• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • রাণু মণ্ডলের পর ভাইরাল ওড়িশার শ্রমিক দুলে রকার, এক-একটা গানে কাঁপছে নেট দুনিয়া, শুনুন--

রাণু মণ্ডলের পর ভাইরাল ওড়িশার শ্রমিক দুলে রকার, এক-একটা গানে কাঁপছে নেট দুনিয়া, শুনুন--

সোশ্যাল মিডিয়ার নয়া সেনসেশন র‍্যাপার দুলে রকার, পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে গান বাঁধেন দুলে

সোশ্যাল মিডিয়ার নয়া সেনসেশন র‍্যাপার দুলে রকার, পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে গান বাঁধেন দুলে

সোশ্যাল মিডিয়ার নয়া সেনসেশন র‍্যাপার দুলে রকার, পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে গান বাঁধেন দুলে

  • Share this:

    # ওড়িশা: সোশ্যাল মিডিয়ার নয়া সেনসেশন, নেট দুনিয়া কাঁপিয়ে দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন র‌্যাপার দুলে রকার। এখন এই নামেই পরিচিত দুলেশ্বর টান্ডি। পেশায় শ্রমিক দুলেশ্বর। দিনের পর দিন চোখের সামনে দেখেছেন কীভাবে করোনা পরিস্থিতি ও লকডাউনে চরম ভোগান্তি ও অসহায়তার শিকার হয়েছেন ‌পরিযায়ী শ্রমিকেরা। নিজেও সেই টালমাটাল পরিস্থিতির মধ্যে দিন কাটিয়েছেন! আর সেখান থেকেই জন্ম নিয়েছে তাঁর নিজস্ব র‍্যাপ ‘‌স্ট্রিট আর্ট’! গানের লাইনে লাইনে ফুটে উঠেছে কোভিড -19 পরিস্থিতিতে দেশের লক্ষ লক্ষ পরিযায়ী শ্রমিকদের দুর্ভোগের কথা! ‌ ‌

    শুনুন গান--

    ২৭ বছরের দুলে রকার ওড়িশার কালাহান্দি জেলার বাসিন্দা। লকডাউন ও করোনা পরিস্থিতিতে পরিযায়ী শ্রমিকদের প্রতিটা মুহূর্তের দুর্দশার কথা সমাজের কানে পৌঁছে দিতেই র‍্যাপ করেন তিনি। কোনও বাদ্যযন্ত্র, ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক বা সাজানো গোছানো মঞ্চ নেই... নিজের মাটির কুড়ে ঘরে বসেই গান বাঁধেন দুলে। সম্বল শুধুমাত্র তাঁর জোড়ালো গলা। সাধারণ মোবাইল ফোনেই গান রেকর্ড করেন।

    ২০১৩ সালে কালাহান্দির একটি সরকারি কলেজ থেকে কেমিস্ট্রি নিয়ে বিএসসি পাশ করে রায়পুরে পাড়ি দেন দুলে রকার। শুরু হয় জীবনে বেঁচে থাকার নিরন্তর লড়াই। হোটেলে ওয়েটারের কাজ করেছেন, দিনের পর দিন এঁটো বাসন মেজে, টেবিল মুছে পেটের খাবার জুটিয়েছেন।

    দুলে রকার জানান, ‘‌খবরে দেখলাম চিন, আমেরিকা, ইওরোপের নানা দেশে মারাত্মক হয়ে উঠেছে করোনা। বুঝলাম, আমাদের দেশেও ভয়াবহ পরিস্থিতি আসতে চলেছে। করোনা মোকাবিলায় লকডাউন ঘোষিত হওয়ার পর ঠিক করে ফেলি, বাড়ি ফিরে আসব। তখন দেখতে পেলাম পরিযায়ী শ্রমিকের দল খালি পায়ে, কোলে বাচ্চা নিয়ে মাইলের পর মাইল হেঁটে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন।''  তখনই তিনি তাঁর প্রথম গান ‘টেলিং দ্য ট্রুথ‌’ লেখেন। তাঁর পরের গানটি ‘‌সুন সরকার, সৎ কথা’। বর্তমনে মায়ের সঙ্গে ছোট্ট মাটির বাড়িতে থাকেন দুলে। অবশ্য তাঁর র‌্যাপ ভাইরাল হওয়ার পর ওড়িশার ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি থেকে কয়েকটা অফার পেয়েছেন।
    Published by:Rukmini Mazumder
    First published: