• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • শ্রী-র মৃত্যু রহস্যে বনি কাপুরকে ক্লিনচিট দিচ্ছে না দুবাই পুলিশ, চলছে জিজ্ঞাসাবাদ

শ্রী-র মৃত্যু রহস্যে বনি কাপুরকে ক্লিনচিট দিচ্ছে না দুবাই পুলিশ, চলছে জিজ্ঞাসাবাদ

শ্রীদেবীর মৃত্যু রহস্য যেন আরও জটিল হয়ে উঠছে ৷ একের পর এক প্রশ্ন উঠছে দুবাইয়ের হোটেলের বাথরুমে শ্রীদেবীর অকস্মাৎ মৃত্যু নেই ৷

শ্রীদেবীর মৃত্যু রহস্য যেন আরও জটিল হয়ে উঠছে ৷ একের পর এক প্রশ্ন উঠছে দুবাইয়ের হোটেলের বাথরুমে শ্রীদেবীর অকস্মাৎ মৃত্যু নেই ৷

শ্রীদেবীর মৃত্যু রহস্য যেন আরও জটিল হয়ে উঠছে ৷ একের পর এক প্রশ্ন উঠছে দুবাইয়ের হোটেলের বাথরুমে শ্রীদেবীর অকস্মাৎ মৃত্যু নেই ৷

  • Share this:

    #দুবাই: শ্রীদেবীর মৃত্যু রহস্য যেন আরও জটিল হয়ে উঠছে ৷ একের পর এক প্রশ্ন উঠছে দুবাইয়ের হোটেলের বাথরুমে শ্রীদেবীর অকস্মাৎ মৃত্যু নেই ৷ সঙ্গে প্রশ্ন উঠছে শ্রীদেবীকে একা হোটেলে রেখে তাঁর স্বামী বনি কাপুরের দুবাই থেকে মুম্বই আসার ঘটনাও ৷

    সূত্রের খবর অনুযায়ী, দুবাই পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের মুখে বনি কাপুর ৷ শ্রীদেবীর মৃত্যুর নানা দিক নিয়ে প্রশ্ন করা হচ্ছে তাঁকে ৷ জানতে চাওয়া হচ্ছে, শ্রীদেবীকে একা ছেড়ে কেনই বা তিনি চলে আসেন মুম্বইয়ে ?  শ্রীদেবীর সঙ্গে শেষ কী কী কথা হয় বনি কাপুরের? পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে উঠে আসছে ঘটনার দিন কার কার সঙ্গে দেখা করেছিলেন শ্রীদেবী ? শ্রীদেবী আকস্মিক মৃত্যুর ঘটনার তদন্তে কোনও ধরণের তাড়াহুড়ো করতে চাইছে না দুবাই পুলিশ ৷ সেই কারণেই, ফের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে শ্রীদেবীর স্বামী বনি কাপুরকে ৷
    অন্যদিকে, পুলিশ কিছুতেই বিশ্বাস করতে চাইছে না শ্রীদেবীর মতো একজন স্টার বাথটাব ব্যবহার করতে জানেন না ৷ সঙ্গে তদন্তে উঠে আসা তথ্য অনুযায়ী, ঘটনার দিন নিজেই বাথরুমে গিয়েছিলেন তিনি ৷ হঠাৎ করে কীভাবে অচৈতন্য হয়ে পড়েন শ্রীদেবী ? কীভাবে ১.৫ ফিট বাথটাবে ডুবে কেউ মারা যেতে পারেন? ঘটনার সূত্রপ্রবাহ ক্রমশ ধন্দে ফেলছে পুলিশকে ৷
    অন্যদিকে, ফরেনসিক রিপোর্টে জলে ডুবে মৃত্যুর কথা বলা হলেও, সেটা বলপূর্বক কিনা, তা স্পষ্ট নয় ৷ আবার দুবাই পুলিশের ময়নাতদন্ত-ফরেনসিক রিপোর্টে মোটেই সন্তুষ্ট হননি সরকারি আইনজীবী ৷ গোটা তদন্তের গভীর যেতে চাইছেন সরকারি আইনজীবী ৷ শ্রীদেবীর শবদেহ ভারতে আনা নিয়ে জটিলতা বেড়েই চলেছে ৷ মৃত্যুর দু’দিন পরেও দুবাইয়েই পড়ে রয়েছেন বলিউডের চাঁদনি ৷ একদিকে তাঁর অনুরাগীরা অধীর অপেক্ষায় বসে রয়েছে অভিনেত্রীকে শেষ দেখার জন্য অন্যদিকে সূত্রের খবর অনুযায়ী, কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ নথি এখনও তৈরি না হওয়ার কারণেই শ্রীদেবীর পরিবারের হাতে তাঁর শবদেহ তুলে দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না ৷ শনিবার রাতে শ্রীদেবীর মৃত্যুর পর কাপুর পরিবার থেকে জানানো হয়েছিল হোটেলের বাথরুমে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েই মারা যান শ্রীদেবী ৷ তবে দুবাই পুলিশের ফরেনসিক রিপোর্টে আসে হৃদরোগ নয়, বাথটাবে জলে ডুবেই মৃত্যু হয়েছে বলিউডের চাঁদনির ৷ এমনকী, তাঁর রক্তে অ্যালকোহলও পাওয়া গিয়েছে বলে জানিয়েছে দুবাই পুলিশ ৷ সূত্রের খবর অনুয়ায়ী, দুবাইয়ের যে হোটেলে ছিলেন শ্রীদেবী, সেখানকার সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে ৷ জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে, শ্রীদেবীর রুম সার্ভিসে থাকা দুই ওয়েটারকেও ৷ যারা শনিবার দুপুর বেলা শ্রীদেবীর ঘরে পৌঁছে দিয়েছিলেন জল ও খাবার ৷ অন্যদিকে, ভারতে আনার জন্য শ্রীদেবীর দেহ সংরক্ষণ ৷ দেহ পাঠানো হল আল মুহাইসানায় ৷ দেহ রওনা দিতে আরও ২-৩ ঘণ্টা লাগবে৷ দুবাই প্রশাসন সূত্রে খবর, শ্রীদেবীর মৃত্যুর তদন্তভার নিল দুবাইয়ের পাবলিক প্রসিকিউশন ৷ দুবাই আইন মেনেই তদন্ত হবে ৷ ফরেনসিক ও ময়নাতদন্ত রিপোর্ট খতিয়ে দেখবে ৷ সেই রিপোর্টের ভিত্তিতে দেহ রিলিজের অর্ডার ৷ তারপরই দেহ পাবেন আত্মীয়রা ৷
    First published: