Rakhi Sawant : রাজ কুন্দ্রার পাশে রাখি সাওয়ান্ত! দাবি, 'ব্ল্যাকমেল করা হচ্ছে রাজকে, ভাবমূর্তি নষ্টের চেষ্টা শিল্পার'

'ওদের ভালো থাকতে দিচ্ছে না'

Rakhi Sawant On Raj Kundra : মঙ্গলবার শিল্পা শেট্টির হয়ে কথা বলতে দেখা যায় রাখিকে (Rakhi Sawant)। তিনি সেখানে স্পষ্টতই জানান, রাজ কুন্দ্রার (Raj Kundra) বিরুদ্ধে যে সমস্ত অভিযোগ উঠেছে, সেগুলো বিশ্বাস করেন না তিনি।

  • Share this:

    #মুম্বই : সবেতেই নিজের মত জাহির করে থাকেন রাখি সাওয়ান্ত(Rakhi Sawant)। এবার পর্ন ছবি কাণ্ডে রাজ কুন্দ্রার গ্রেফতারি নিয়েও মুখ খুললেন অভিনেত্রী। তাঁর কথায়, অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টির ভাবমূর্তি নষ্ট করার চেষ্টা চলছে এইভাবে। শুধু তাই নয়, রাখি রাজ কুন্দ্রার পাশে দাঁড়িয়েছেন এই গোটা ঘটনায়। তিনি বলেন, যে অভিযোগ আনা হয়েছে তা মিথ্যা অপপ্রচার ছাড়া কিছুই নয়। উল্লেখ্য, পর্নোগ্রাফি ফিল্ম তৈরির অভিযোগে সোমবার রাতে গ্রেফতার হন বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টির স্বামী রাজ কুন্দ্রা।

    পাপারাৎজিদের শেয়ার করা একটি ভিডিয়োতে মঙ্গলবার শিল্পা শেট্টির হয়ে কথা বলতে দেখা যায় রাখিকে (Rakhi Sawant)। তিনি সেখানে স্পষ্টতই জানান, রাজ কুন্দ্রার (Raj Kundra) বিরুদ্ধে যে সমস্ত অভিযোগ উঠেছে, সেগুলো বিশ্বাস করেন না তিনি। রাখির কথায়, ‘বন্ধুরা, আপনাদের মনে হয় না, শিল্পা শেট্টি বলিউডে কঠোর পরিশ্রম করেছেন তাই তাঁর নাম খারাপ করার চেষ্টা করছে কেউ?’

    তিনি আরও বলেন, ‘আমি কখনও মানতেই পারব না রাজ কুন্দ্রাজী এমন কিছু কখনও করতে পারে। রাজ কুন্দ্রাজী একজন সম্মানীয় ব্যক্তিত্ব। আমাদের শিল্পাজীর স্বামী। আমাদের ওঁনাকে সম্মান করা উচিত। উনি একজন ব্যবসায়ী। কেউ ওঁনাকে ব্ল্যাকমেইল করছে। আমাদের শিল্পাজীর নাম খারাপ করার চেষ্টা করছে’।

    রাখি আরো বলেন, কিছু অর্থের বিনিময় ‘ভাল পরিবার’এর নাম নষ্ট করার চেষ্টার জন্য লোকের লজ্জা পাওয়া উচিত। আবেগঘন স্বরে 'ড্রামা কুইন' বলেন, ‘আমার কান্না পাচ্ছে এসব দেখে। কেউ ভালভাবে জীবন কাটাতে চাইছে, কিন্তু তাঁকে সেটা করতে দেওয়া হচ্ছে না’।

    মঙ্গলবার সকালে মেডিক্যাল চেক-আপের পর মুম্বইয়ের এসপ্ল্যানেড আদালতে তোলা হয় রাজ কুন্দ্রা এবং তাঁর সহকারী রায়ান থর্পকে। এদিন সকালে রায়ানকে গ্রেফতার করে মুম্বই পুলিশ। দুজনেরই জামিনের আর্জি না-মঞ্জুর করেছে নগর দায়রা আদালত। আদালতের তরফে, দুই অভিযুক্তকেই আগামী ২৩শে জুলাই পর্যন্ত পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: