Home /News /entertainment /
এলিটের পর এবার বন্ধ হচ্ছে মালঞ্চ সিনেমা

এলিটের পর এবার বন্ধ হচ্ছে মালঞ্চ সিনেমা

  • Share this:

    #কলকাতা: এলিটের পর এবার বন্ধ হতে চলেছে দক্ষিণ কলকাতার জনপ্রিয় সিনেমা হল মালঞ্চ ৷ টালিগঞ্জ চত্বরের এই প্রেক্ষাগৃহে ৮ দিন ধরে কোনও শো দেখানো হয়নি। টিকিট ঘরের ঝাঁপ বন্ধ। যদিও হল বন্ধ হওয়ার অফিসিয়াল কোনও নোটিস পড়েনি । তবুও সিনেমা হলের অন্দরে যেন বিদায়ের সুর ৷ সূত্রের খবর অনুযায়ী, মৌখিকভাবে হলের ১৪ জন কর্মচারীদেরও বলে দেওয়া হয়েছে হল বন্ধের কথা ৷ এমনকী, কর্মচারীদের ক্ষতিপূরণের কথাও বলা হয়েছে ৷ মাল্টিপ্লেক্সের ঝাঁ চকচকের কাছে হার মেনেই কী বন্ধ হতে চলেছে শহরের বুকে টিকে থাকা সিঙ্গল স্ক্রিনগুলো ? এই কারণেই কী বন্ধ হতেছে দক্ষিণের ঐতিহ্যবাহী মালঞ্চও ? প্রশ্ন উঠছে নানামহল থেকে, সঙ্গে রয়েছে নানা কানাঘুষোও ৷

    অনেকের মতে, ‘মালঞ্চ’ সিনেমা হলের বেশ কিছু সমস্যা রয়েছে ৷ অনেকেই প্রশ্ন তুলছে সিনেমা হল চালানোর মতো ন্যুনতম সুবিধা কি রয়েছে মালঞ্চতে? রয়েছে কি সঠিক অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থা ? প্রিয়া সিনেমা হলে আগুন লাগার ঘটনা থেকেই কী শিক্ষা নিয়ে আগে-ভাগে সিনেমা হল বন্ধের ডাক ! প্রশ্ন তুলছেন অনেকেই ৷

    আরও পড়ুন 
    বন্ধ হল এলিট সিনেমা, ৭৮ বছরের ইতিহাসের সমাপ্তি

    তবে হলের মালিক অমর রায়চৌধুরীর কথায়, ‘শুধু মালঞ্চ নয় ৷ শহরের বহু সিঙ্গল স্ক্রিনের অবস্থা একই ৷ তাও চার-পাঁচ বছর ধরে ক্ষতির মুখ দেখলেও, চালিয়ে যাচ্ছিলাম ৷ কিন্তু এবার একটা সিদ্ধান্তে পৌঁছতেই হচ্ছে ৷ তাই নতুন করে কোনও সিনেমাই নিচ্ছি না ৷ কারণ আমি বুঝেছিলাম, এর কোনও ভবিষ্যত নেই ৷ মাল্টিপ্লেক্সের কাছে হেরে গিয়ে সিঙ্গল স্ক্রিন ধুঁকছে ৷’

    অমরবাবু জানালেন, ‘সিনেমা চললেও, টিকিটের বিক্রি নেই ৷ হল ফাঁকা পড়ে রয়েছে ৷ চার, পাঁচ সপ্তাহ ধরে প্রত্যেকটা শো বাতিল ৷ এভাবে কতদিন চালানো যায় ? এয়ারকন্ডিশনার চললে, লাখ লাখ টাকা ইলেকট্রিক বিল দিতে হয় ৷ কর্মচারীদের বেতন দিতে হয়, কর্পোরেশন ট্যাক্স দিতে হয় ৷ কোথা থেকে আসবে এই টাকা ?’

    কথা বলতে বলতে যেন কেঁদেই ফেলেন অমরবাবু ৷ চোখ জুড়ে তখন শুধুই হতাশা ৷ একদিকে যখন চিজ মাখানো পপকর্নের গন্ধে মোঁ মোঁ করছে মাল্টিপ্লেক্স ৷ তখন মালঞ্চের মতো জনপ্রিয় সিনেমা হল অন্ধকারে ডুবছে ৷

    ৭০ দশকের দিকে পথ চলা শুরু হয়েছিল ‘মালঞ্চ’ সিনেমা হলের ৷ বাংলা সিনেমা তথা ভারতীয় সিনেমার বহু উজ্জ্বল সময়ের সাক্ষী এই সিনেমা হল ৷ তবে সেই উজ্জ্বল সময় এখন অন্ধকারে ৷ গত ১৫ অগাস্ট থেকেই বন্ধ মালঞ্চ সিনেমা ৷ মালঞ্চের পর্দা শেষবারের মতো রঙিন হয়ে উঠেছিল ১৪ অগাস্ট ৷ কমল হাসান অভিনীত ‘বিশ্বরূপম’ ছবিই ফুটে উঠে ছিল মালঞ্চের পর্দায় ৷

    স্ত্রীকে নিয়ে মালঞ্চের শেষ শোয়ে হাজির ছিলেন ব্যাঙ্ক কর্মী সুমন্ত অধিকারী ৷ মালঞ্চ বন্ধ হওয়ার কথা শুনে কিছুটা অবাক, তবে বড্ড বেশি নস্ট্যালজিক ৷ কারণ, এই হলের অন্দরেই তো বহু স্মৃতির আনাগোণা ৷ তবে আজ সবই আবছা ! টিকিট জানলার মতো সবই যেন বন্ধ কপাট ! শুধু পড়ে রয়েছে এক মুঠো হতাশা আর এলিট, মালঞ্চের হাত ধরে শহরের বুকে ছড়িয়ে থাকা সিঙ্গল থিয়েটারে জন্য এক অশনি সংকেত ! এরপর বন্ধের তালিকায় কী আসবে আরও সিনেমা হলের নাম !

    রিপোর্ট: দেবপ্রিয় দত্ত মজুমদার

    First published:

    Tags: Malancha cinema hall shutdown

    পরবর্তী খবর