পাকিস্তানি হিন্দি সিরিয়ালে রবি ঠাকুরের 'আমারও পরাণও যাহা চায়' গান ! কুর্নিশ জানাল নেট-দুনিয়া

photo source collected

ধারাবাহিকের পরিচালক মেহরিন জাব্বার এই ভিডিওটি নিজের ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন।

  • Share this:

    #কলকাতা: রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। বাঙালি শুধু নয় তিনি গোটা বিশ্বের মানুষের মনে চিরকাল থেকে যাবেন। থেকে যাবে তাঁর লেখনি। তাঁর প্রতিটা সৃষ্টিই যেন অমরত্ব পেয়েছে। প্রতিটা শব্দে রয়েছে রহস্য, মায়া। একবার যে রবি ঠাকুরের প্রেমে পড়বে, গোটা জীবন শেষ হয়ে গেলেও প্রেম রয়ে যাবে মনে। ঠাকুর এমনই। তাঁকে ধারণ করার জন্য শুধু একটু মনন, আর চিন্তা হলেই সম্ভব। তিনি শত বর্ষ আগেই সকলের সব মনের কথা বলে গিয়েছেন। বন্ধুত্ব থেকে, প্রেম, বিরহ কি নেই তাঁর লেখায়। আর গান, সে যেন খোলা সমুদ্র। সেই রবি ঠাকুরের গানের ছোঁয়া এবার সিরিয়ালে। না বাংলা সিরিয়ালে নয়। পাকিস্তানি সিরিয়ালে। হ্যাঁ, ঠিক পড়েছেন পাকিস্তানের জনপ্রিয় ধারাবাহিক , 'দিল কেয়া করে'-তে গাওয়া হল রবি ঠাকুরের গান, 'আমারো পরাণও যাহা চায়' গানটি।

    বাংলা সিরিয়াল বা সিনেমায় রবি ঠাকুরের গানের ব্যবহার নতুন নয়। কিন্তু পাকিস্তানি সিরিয়ালে রবি ঠাকুরের গানের ব্যবহার সত্যিই অবাক করে। তাও একটি হিন্দি ধারাবাহিকে। এখানে হিন্দি ছবিতে রবি ঠাকুরের গান ব্যবহার করা হলেও তা হিন্দি অনুবাদ করে, তবে ব্যবহার করা হয়। হিন্দি সিরিয়ালে রবি ঠাকুরের গান সাম্প্রতিক-কালে ব্যবহারের বা আগেও কখনও বাংলা ভাষাতে ব্যবহার করা হয়নি। কিন্তু পাকিস্তানি সিরিয়াল দেখিয়ে দিল। কিভাবে বাংলা ভাষাতেই এই গান ব্যবহার করা যায় একটা হিন্দি ধারাবাহিকে। কুর্নিশ এই প্রচেষ্টাকে।

    ধারাবাহিকের পরিচালক মেহরিন জাব্বার এই ভিডিওটি নিজের ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন। তারপর থেকে বহু মানুষ এই গানের ব্যবহারে মুগ্ধ হয়েছেন। সকলেই প্রশংসা করেছেন। গানটি গেয়েছেন শর্বরী দেশপান্ডে। এই গানটিতে অভিনয় করেছেন উমনা যাইদি। 'দিল কেয়া করে' শুধু পাকিস্তান নয় অন্য দেশেও মানুষের মন জয় করেছে।

    এম এক্স প্লেয়ারে এই সিরিয়ালটি দেখা যাবে। ট্যুইটারে বহু মানুষ এই ভিডিওটি শেয়ার করেছেন। অনেকে আবার বলেছেন, আমাদের এখানে হিন্দি সিরিয়ালে কেন এভাবে গান ব্যবহার করা হয় না। অনেকে আবার দোষারোপ করেছেন একতা কাপুরকে। একতাই হিন্দি সিরিয়ালের ছক ভেঙে দিয়েছেন। তৈরি করেছেন ঘরোয়া ড্রামা। কান্না, ঝগড়া। গা ভর্তি গয়না পরে, মেক-আপ চড়িয়ে রাতের বিছানায় শুতে যাওয়া। তার আগে কিন্তু হিন্দি সিরিয়াল এত চড়া দাগের ছিল না। মন ছুঁয়ে যেত মানুষের। এখন যেন অভ্যেসের মতো সব কিছুকে পাত্তা না দিয়েই সিরিয়াল দেখে সবাই মেশিনের মতো। তবে পাকিস্তানের তৈরি প্রতিটি ধারাবাহিক কিন্তু এখনও স্বাভাবিক ছন্দে এগোয়। চড়া দাগের ছোঁয়া নেই তাঁদের সিরিয়ালে। মনে হতেই পারে এটাই স্বাভাবিক। তবে সব কিছুই বদলে যায়। বদল তো যুগের নিয়ম। কিন্তু এত কিছু বদলের মধ্যেও রবি ঠাকুর ও তাঁর লেখা কিন্তু একই থেকে গিয়েছে। দূর দেশ থেকে মানুষ আজও শুনতে পান ঠাকুরের পরাণের ডাক, পরাণের গান।

    Published by:Piya Banerjee
    First published: