শরদ কেলকারের সামনে টিকতে পারলেন না অক্ষয় কুমার !'লক্ষ্মী'তে শুধু শরদেরই প্রশংসা !

শুধু বিদেশে নাচ আর অ্যাকশন যে সব নয়, তা বুঝিয়ে দিলেন শরদ কেলকর। অসাধারণ দক্ষতায় তিনি ফুটিয়ে তুলেছেন 'লক্ষ্মী'র চরিত্র।

শুধু বিদেশে নাচ আর অ্যাকশন যে সব নয়, তা বুঝিয়ে দিলেন শরদ কেলকর। অসাধারণ দক্ষতায় তিনি ফুটিয়ে তুলেছেন 'লক্ষ্মী'র চরিত্র।

  • Share this:

    #মুম্বই: সোমবার ডিসনি প্লাস হটস্টারে মুক্তি পেয়েছে অক্ষয় কুমার, কিয়ারা আডবাণী অভিনীত ছবি 'লক্ষ্মী'। এই ছবির নাম প্রথমে রাখা হয়েছিল 'লক্ষ্মী বোম্ব'। পরে অবশ্য সেনসরের চাপে নাম বদলানো হয়। লাল শাড়ি, হাতে চুড়ি, মাথায় সিঁদুর পরা অক্ষয়কে ট্রেলরে দেখা গিয়েছিল। এই রূপ দেখেই মনে করা হচ্ছিল দারুণ কিছু একটা হতে চলেছে। মনে পড়ে যাচ্ছিল 'ভুলভুলাইয়া'র আক্কিকে। তেমন কিছু একটা ধামাকা যে তিনি আবার করবেন, সে বিষয়ে দর্শকমহল নিশ্চিত ছিল। কিন্তু কোথায় কি ! এতটা হতাশ হতে হবে তা আগে জানা ছিল না। তামিল হরর কমেডি 'মুনি ২: কাঞ্চনা' ছবির হিন্দি রিমেক করেছেন পরিচালক রাঘব লরেন্স। দর্শক চূড়ান্ত উত্তেজনা নিয়ে ছবি দেখা তো শুরু করল, কিন্তু ফিরতে হল হতাশ হয়ে। বাড়িতে বসে একটা সন্ধ্যে নষ্ট ছাড়া আর কিছু না। আইএমডিবি-তে এই ছবির রেটিং দশের মধ্যে মাত্র ২.৫। হাজার হাজার দর্শক এই ছবিকে ১-এর বেশি নম্বর দেননি।

    অক্ষয় কুমার, রাজেশ শরমা এদের অভিনয় এগিয়েছে নিজের গতিতে। কিন্তু সকলকে একাই দশ গোল দিয়েছেন অভিনেতা শরদ কেলকার। এই ছবির গল্প এগিয়েছে এক কিন্নরের লড়াইয়ে কেন্দ্র করে। কিন্নরকে ঠকিয়ে খুন করে এক ব্যবসায়ী ও তাঁর পরিবার। জমি দখলের লড়াই। সেই কিন্নরকে ও তাঁর পালক পিতা ও ভাইকে খুন করে কবর দেয় সেই জমিতেই যা কিনা এক সময়ে ওই মৃত কিন্নরের ছিল। পরে এই জমিতে বাস করতে থাকে ভূত। কিন্নরের নাম ছিল লক্ষ্মী। গল্পটা এই লক্ষ্মীর। অক্ষয় কুমারের ঘাড়ে ভর করে এই ভূত। লক্ষ্মী রূপী অক্ষয় বদলা নিতে শুরু করে। এই হল গল্প। অক্ষয়কে কেউ আর ভালোবাসতে পারেনি এই ছবিতে। সকলেই লক্ষ্মীতে ডুবে গিয়েছেন।

    যেভাবে শরদ কেলকার এত ভালো অভিনয় করেছেন, যে পাশে দাঁড়াতে পারেননি অক্ষয়। শুধু বিদেশে নাচ আর অ্যাকশন যে সব নয়, তা বুঝিয়ে দিলেন শরদ কেলকর। অসাধারণ দক্ষতায় তিনি ফুটিয়ে তুলেছেন লক্ষ্মীর চরিত্র। এই টুকু ছাড়া এই ছবিতে কিছুই নেই। কমেডি বা হাসির যে খোরাক তা একেবারেই নিম্ন মানের। এ ওকে চড় মারছে, বোকা বোকা কথা বলছে, তাতে আপনার মাথা ধরা ছাড়া কিছু হবে না।

    তবে গোটা বিকেল লক্ষ্মীর জন্য দিয়ে সমালোচকরা কি আর চুপ করে বসে থাকবেন? তাঁরাও সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে শুরু করে দিয়েছেন সমালোচনা। সব জায়গায় অক্ষয়কে নিয়ে সমালোচনা করা হচ্ছে। তবে এই নেটিজেনদের মুখেও শরদ কেলকারকে নিয়ে প্রশংসা ঘুরছে।

    Published by:Piya Banerjee
    First published: