ভারতের কৃষক বিক্ষোভ নিয়ে গান বাঁধলেন পাক-গায়ক!

দেশের মানুষ যতটা পারছেন, সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন দিল্লির নিকটবর্তী সিংঘু সীমান্তে নয়া কৃষি বিলের বিরোধিতায় আন্দোলনরত কৃষকদের জন্য।

দেশের মানুষ যতটা পারছেন, সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন দিল্লির নিকটবর্তী সিংঘু সীমান্তে নয়া কৃষি বিলের বিরোধিতায় আন্দোলনরত কৃষকদের জন্য।

  • Share this:

#মুম্বই: দেশের মানুষ যতটা পারছেন, সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন দিল্লির নিকটবর্তী সিংঘু সীমান্তে নয়া কৃষি বিলের বিরোধিতায় আন্দোলনরত কৃষকদের জন্য। পঞ্জাব, হরিয়ানা এবং উত্তর প্রদেশের কিছু জায়গা থেকে এসে যে কৃষকেরা সিংঘু সীমান্তে ডেরা ফেলেছেন, তাঁদের শারীরিক স্বাচ্ছন্দ্যের জন্য অনেক আয়োজনই হয়েছে। বসেছে ফুট মাসাজার মেশিন, রুটি মেশিন; ঠাণ্ডার মোকাবিলার জন্য কাশ্মীর থেকে এসেছে কাংড়ি। কিন্তু তাঁদের মানসিক ভাবে উৎসাহিত করার কাজটি খুব সরাসরি ভাবে কেউ করেননি। বলিউডের নানা শিল্পী সোশ্যাল মিডিয়া মারফত এই আন্দোলনকে স্বাগত জানিয়েছেন, কিন্তু ওই পর্যন্তই! কৃষকদের হয়ে কোনও শৈল্পিক উদ্যোগে তাঁদের সামিল হতে দেখা যায়নি। কিন্তু সেই কাজটিই এবার করলেন প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানের গায়ক জওয়াদ আহমদ (Jawad Ahmad)। কিসান (Kisana) নামে একটা গান তিনি বেঁধে ফেলেছেন এই আন্দোলনের প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ্য হিসেবে। সেই গানের ভিডিও এখন নেটদুনিয়ায় রীতিমতো ঝড় তুলছে!

জওয়াদের এই গান, সত্যি বলতে কী, সারা বিশ্বের কৃষকদের উদ্দেশে নিবেদিত। এ প্রসঙ্গে তিনি সংবাদমাধ্যমের সামনে তুলে ধরেছেন এক রূঢ় সত্যকে। জানিয়েছেন, পাকিস্তানেও কৃষকদের অর্থনৈতিক, সামাজিক অবস্থান খুব একটা উল্লেখ করার মতো নয়। অনেক দিক থেকেই তাঁরা যে শোষণের স্বীকার, সেটা খোলাখুলি ভাবে স্বীকার করে নিতে পিছ-পা হননি জওয়াদ। সেই দিক থেকে বিশ্বের সব দেশের অবহেলিত কৃষকের কথা উঠে এসেছে তাঁর গানে। তাঁদের সবাইকে একজোট হওয়ার ডাক দিয়েছেন তিনি নিজের গানের মাধ্যমে। খবর মোতাবেকে, জওয়াদের এই গানের ভিডিও এর মধ্যেই YouTube-এ দারুণ জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। অনেকেই তাঁর গায়কির প্রশংসা যেমন করেছেন, তেমনই অনেকে আবার স্রেফ উদ্যোগ এবং বিষয়ের কথা মাথায় রেখে সাধুবাদ জানিয়েছেন তাঁকে। শিখ ভাইদের জন্য ভালোবাসা জানিয়ে গানের ভিডিওর নিচে কমেন্ট করতে দেখা গিয়েছে পাকিস্তানের নাগরিকদের। পাশাপাশি, পঞ্জাবের YouTube ইউজাররা ভালোবাসায় ভরিয়ে দিয়েছেন জওয়াদের এই উদ্যোগকে। অনেক ভারতীয়ই এই গান শুনে জওয়াদের প্রতিভায় মুগ্ধ হয়েছেন। এই দেশে জনপ্রিয় পাক-গায়ক আতিফ আসলমের (Atif Aslam) তুলনায় জওয়াদ যে বেশি ভালো গান গাইতে পারেন, সে কথাটাও খোলাখুলি বলতে দ্বিধা করছেন না অনেকেই!
Published by:Akash Misra
First published: