অতিমারীতে অনাথ শিশুর তথ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় দিতে কেন বারণ করলেন করিনা ?

kareena kapoor khan

তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শিশুদের সম্পর্কে তথ্য ভাগ না করে বরং চাইল্ডলাইনে কল করার জন্য মানুষকে আহ্বান জানিয়েছেন।

  • Share this:

#মুম্বই: অভিনেত্রী করিনা কাপুর খান (Kareena Kapoor Khan) সব সময় সোশ্যাল মিডিয়ায় সক্রিয় থাকেন তাঁর অসাধারণ ব্যক্তিত্বময়ী চরিত্র নিয়ে। তা সে ব্যক্তিগত জীবন হোক কিংবা বিনোদন জগতের নানান টুকিটাকি খবর হোক, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাগ করে নিতে পিছপা হননা অভিনেত্রী। আবার এই অতিমারীর পরিস্থিতিতেও তাঁকে মানুষের মধ্যে সচেতনতার বার্তা প্রচার করতেও দেখা গিয়েছে বিভিন্নভাবে। ঠিক তেমনভাবেই বুধবার আবারও একটি ভিডিও তাঁর Instagram-এ শেয়ার করেছেন করিনা। যাতে তিনি কোভিড ১৯মহামারী দ্বারা আক্রান্ত শিশুদের দুর্দশার কথা তুলে ধরেছেন। তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শিশুদের সম্পর্কে তথ্য ভাগ না করে বরং চাইল্ডলাইনে কল করার জন্য মানুষকে আহ্বান জানিয়েছেন।

তাঁর Instagram স্টোরিতে তিনি ভিডিওটির ক্যাপশন দিয়েছিলেন, "আমাদের দেশের শিশুদের বেঁচে থাকার প্রাথমিক প্রয়োজন মেটাতে এতটা নিষ্ঠুরতার সম্মুখীন হতে হচ্ছে।” পাশাপাশি করিনা আরও লেখেন, “দয়া করে শিশুদের তথ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করবেন না। তার পরিবর্তে সরাসরি চাইল্ড লাইন নম্বর ১০৯৮-এ ফোন করুন যে কোনও তথ্য এবং প্রশ্নের জন্য।” এছাড়া নিজের Instagram প্রোফাইলে ‘ব্রুট ইন্ডিয়া’র (Brut India) একটি ভিডিওর স্ক্রিনশটও শেয়ার করেছেন করিনা। ভিডিওটিতে মূলত জানানো হয়েছে কোভিড ১৯-এর কারণে অনেক শিশুই তাদের বাবা-মাকে হারিয়ে অনাথ হয়েছে। আরও বলা হয়েছে যে অনেক পিতামাতাই খাবার জোগাড় করতে তাঁদের শিশুদের শিশুশ্রম ও শিশু পাচারের দিকে এগিয়ে দিচ্ছেন।

ভিডিওতে এই শিশুদের সাহায্য করার উপায় এবং দত্তক নেওয়ার সঠিক উপায়ও ব্যাখ্যা করা হয়েছে। ক্যাপশনে লেখা ছিল, "কোভিডের সময়ে ভারতীয় শিশুরা বিপদে এবং এই শিশুদের মধ্যে কয়েক হাজার ভারতীয় শিশু কোভিড ১৯ মহামারী চলাকালীন ক্ষুধার্ত হয়ে পড়েছে বা কঠোর শিশুশ্রমের দিকে ঝুঁকছে।" পাশাপাশি শিশুদের সম্পর্কে ভাইরাল হওয়া কোনও কিছু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার না করতে বলেন কারণ এইসব বার্তা তাদের দত্তকের ক্ষেত্রে সাহায্য করবে না বরং বিপদের দিকেই ঠেলে দেবে।

যদিও এই মাসের শুরুতেও করিনা মহামারীর কারণে অনাথ হওয়া শিশুদের নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন। তিনি শিশুদের জন্য যারা কাজ করে, এমন কিছু সংস্থার হেল্পলাইন নম্বরও শেয়ার করেছিলেন। এছাড়াও এপ্রিল মাসে, করিনা করোনার টিকা দেওয়ার গুরুত্ব তুলে ধরে জনপ্রিয় কার্টুন শো টম অ্যান্ড জেরির (Tom & Jerry) একটি ভিডিও ক্লিপও ভাগ করে নিয়েছিলেন।

Published by:Piya Banerjee
First published: