বিনোদন

corona virus btn
corona virus btn
Loading

লাস্যময়ী ভঙ্গীতে একের পর এক ছবি, ইনস্টাগ্রামে আগুন লাগিয়ে দিলেন অভিনেত্রী নিয়া শর্মা!

লাস্যময়ী ভঙ্গীতে একের পর এক ছবি, ইনস্টাগ্রামে আগুন লাগিয়ে দিলেন অভিনেত্রী নিয়া শর্মা!

টেলিভিশন না কি ছোট পর্দা! কিন্তু সেই ছোট পর্দার অভিনেত্রী নিয়া শর্মা (Nia Sharma) মানে হল বড় বিস্ফোরণ।

  • Share this:

#মুম্বই: টেলিভিশন না কি ছোট পর্দা! কিন্তু সেই ছোট পর্দার অভিনেত্রী নিয়া শর্মা (Nia Sharma) মানে হল বড় বিস্ফোরণ। এক হাজারো মে মেরি বহেনা হ্যায় (Ek Hazaaron Mein Meri Behna Hain) ধারাবাহিকে মনভির ভূমিকায় অভিনয় করে জনপ্রিয় হয়েছিলেন নিয়া। তবে বছর তিরিশের নিয়া মাঝে মধ্যেই ইন্সটাগ্রামে (Instagram) নানা ভঙ্গিমায় ছবি পোস্ট করেন। আর তাঁর দেওয়া প্রত্যেকটা ছবিই বুকে কাঁপন ধরিয়ে দেওয়ার মতো। নিয়ার আসল নাম নেহা। ২০১৭ সালে একটি ব্রিটিশ ট্যাবলয়েডের সমীক্ষায় সেরা ৫০ জন সেক্সিয়েস্ট মহিলার তালিকায় নাম সংযোজিত হয় তাঁর। ১) আবার ভক্তদের অবাক করলেন টেলি অভিনেত্রী নিয়া শর্মা। একের পর এক ছবি দিয়ে ইন্সটাগ্রামে আগুন লাগিয়ে দিলেন তিনি। পরনে কালো ব্রেসিয়ার আর সামনে খোলা ম্যাচিং জ্যাকেটে ‘হট’ অবতারে দেখা দিলেন তিনি। ২) পরের ছবিতেই পুরোটা দেখা যাচ্ছে নিয়াকে। কমব্যাট বুট আর কালো ট্রাউজার তাঁর এই লুক সম্পূর্ণ করেছে।

৩) এর আগে নিয়ার কালো সোনালি বিকিনিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় তুলেছিল। ৪) বিকিনি পরে সমুদ্র সৈকতে ‘চিল’ করতে ভালোবাসেন নিয়া। তাঁর এই গোলাপি বিকিনি তারই ইঙ্গিত দিচ্ছে। ৫) সব লুক সবাইকে মানায় না। নিয়া কিন্তু তাঁর এই প্যাস্টেল শেড গাউন আর চোখে স্টোনড লুকে দিব্যি উতরে গিয়েছেন। ৬) এলবিডি পরতে অনেককেই দেখা যায়। কিন্তু সমুদ্র সৈকতে বালি মেখে এইভাবে লাস্যময়ী ভঙ্গীতে নিয়া অনন্যা হয়ে উঠেছেন। ৭) এই ছবিতে নিয়া যেন মানবী নয়, হয়ে উঠেছেন এক দুষ্টু মিষ্টি পুতুল। উজ্জ্বল হলুদ রঙের পোশাক ভাল মানিয়েছে তাঁকে। অ্যাকসেসরি হিসেবে তাঁর হুপ ইয়াররিং যোগ্য সঙ্গত দিয়েছে। নিয়ার হাফ ওপেন হাফ ক্লোজড পনিটেল যেন তাঁর লুক আরও উজ্জ্বল করে তুলেছে। ৮) গাঢ় ট্যাঙ্গি শেডের লিপস্টিক আর সোনালি চেন দেওয়া পোশাকে ৯০ এর দশক তুলে নিয়ে এসেছেন নায়িকা। নিজেকে বলেছেন ইনার 'স্পাইস' গার্ল। ৯০ এর দশকে সুরের দুনিয়া কাঁপিয়ে দিয়েছিল স্পাইস গার্ল নামক একটি পপ গ্রুপ। নিয়া নিজের লুকে সেই অতীতেই নিয়ে গিয়েছেন।

Published by: Akash Misra
First published: January 14, 2021, 8:06 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर