Home /News /entertainment /

‘পদ্মাবত’ ছবির মুক্তির বিরোধিতায় বিহারের সিনেমা হলে ভাঙচুর চালাল করণি সেনা !

‘পদ্মাবত’ ছবির মুক্তির বিরোধিতায় বিহারের সিনেমা হলে ভাঙচুর চালাল করণি সেনা !

বন্ধ করা হোক ‘পদ্মাবত’ ছবির মুক্তি ! সুপ্রিম কোর্টে নির্দেশ উপেক্ষা করেই সঞ্জয়লীলা বনশালির ছবি পদ্মাবত নিয়ে লাগাতার বিরোধে মত্ত করণি সেনা ৷

  • Share this:

    #পটনা: বন্ধ করা হোক ‘পদ্মাবত’ ছবির মুক্তি ! সুপ্রিম কোর্টে নির্দেশ উপেক্ষা করেই সঞ্জয়লীলা বনশালির ছবি পদ্মাবত নিয়ে লাগাতার বিরোধে মত্ত করণি সেনা ৷ আর সেই বিরোধিতার আঁচ গিয়ে পড়ল বিহারের মজফরপুরের এক সিনেমা হলে৷ বৃহস্পতিবার করণি সেনার সদস্যরা ভাঙচুর চালাল মজফরপুরের সিনেমা হলে ৷

    পদ্মাবত নিয়ে বিরোধিতা চলছেই ৷ নাম পালটে, সেন্সরের শর্ত মেনেও বনশালির এই ছবি নিয়ে কিছুতেই সন্তুষ্ট হতে পারছে না করণি সেনার সদস্যরা ৷ এমনকী, ছবির মুক্তি আটকানোর জন্য নানা রকম প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে তাঁরা ৷ এই অবস্থায় ছবির মুক্তি নিশ্চিত করার জন্য সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল ছবির প্রযোজক সংস্থা Viacom18 ৷ বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্ট জানিয়ে দিল দেশের সব রাজ্যেই মুক্তি পাবে পদ্মাবত ৷ বৃহস্পতিবার একটি অন্তর্বর্তী নির্দেশে সুপ্রিম কোর্ট কড়া ভাষায় জানিয়েছে, বাগস্বাধীনতা ও শিল্পীর সৃষ্টির স্বাধীনতা হরণ করা যেতে পারে না। তা রক্ষা করতে হবে। শীর্ষ আদালত স্পষ্ট ভাষায় জানিয়েছে, আইনশৃঙ্খলার দোহাই দিয়ে পদ্মাবতের প্রর্দশনী বন্ধ করা যাবে না। বিষয়বস্তু পছন্দ না হলে কেউ সিনেমাটি নাও দেখতে পারেন। কিন্তু, অন্যের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করা যাবে না। আইনশৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্ব নিতে হবে রাজ্যগুলিকেই।

    রায়ে আরও বলা হয়েছে, সিবিএফসি ছাড়পত্র দিলে কোনও সিনেমাকে আটকে রাখা যায় না। এর আগে আইনশৃঙ্খলার দোহাই দিয়ে পদ্মাবতের মুক্তিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল রাজস্থান, হরিয়ানা, গুজরাত ও মধ্যপ্রদেশ। কিন্তু, সেই যুক্তি খারিজ করে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের বিশেষ বেঞ্চ।

    সুপ্রিম কোর্টের এই নির্দেশের পর নতুন করে বিরোধিতা শুরু করেছে করণি সেনা ৷ শুধু রাজস্থানে নয়, গোটা দেশেই দর্শকদের পদ্মাবত না দেখার জন্য রীতিমতো হুঁশিয়ারি জারি করে করণি সেনার সদস্যরা ৷ করণি সেনার মুখপাত্র লোকেন্দ্র সিং জানান, ‘পদ্মাবত মুক্তি পেলে জনতা কার্ফু চালু হবে ৷ কারও যদি ইচ্ছে থাকে এই ছবি দেখার, তাহলে তাঁর এই ছবি না দেখাই উচিত ৷’

    ‘পদ্মাবত’-এর পরিচালক সঞ্জয়লীলা বনশালিকে রীতিমতো কটাক্ষ করে লোকেন্দ্র বলেন, ‘কালো পঞ্জাবির ওপর ভরসা করা যায় ৷ কিন্তু বনশালির ওপর নয় !’

    First published:

    Tags: Bollywood, Padmavat

    পরবর্তী খবর