বিনোদন

corona virus btn
corona virus btn
Loading

Exclusive : ‘আমার জমিয়ে রাখা টাকা তলানিতে’- রাহুল

Exclusive : ‘আমার জমিয়ে রাখা টাকা তলানিতে’- রাহুল

এত সহজ ভাবে বলতে বোধহয় সবাই পারেনা। নিজের কাজ,ব্যাঙ্ক ব্যালেন্স কমে যাওয়া থেকে নিজে পরিচালনায় আাসা।

  • Share this:

#কলকাতা: এত সহজ ভাবে বলতে বোধহয় সবাই পারেনা। নিজের কাজ,ব্যাঙ্ক ব্যালেন্স কমে যাওয়া থেকে নিজে পরিচালনায় আাসা। সবটা নিয়েই নিউজ ১৮ বাংলায় আড্ডায় রাহুল বন্দ্যোপাধ্যায় ।

রাহুল আমরা সবাই একটা অসহ্য যন্ত্রনার  সময় কাটিয়েছি গোটা লকডাউনটা। তোমায় যদি জিজ্ঞেস করি সেই সময়টা কেমন ছিল তোমার ক্ষেত্রে কী বলবে।

গোটা পরিস্থিতি সবার ক্ষেত্রেই ভয়ের, আতঙ্কের এবং যন্ত্রনার অব্যশই ছিল। কিন্তু তুমি যদি বাড়িতে আটকে থাকার বিষয়টা বল তাহলে বলবো এমনিতেই ছবি করার ক্ষেত্রে দুটো ছবির মাঝে একটা দু মাসের ব্রেক থেকেই থাকে। এটা নতুন কিছু নয়। এখন টেলিভিশন করার ক্ষেত্রে রোজ কাজে বেরোনোর একটা অভ্যাস তৈরি হয়েছে। এমনিতেই আমি ঘরকুনো। আমাকে একটা ভালো বই বা ছবি দেখার সুযোগ দিলে আমি খুশি। সেই জন্যই হয়তো খুব দম বন্ধ করা ফিলিংটা আমার হয়েনি। হ্যাঁ তবে, ছেলের সঙ্গে  দেখা করার ক্ষেত্রে একটা সমস্যা হচ্ছিল।

অনেকের কাজ চলে গেছে এই গোটা পরিস্থিতির জন্য..... তোমার ক্ষেত্রে সেটা কি কোনও ভাবে প্রভাব ফেলেছে? আমারও একই অবস্থা। সব প্রজেক্ট পিছিয়ে গেছে। 'মায়াভয়' বলে একটি ছবি শুটিং, ডাবিং হয়ে রিলিজ হয়ে যাওয়ার কথা সেটা পিছিয়ে গেছে ৷ এই মুহূর্তে চারটে ছবির কথা হয়ে রয়েছে। যেগুলো খুব শিগগিরই শুটিং শুরু হবে।

কোন কোন ছবি? ইন্দ্রাশিস আচার্যের 'মায়াভয়', রাজর্ষী  দে'র  একটি ছবি, একটি ওয়েবের কাজ করছি যার নাম -'পেন', আরেকটা ছবি হচ্ছে চারটে ছোট গল্প নিয়ে,যেখানে দুটো গল্পতে আমি অভিনয় করছি। আপাতত এই ছবিগুলো দিয়েই শুটিং শুরু এই মাস থেকেই।

এর পরই খানিকটা থেমে রাহুল বলতে শুরু করেন.... আমরা তো আমাদের দারিদ্র প্রকাশ করতে পারি না। ব্যাঙ্ক ব্যালেন্স প্রায় তলানিতে এসে ঠেকেছে। আমাদের গাড়ি চড়েই ঘুরতে হয়। আরও অনেক  বিষয় থাকে যে গুলো আমাদের মেইনটেইন করে চলতে হয়। অন্য পেশার থেকে আমাদের পেশাতে খরচও অনেক বেশি। ব্যাঙ্ক ব্যালেন্স নিয়ে ঝামেলা আমারও হয়েছে। কিন্তু ঈশ্বরের কৃপায় গত ১৫ বছরে যে গুডউইল হয়েছে আমি বেঁচে থাকতে পেরেছি। আমার জীবনে চাহিদাও খুব কম। দামি পারফিউম বা দামি ঘড়ি আমার বেঁচে থাকার জন্য প্রয়োজন কখনওই হয়নি। তবে হ্যাঁ আমার অনেক বন্ধুই আছে যাদের কাজের সমস্যা হচ্ছে এবং তাঁরা আবার এই পেশার সঙ্গে যুক্ত থাকতে পারবেন কিনা সেটাও এখন বড় প্রশ্ন।

এতদিন পর  আবার ক্যামেরার সামনে ফিরবে..... কাজটা শুধু মাত্র টাকার জন্য নয়। সত্যি এতদিন অভিনয় করতে না পারা যে কী যন্ত্রনা বলে বোঝানো যাবেনা। খুব ছোট বয়স থেকে তো অভিনয় করেছি... অ্যাকশন, কাট,আলো, ষ্টুডিওর ওই বিচ্ছিরি চা সবটা না পাওয়া বিশাল বড় একটা শূন্যতা।

তুমি তো খুব ভাল লেখ। এই গোটা  সময়টা নতুন  কিছু লিখেছো? হ্যাঁ অনেকটা লেখালেখি করেছি। একটা স্ক্রিপ্ট লিখেছি। একটা উপন্যাস শুরু করেছি।

স্ক্রিপ্ট মানে? হ্যাঁ আমি একটা ছবি পরিচালনা করছি। সামনের বছরেই করতে চাই। সেটার স্ক্রিপ্টের কাজ চলছিল। মিউজিক লক করা হয়ে গেছে। আরও বেশ কিছু জিনিস ফাইনাল করা হয়ে গেছে।

গল্পটা ঠিক কি? সবটা এখন বলা যাবে না। তবে গরমকাল বর্ষাকাল মিলিয়েই বানাতে হবে। ছবিটা খানিকটা ওয়েদার ওরিয়েন্টেড।

ছবি প্রযোজনা কে করছে? রাহুল অরুণোদয় বন্দ্যোপাধ্যায়।

মানে? মানে আমারই প্রোডাকশন হাউস 'সহজ ফিল্মস্' থেকেই ছবি তৈরি হবে। আমার নিজের টাকা দিয়ে ছবি বানাবো। পরে যদি কেউ কিনতে চায়, কিনবে। আমার হাউজের নাম 'সহজ ফিল্মস' আার আমার লক্ষ্য সহজ ছবি বানানো। আপাতত ঋত্বিকের সঙ্গে মুখ্য ভূমিকায় কথা হয়ে রয়েছে আর বাকিরা নতুন।

হঠাৎ পরিচালনা কেন? যে গল্পটা আমি এই ছবিতে বলতে চাই সেই গল্পটা না বলে আমি মরে যেতে চাই না। পঞ্চাশ শতাংশ আমার জীবনের বাকিটা কল্পনা।

উপন্যাস এবারে কি নিয়ে লিখছো? গত দশ বছর ধরে নিয়মিত লিখছি। নব্বইয়ের দশক এবং কলোনি নিয়ে আমি আগেই লিখেছি এবারে একটা অন্য বিষয় নিয়ে লিখতে চাইছি। আসলে মানুষের জীবনে সবাইকে যে উন্নতি করতে হবে এরকম মানে নেই। কেউ কেউ তার থেকে পালিয়েও যেতে পারে। এটাই এবার লেখার বিষয়। বেশ উত্তেজনা নিয়ে লেখা শুরু করেছি জানিনা কতটা লিখতে পারব।

আন লকে সহজের (ছেলে) সঙ্গে নিশ্চয়ই দেখা করতে  আার অসুবিধে হচ্ছে না? এখন ওর সঙ্গে বাইরে আর দেখা করিনা। প্রিয়াঙ্কা ওকে নিয়ে আসে ভাল সময় কাটে।

Published by: Akash Misra
First published: September 9, 2020, 9:57 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर