Home /News /entertainment /
Johny Bonny: মগজাস্ত্র এবং আগ্নেয়াস্ত্র যখন জুটি বাঁধে, মুক্তি পেল 'জনি বনি'র মোশন পোস্টার

Johny Bonny: মগজাস্ত্র এবং আগ্নেয়াস্ত্র যখন জুটি বাঁধে, মুক্তি পেল 'জনি বনি'র মোশন পোস্টার

জনি কি পারবে তার প্রথম তদন্ত সমাধান করতে? বনি কি পারবে দাবা টুর্নামেন্টে জিততে? নাকি লক্ষ্য পৌঁছতে একে অন্যের সাহায্য নেবে তারা?

  • Share this:

    #কলকাতা: মগজাস্ত্র যখন আগ্নেয়াস্ত্রে পরিণত হয়! দাবাড়ু এখন বোর্ড ছেড়ে হাতে ধরেছে বন্দুক। কিন্তু যখন চারপাশটা অগোছালো হয়ে ওঠে, দাবার গুটি তো উল্টে পাল্টে যাবেই। তেমনই হল এখানে। মুক্তি পেল পরিচালক অভিজিৎ চৌধুরীর আগামী সিরিজ ‘জনি বনি’র মোশন পোস্টার। এক দিনের মধ্যে সেই পোস্টার নিয়ে মাতামাতি দর্শকমহলে। দেবাশিস মণ্ডল, স্বস্তিকা দত্ত এবং অঙ্কিত মজুমদার অভিনীত এই সিরিজ খুব তাড়াতাড়ি মুক্তি পাবে 'ক্লিক'-এ। এই তিন জন ছাড়াও অভিনয়ে রয়েছেন কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়, লোকনাথ দে, অনির্বাণ ভট্টাচার্য, যুধাজিৎ সরকার, পুষ্পিতা মুখোপাধ্যায়, জয়তী চক্রবর্তী, অভ্যুদয় দে, তুষিতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রমুখ।

    আরও পড়ুন: 'গোধুলী আলাপ' দেখে চোখে জল দর্শকের, কৌশিক-সমুর প্রেম দেখতে চেয়ে বিদ্রোহ!

    এক পুলিশ অফিসার আর এক কিশোর দাবাড়ুর গল্প। তরুণ পুলিশ অফিসার জনার্দন দাস ওরফে জনি চায় বড় কোনও তদন্তের দায়িত্ব পেতে। কিন্তু জনির পোস্টিং হয় স্থানীয় রাজনৈতিক নেতা প্রমোদ সেনের বাড়ির নিরাপত্তার তদারকির দায়িত্বে। জনিকে ওর স্ত্রী আঁখির কাছে ডিউটি নিয়ে মিথ্যে গল্প দিতে হয়। কারণ জনি আঁখির চোখে ছোটো হতে পারবে না। আঁখির দিদির ছেলে, ১৩ বছরের বনি দাবা টুর্নামেন্টের জন্য জনির বাড়িতে হাজির হয়। জনি এবং বনির মধ্যে সম্পর্কটা একটু গোলমেলে। জনি চায় বনি বড়দের শাসন মেনে কাজ করুক। কিন্তু বনি ছোট বড় মানে না। জনি তাঁর স্ত্রীকে মিথ্যে কথা বলছে।

    হঠাৎ তিন দুষ্কৃতি প্রমোদ সেনের বাড়িতে হামলা করে। জনি নিজে গুলি খেয়ে প্রমোদ সেনদের বাঁচিয়ে দেয়। কিন্তু প্রমোদের মেয়ে রিমিরও খোঁজ পাওয়া যায় না। জনি তদন্তভার পায়। তদন্ত করতে শুরু করে ক্রমশ বুঝতে পারে অত্যন্ত প্রভাবশালী মানুষেরা গোটা ঘটনার সঙ্গে জড়িত। স্থানীয় থানা আসলে চায় না তদন্তের সমাধান হোক। একই সঙ্গে বনির দাবা টুর্নামেন্ট শুরু হয়। এ বার প্রশ্ন, জনি কি পারবে তার প্রথম তদন্ত সমাধান করতে? বনি কি পারবে দাবা টুর্নামেন্টে জিততে? নাকি লক্ষ্য পৌঁছতে একে অন্যের সাহায্য নেবে তারা? আর এই নিয়েই শুরু হতে চলেছে 'জনি বনি'।

    আরও পড়ুন: করিনার পরে শ্যুটিংয়ের জন্য দার্জিলিং পাড়ি সোহম চক্রবর্তীর

    দেবাশিসের কথায়, ''চরিত্রটির সঙ্গে আমি অনেকাংশেই মিল খুঁজে পেয়েছি। ভাবনাচিন্তা, আদর্শ, ব্যক্তিগত জীবন ও পারিপার্শ্বিক পরিস্থিতির টানাপড়েনের যে মানসিক অবস্থার মধ্যে দিয়ে জনি যায় তার সঙ্গে বহু অংশেই আমি সমানুভূতি অনুভব করি। এক অনবদ্য যাত্রা। এই গল্প নিয়ে আলোচনার সময় বুঝতে পারি, এই চরিত্রের মূল দ্বন্দ্ব আমাদেরই সামাজিক এবং ব্যক্তিগত জীবনের থেকে অনুপ্রেরণা নিয়ে তৈরি। যে কারণে এই চরিত্রের সঙ্গে অনেকটাই একাত্ম হতে পেরেছিলাম।''

    Published by:Teesta Barman
    First published:

    Tags: Bengali Web series

    পরবর্তী খবর