের বিতর্কই ২০০৪ সালের এই ছবির উপজীব্য। এই ছবিতে অভিনয়ের সময় রণবীর একটি ফিল্ম ইন্সটিটিউটের ছাত্র। ছাত্রাবস্থায় এই ছবিতে অভিনয় করেন তিনি। রণবীরের বলিউডে পা রাখা অবশ্য আরও বছর তিনেক পর। ২০০৭ সালে সঞ্জয় লীলা বনশালির (Sanjay Leela Bhansali) সাওয়ারিয়া (Sawariya) ছবির হাত ধরে বলিউডে অভিষেক ঘটে তাঁর।

কর্ম ছবি রুপোলি পর্দার গল্প হলেও, তার প্রেক্ষাপট বহু পুরোনো। এই ছবি আসলে এক বাবা ও ছেলের গল্প। বাবা জেলের কর্মরত জেলার। ছেলে অপরাধী। ছেলের মৃত্যুদণ্ডের ক্রিয়া সমাপ্ত করার দায় ঘাড়ে এসে পড়ে বাবার। ছাব্বিশ মিনিটের এই ছবির প্রেক্ষাপট আসলে বাস্তবের রুক্ষ জমি। অভয়ের মতে এই ছবি সেই সময়কার মৃত্যদণ্ড নিয়ে বিতর্কের উপরে ভিত্তি করে বানানো। তদানীন্তন সময়ে হেতল পারেখের ( Hetal Parekh) ধর্ষণকাণ্ডে অভিযুক্ত ধনঞ্জয় চট্টোপাধ্যায়ের (Dhananjoy Chatterjee) ফাঁসির ঘটনা এই ছবিকে বিশেষ প্রভাবিত করেছিল। ছবিতে রণবীরের অভিনয়ের বেশ প্রশংসা করেন অভয়। রণবীরের জিনে অভিনয় রয়েছে, বলেন অভয়।

রণবীর ছাড়াও এই ছবিতে এই অভিনয় করেছিলেন শরৎ সাক্সেনা (Sharat Saxena)। জেলারের রোলে অভিনয় করেন তিনি। এছাড়াএ গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে ছিলেন মিলিন্দ যোশী (Milind Joshi) এবং সুশোভন বন্দ্যোপাধ্যায় (Sushovan Banerjee)। মে মাসের পাঁচ তারিখে বান্দ্রা ফিল্ম ফেস্টিভালের (Bandra Film Festival) YouTube চ্যানেলে এই ছবির সম্প্রচার হয়। ফিল্ম কারাভান (Film Karavn) ও YouTube-এর যৌথতায় তৈরি এই বান্দ্রা ফিল্ম ফেস্টিভাল উঠতি আর্টিস্টদের কাজ সামনে তুলে আনতে বিশেষ ভূমিকা নিয়ে থাকে।

Published by:Piya Banerjee
First published: