যৌনদৃশ্যের শ্যুটে পুলিশি হানা! মুম্বইতে ওয়েব সিরিজের আড়ালে তৈরি হচ্ছে পর্নগ্রাফি!

যৌনদৃশ্যের শ্যুটে পুলিশি হানা! মুম্বইতে ওয়েব সিরিজের আড়ালে তৈরি হচ্ছে পর্নগ্রাফি!
photo source collected

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পোঁছায় পুলিশ। সে সময় পর্নগ্রাফির শ্যুটিং চলছিল।

  • Share this:

    #মুম্বই: ওয়েব সিরিজ বানানোর নাম করে রমরমিয়ে চলছে পর্নগ্রাফির ব্যবসা। মুম্বই পুলিশ জানিয়েছে, সুরাট ও তার আশেপাশের এলাকায় বেশ কিছু ফ্ল্যাট ও বাংলো ভাড়া নিয়ে ওয়েব সিরিজ বানানোর নাম করে একদল যুবক পর্ন মুভি বানাচ্ছে। এবং তা চড়া দামে বিদেশের বাজারে বেঁচে দিচ্ছে। ভারতে পর্নগ্রাফি নিশিদ্ধ হলেও বিশ্বের বহু দেশের এই ছবি বানানো হয়। আর ভারতীয় পর্ন ছবির কদর রয়েছে। চড়া দামে বিক্রি হয়। কোটি টাকার খেলা চলে। উঠতি মডেল বা কম বয়সী ছেলে মেয়েদের টাকার লোভ দেখিয়ে এই চক্রে ফাঁসানোর কাজ চলছে অনেক দিন ধরেই।

    সুরাতের ঘটনার দিকে বেশ কয়েকদিন ধরেই নজর ছিল পুলিশের। এবার সেই মতো হানা দিয়ে এক যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ। যুবকের নাম তনভীর। ৪০ বছর বয়সী তনভীর আকিল হাশমিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ওই যুবক সুরাটেই থাকে। এবং ওখানে বসেই চালায় পর্নগ্রাফির ব্যবসা। মুম্বইতেও চোরাই ভাবে এই কাজ করে চলেছে তারা। গোটা একটা র‍্যাকেট আছে এদের। অনেক দিন ধরেই পুলিশ এদের খোঁজ চালাচ্ছিল।

    খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পোঁছায় পুলিশ। সে সময় পর্নগ্রাফির শ্যুটিং চলছিল। হাতে নাতে ধরা হয় ৫ জনকে। এই ঘটনা কয়েকদিন আগেই ঘটে। সেখান থেকে ল্যাপটপ, পেন ড্রাইভ উদ্ধার হয়। তবে এই ব্যবসার জাল আরও বিছিয়ে ছিলে। তল্লাশি করতে গিয়েই সুরাটের তনভীরের নাম সামনে আসে। সেই এই চক্রের প্রধান পান্ডা। সুরাটের বাড়িতে হানা দিতেই সব সামনে আসে পুলিশের। জানা গিয়েছে শুধু সুরাট নয় মুম্বই, বারোদলিতেও এভাবেই বাড়ি ভাড়া নিয়ে ব্যবসা চালাচ্ছে তারা। তনভীর যে বাড়িতে থাকে সেটি বিলাসবহুল। এমনকি ৫০ জন চাকর-বাকর কাজ করে তার বাড়িতে। ওই ব্যক্তির অ্যাকাউন্ট ডিটেইলস খতিয়ে দেখছে পুলিশ। এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত আরও অনেককে খোঁজার চেষ্টা চলছে। বলিউডের বেশ কিছু উঠতি নায়িকা ও মডেলরা জড়িয়ে আছে এই ব্যবসায়।


    Published by:Piya Banerjee
    First published: