corona virus btn
corona virus btn
Loading

মৃত মেয়ের মুখদর্শন করেননি মৌসুমি, বালিকাবধূর বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ জামাইয়ের

মৃত মেয়ের মুখদর্শন করেননি মৌসুমি, বালিকাবধূর বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ জামাইয়ের
মৌসুমি চট্টোপাধ্যায় ৷ ফাইল ছবি ৷

অভিযোগ, পাল্টা অভিযোগে উত্তপ্ত সংসার !

  • Share this:

#মুম্বই: বাংলা তথা ভারতীয় চলচ্চিত্রের অন্যতম জনপ্রিয় নাম মৌসুমি চট্টোপাধ্যায়ের মেয়ে পায়েল দীর্ঘ রোগে ভোগার পরে সম্প্রতি মারা গিয়েছেন ৷ ২ বছর ধরে কোমায় ছিলেন পায়েল ৷ এক বিশেষ ধরনের ডায়াবিটিস ছিল তাঁর দীর্ঘদিন ধরে ভুগছিলেন তিনি ৷ লাগাতার ২ বছর কোমায় থাকার পরে পায়েলের স্বামী ডিকি সিনহা হাসপাতাল থেকে ঘরে নিয়ে গিয়েছিলেন তাঁকে ৷ কোমায় থাকা অসুস্থ মেয়েকে বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার গভীর অভিযোগ করেছিলেন মৌসুমি চট্টোপাধ্যায় ৷

তিনি জানিয়েছিলেন জামাই ডিকি মেয়ে পায়েলের সঙ্গে দেখা করতে দেননি ৷ এমনকী মেয়ে চূড়ান্ত অসুস্থ থাকার পরেও নয় ৷ এমনকী অভিযোগ করেছিলেন জামাই তাঁর মেয়ের ফিজিওথেরাপিও বন্ধ করে দিয়েছিলেন ৷ এমনকী সেই কারণে বম্বে হাইকোর্টে মামলাও দায়ের করা হয়েছিল ৷ পায়েলের প্রয়াণের পরে স্বামী ডিকি সিনহা উল্টোদিক থেকে মৌসুমি চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন ৷ ডিকি স্পটবয়কে একটি দীর্ঘ সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন পায়েলের দেখাশোনা এত যত্ন সহকারে করেছেন যে বলিউডের সেলিব্রটিরা ঘটনার ভ্রুয়সী প্রশংসা করেছেন ৷

এই সুখ সহ্য হয়নি তাই মৌসুমি চট্টোপাধ্যায় তাঁকে বিব্রত করার জন্য আদালতে মামলা করেছিলেন ৷ অন্তত এমনটাই দাবি করেছেন ডিকি সিনহা ৷ তিনি অভিযোগ করেছেন ৷ মা হয়ে মৌসুমি চট্টোপাধ্যায় মেয়ের মরা মুখ দেখতে যাননি ৷ এমনকী শেষকৃত্যের সময় বাবা ও বোন শ্মশানে গেলেও তিনি যাননি ৷ ডিকি জানিয়েছেন তাঁর কাছে এই সব ঘটনার তথ্য প্রমাণ রয়েছে ৷ ২ মাসেরও বেশি সময় ধরে পায়েলের শরীর গুরুতর অসুস্থ ছিল ৷ সবাই জানতেন অসুখের গুরুত্ব ৷ মেয়ের গুরুতর অসুখে মাত্র ৫ বার ৫ মিনিটের জন্য দেখতে গিয়েছিলেন মা মৌসুমি ৷

পায়েলের বোন মেঘা যখন জানতে পেরেছিল পায়েলের জুবেনাইল ডায়াবেটিসের মত মারাত্মক রোগ বাসা বেঁধে ছিল শরীরে তখন তিনি প্রসাদ খাওয়াবার চেষ্টা করেছিলেন এতে পরিস্থিতি আরও জটিল হয়েছিল বলেই দাবি করেছেন ডিকি সিনহা ৷ ডিকি আরও জানিয়েছেন কোমায় থাকার সময় পায়েলের ২ বার জ্ঞান ফিরেছিল ৷ পরে ফের শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছিল ৷ শেষ নিঃস্বাস পর্যন্ত পায়েল তাঁর সঙ্গে ছিলেন ৷ তাই এই বিষয় নিয়ে আর কোনও সাফাই দেওয়ার প্রয়োজন বোধ করেন না ডিকি ৷

First published: December 20, 2019, 11:30 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर