‘ছেড়ে দিলে অন্য মেয়ের সঙ্গে নোংরামি করত !’, অশ্লীল ইঙ্গিত করায় ট্যাক্সি চালককে উচিত শিক্ষা মিমির

সাংসদ অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীকে অশ্লীল ইঙ্গিত করায় গ্রেফতার হল যুবক।

সাংসদ অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীকে অশ্লীল ইঙ্গিত করায় গ্রেফতার হল যুবক।

  • Share this:

#কলকাতা:  সাংসদ অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীকে অশ্লীল ইঙ্গিত করায় গ্রেফতার হল যুবক। ১৪ সেপ্টেম্বর সোমবার বিকেলে ৫ টা নাগাদ গাড়িয়াহাট থেকে বালিগঞ্জের  ট্রাফিক সিগনালে মিমি চক্রবর্তীর গাড়ি দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় তাঁর দিকে কুৎসিত অঙ্গভঙ্গি করেন এক ট্যাক্সি চালক। এরকম ঘটনায় রীতিমতো হতবাক হয়ে পড়েন মিমি। ক্ষুব্ধ মিমি অভিযোগ দায়ের করেন গাড়িয়াহাট থানায়। রাতেই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ ৷

খবর অনুযায়ী, ১৪ সেপ্টেম্বর বিকেল ৫ টা নাগাদ নিজের গাড়ি চেপে জিম থেকে বাড়িতে ফিরছিলেন সাংসদ অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী ৷ বালিগঞ্জের ট্রাফিক সিগন্যালে গাড়ি দাঁড়াতেই, পাশের এক ট্যাক্সি থেকে মিমিকে কুৎসিত অঙ্গভঙ্গি করে এক ট্যাক্সি চালক ৷ মিমি তৎক্ষণাৎ গাড়ি থেকে নেমে সেই ট্যাক্সি চালককে ধরে ফেলেন । ভিড় জড়ো হতে থাকায় এবং মিমির আরেকটি জায়গায় যাওয়ার তাড়া থাকার সুযোগে ট্যাক্সি চালক ওখান থেকে পালিয়ে গেলে পরে গাড়িয়াহাট থানায় গাড়ির নম্বর দিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন মিমি। ট্যাক্সি চালকের নাম দেবা যাদব ৷

নিউজ১৮বাংলাকে পুরো ঘটনা বলতে গিয়ে মিমি জানালেন, ‘আমি গতকাল অর্থাৎ সোমবার যখন জিম থেকে ফিরছিলাম, তখন আমি একাই ছিলাম ৷ আমি আর আমার ড্রাইভার ছিল ৷ আমার বাড়ি থেকে আমার জিম খুবই কাছে ৷ যখন আমি বাড়ি ফিরছিলাম, তখন দেখি একটা ট্যাক্সি ড্রাইভার আমাকে একটা বাজে ইঙ্গিত করছিল ৷ বলা ভালো চোখ মারছিল ৷ আমি ভাবলাম হয়তো মুদ্রা দোষ হতে পারে৷ তারপর হঠাৎ দেখি ট্যাক্সি নিয়ে এসে আমার গাড়িটা ওভারটেক করে আমাকে আরও নোংরা অঙ্গভঙ্গি করছে৷ তখন আর চুপ থাকতে পারিনি ৷ ড্রাইভারকে বলি গাড়িটা ট্যাক্সির আগে নিয়ে দাঁড় করাতে ৷ আমি গাড়ি থেকে নেমে ট্যাক্সি চালককে উচিত শিক্ষা দিই৷ তখন বৃষ্টি শুরু হয়েছে ৷ রাস্তায় লোকজন কম ৷ তারপর হঠাৎ এলাকার লোক ভিড় জমাতে শুরু করে, তাই ট্যাক্সি চালককে ছেড়ে দিতে হয় ৷ ’

মিমির কথায়, ‘এই ঘটনার প্রতিবাদ করা উচিত ৷ কারণ আমাকে নোংরা ইঙ্গিত করেছে ৷ ওর ট্যাক্সিতে একা মেয়ে উঠলে গায়ে হাতও দিতে পারত ! তবে পুলিশের ওপর আমার ভরসা ছিল৷ গতকাল রাতেই পুলিশ ট্যাক্সি চালককে গ্রেফতার করেছে ৷ মদ্যপ ছিল ট্যাক্সি চালক ৷ ওকে ছেড়ে দেওয়াটা ঠিক হতো না ৷ এধরনের ঘটনায় প্রতিবাদ করা সব সময় উচিত ৷ ’

Published by:Akash Misra
First published: