Home /News /entertainment /
Pallavi Dey Death: বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে ঠিক কী হয়েছিল পল্লবীর? মুখ খুললেন সাগ্নিকের বাবা ও মা

Pallavi Dey Death: বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে ঠিক কী হয়েছিল পল্লবীর? মুখ খুললেন সাগ্নিকের বাবা ও মা

বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে ঠিক কী হয়েছিল পল্লবীর? মুখ খুললেন সাগ্নিকের বাবা ও মা

বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে ঠিক কী হয়েছিল পল্লবীর? মুখ খুললেন সাগ্নিকের বাবা ও মা

Pallavi Dey Death: আজ রবিবার সকালে গড়ফার বাড়ি থেকে উদ্ধার হয় ২৫ বছর বয়সি অভিনেত্রীর ঝুলন্ত দেহ। তবে এটি আত্মহত্যা নাকি খুন তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

  • Share this:

    #কলকাতা: টেলি অভিনেত্রীর পল্লবী দের মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে টেলি পাড়ায়। আজ রবিবার সকালে গড়ফার বাড়ি থেকে উদ্ধার হয় ২৫ বছর বয়সি অভিনেত্রীর ঝুলন্ত দেহ। তবে এটি আত্মহত্যা নাকি খুন তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

    গড়ফার বাড়িতে বয়ফ্রেন্ড সাগ্নিক চক্রবর্তীর সঙ্গে থাকতেন পল্লবী দে। আগের দিন রাত ৩টে পর্যন্ত অনলাইন ছিলেন তিনি। সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টেও নেই কোনও আত্মহত্যার ইঙ্গিত। সাগ্নিকের সঙ্গে পাটুলির কাছাকাছি গিয়ে মোমো খাওয়ার ছবিও শেয়ার করেছিলেন। তাহলে কেন এই ঘটনা? জানা যাচ্ছে শনিবার নাকি সাগ্নিকের সঙ্গে কোনও বিষয় নিয়ে তাঁর কথা কাটাকাটিও হয়। তবে তা কী, এখনও প্রকাশ্যে আসেনি। সাগ্নিককে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

    আত্মহত্যার প্ররোচনার ঘটনাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। যদিও সাগ্নিকের বাবা ও মা আত্মহত্যার প্ররোচনার বিষয়টি উড়িয়ে দিয়েছেন। তাঁদের দাবি, সম্পর্ক এমন জায়গায় পৌঁছয়নি যা আত্মহত্যার প্ররোচনা দিতে পারে।

    আরও পড়ুন- বয়ফ্রন্ডের সঙ্গে লিভ-ইন! কথা কাটাকাটির জন্যই কি পল্লবীর এই পরিণতি? রহস্য ঘনাচ্ছে

    সাগ্নিকের বাবা সুভাষ চক্রবর্তী বলছেন, "ওরা কী বলছে জানি না। আমরা তো ওদের সঙ্গে থাকতাম না। ওরা দুজনে আলাদা থাকত। ওদের কোনও গণ্ডগোল আছে বলে মনে হয় না। ওরা এসেছিল। কথা বার্তা হয়েছিল। সবই হয়েছিল। কিন্তু এরকম ঘটনা জানা নেই। মনে হয় ওদের দুজনের মধ্যে কোনও অশান্তি হয়েছিল। এমনিতেও দুজনে খুব মাথা গরম। এতই মাথা গরম, যখন মেলামেশা শুরু করে আর আমি বারণ করতাম, এমন ব্যবহার করত যা আমার ভাল লাগত না।"

    সাগ্নিকের মা সন্ধ্যা চক্রবর্তী বলছেন, "ভেবেছিলাম আজকালকার ছেলে মেয়ে বড় হয়েছে। একসঙ্গে লিভ ইন-এ থাকছে। আমরা বলেছিলাম, এখন আলাদা থাকো যে যার বাড়ি। পরে দেখা যাবে বিয়ে ইত্যাদি হলে। কিন্তু মেয়েটির বাড়ি থেকে সায় ছিল বলে আমাদের ছেলে কথা শোনেনি। মেয়েটির খুব মাথা গরম। আমরা কিছু বললেই আমাদের সঙ্গে রূঢ় ব্যবহার করত।"

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published:

    Tags: Pallavi dey

    পরবর্তী খবর