• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • সে কী! মেয়ের মাথায় মিস ওয়ার্ল্ডের মুকুট দেখে এ সব বলেছিলেন প্রিয়াঙ্কার মা !

সে কী! মেয়ের মাথায় মিস ওয়ার্ল্ডের মুকুট দেখে এ সব বলেছিলেন প্রিয়াঙ্কার মা !

সম্প্রতি নিজের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেল থেকে যে ভিডিওটি সবার সঙ্গে শেয়ার করে নিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া জোনাস, সেখানে নায়িকা নিজেই জুড়ে দিয়েছেন এই মর্মে হ্যাশট্যাগ- ইন্ডিয়ান মম!

সম্প্রতি নিজের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেল থেকে যে ভিডিওটি সবার সঙ্গে শেয়ার করে নিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া জোনাস, সেখানে নায়িকা নিজেই জুড়ে দিয়েছেন এই মর্মে হ্যাশট্যাগ- ইন্ডিয়ান মম!

সম্প্রতি নিজের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেল থেকে যে ভিডিওটি সবার সঙ্গে শেয়ার করে নিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া জোনাস, সেখানে নায়িকা নিজেই জুড়ে দিয়েছেন এই মর্মে হ্যাশট্যাগ- ইন্ডিয়ান মম!

  • Share this:

#মুম্বই: একে তিনি মা, তার উপরে আবার ভারতীয়! উঁহু, আমরা কূটকচালি করছি না ডক্টর মধু চোপড়াকে নিয়ে। সম্প্রতি নিজের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেল থেকে যে ভিডিওটি সবার সঙ্গে শেয়ার করে নিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া জোনাস, সেখানে নায়িকা নিজেই জুড়ে দিয়েছেন এই মর্মে হ্যাশট্যাগ- ইন্ডিয়ান মম!

একই সঙ্গে আরেকটা হ্যাশট্যাগের কথাও উল্লেখ না করাটা অন্যায় হয়ে যাবে। সেটা হল ২০ ইন ২০২০! যদি মনে না থাকে, তা হলে এই দ্বিতীয় হ্যাশট্যাগের নেপথ্যসূত্রটা একটু ঝালিয়ে নেওয়া যাক আপনার জন্য। আজ থেকে ঠিক কুড়ি বছর আগে, ২০০০ সালে মিস ওয়ার্ল্ডের মুকুট উঠেছিল এই নায়িকার মাথায়।

সম্প্রতি Instagram মারফত সেই ঘটনার কথা আমাদের মনে করিয়ে দিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা। ভিডিওর শুরুতে স্রেফ এক ঝলকের জন্য দেখা গিয়েছে দেশের মেয়ের বিশ্বজয়ের সেই ঐতিহাসিক মুহূর্ত। তার পরে বাকি সময়টা দেখা যাচ্ছে এই প্রসঙ্গে মা আর মেয়েকে স্মৃতি ঝালিয়ে নিতে। আর সেখান থেকেই জানা গিয়েছে যে প্রিয়াঙ্কা বিজয়ী হওয়ার পরে মঞ্চে দাঁড়িয়েই কী কাণ্ড করেছিলেন প্রিয়াঙ্কার মা মধু চোপড়া!

মধুর নিজের কথা অনুযায়ী না কি বেশ বোকার মতো কাজ করেছিলেন তিনি! মেয়ে বিশ্বসুন্দরীর খেতাব পাওয়ার পরে আনন্দে তাঁর দুই চোখ বেয়ে নেমে এসেছিল জলের ধারা। বিশ্বসুন্দরীকে জড়িয়ে ধরে কোথায় তাঁকে নিজের আনন্দের কথা জানাবেন, তা নয়, উল্টে না কি বলেছিলেন তিনি সবার সামনেই- এ বার প্রিয়াঙ্কার পড়াশোনার কী হবে!

তবে শুধুই মধু নন, নায়িকার ভাই সিদ্ধার্থ চোপড়াও এ প্রসঙ্গে জানিয়েছেন নিজের অনুভূতির কথা। আর সেটা না কি মিশ্র! এক দিকে তিনি আনন্দ পেয়েছিলেন দিদির সাফল্যে, অন্য দিকে বুঝেছিলেন যে এ বার চোপড়ারা তাঁকেই মেয়ের বদলে বিদেশের হোস্টেলে পড়তে পাঠিয়ে দেবেন!

কথা হল, প্রিয়াঙ্কা এই খেতাব জিতেছিলেন ২০০০ সালের ৩০ নভেম্বর। এখনও তা পূর্ণ হতে ১ মাস ১ দিন বাকি। তা হলে আগেই কেন উদযাপনে মেতেছেন তিনি? আরও কোনও বড় চমক আসবে না কি ৩০ নভেম্বর? দেখা যাক!

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: