ছবিতে কার হাত ধরে দাঁড়িয়ে? সাত পাকে বাঁধা পড়তে চলেছেন গুরু রানধাওয়া?

ছবিতে কার হাত ধরে দাঁড়িয়ে? সাত পাকে বাঁধা পড়তে চলেছেন গুরু রানধাওয়া?

মুখে উজ্জ্বল হাসি। যেন এক সুদৃঢ় ভরসার হাত ধরে অত্যন্ত খুশি পঞ্জাব তথা দেশের বিখ্যাত গায়ক গুরু রানধাওয়া (Guru Randhawa)। তবে মেয়েটির মুখ দেখা যাচ্ছে না।

মুখে উজ্জ্বল হাসি। যেন এক সুদৃঢ় ভরসার হাত ধরে অত্যন্ত খুশি পঞ্জাব তথা দেশের বিখ্যাত গায়ক গুরু রানধাওয়া (Guru Randhawa)। তবে মেয়েটির মুখ দেখা যাচ্ছে না।

  • Share this:

#মুম্বই: মুখে উজ্জ্বল হাসি। যেন এক সুদৃঢ় ভরসার হাত ধরে অত্যন্ত খুশি পঞ্জাব তথা দেশের বিখ্যাত গায়ক গুরু রানধাওয়া (Guru Randhawa)। তবে মেয়েটির মুখ দেখা যাচ্ছে না। সম্প্রতি নিজের ইনস্টাগ্রামে (Instagram) এমনই একটি ছবি পোস্ট করেছেন গুরু। আর এর পর থেকেই জল্পনা জারি। একের পর এক প্রশ্নে ফ্যানেদের কৌতূহল তুঙ্গে। তা হলে কি শেষমেশ বিয়ে করতে চলেছেন গুরু রানধাওয়া?

ট্র্যাডিশনাল লুকে ছবিতে দু'জনকেই ভারি মিষ্টি লাগছে। ছবিটি পোস্ট করার পর ক্যাপশনে রানধাওয়া লেখেন, নিউ ইয়ার, নিউ বিগিনিং। ইতিমধ্যেই পোস্টে একের পর এক লাইক আর কমেন্টের ভিড়। আর এই জল্পনার আগুনে ঘি ঢেলেছেন বলি-পাড়ার সেলেবরাও। বলিউড ও পঞ্জাবের বেশ কয়েকজন সেলেব রানধাওয়ার পোস্টে কমেন্ট করে তাঁকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। গুরু রানধাওয়ার পোস্টে নোরা ফতেহি (Nora Fatehi) লিখেছেন- কংগ্র্যাচুলেশন বাবা। অরবিন্দর খায়রা (Arvinder Khaira) লিখেছেন- মুবারকাঁ পাজি। গুরুর বিয়ের কথা শুনে অনেকে আবার বিস্ময় প্রকাশ করেছেন। কেউ আবার মেয়েটি কে, তা জানার দীর্ঘ প্রচেষ্টা চালিয়েছেন। তাই কমেন্ট বক্সে জমেছে প্রশ্নের পাহাড়।

প্রসঙ্গত, দিন কয়েক আগেই কোভিড বিধি লঙ্ঘণের জন্য সংবাদ শিরোনামে উঠে আসে গুরু রানধাওয়ার নাম। শোনা যায়, মুম্বইর এক ক্লাবে গিয়ে কোভিড বিধি লঙ্ঘণ করেছেন তিনি। এ নিয়ে বিতর্কের মুখেও পড়তে হয় তাঁকে। তবে, পরে একটি বিবৃতি জারি করে ক্ষমা চেয়ে নেন তিনি। জানান, এই অনিচ্ছাকৃত ঘটনার জন্য অত্যন্ত অনুতপ্ত তিনি।

গুরু রানধাওয়ার অনুপস্থিতিতে তাঁর ম্যানেজমেন্ট এই বিবৃতি জারি করে। সংশ্লিষ্ট বিবৃতিতে জানানো হয়, দিল্লিতে ফেরার আগের দিন রাতে ঘনিষ্ঠ কয়েকজনের সঙ্গে ডিনারে গিয়েছিলেন গুরু রানধাওয়া। তবে রাতের ঘটনার জন্য অত্যন্ত অনুতপ্ত তিনি। তা ছাড়া স্থানীয় প্রশাসনের সিদ্ধান্ত, কোভিড বিধি তথা নাইট কারফিউ সম্পর্কে সচেতন ছিলেন না তিনি। তাই এই ঘটনা ঘটেছে। তবে ভবিষ্যতে আর এ ধরনের ঘটনা ঘটবে না। প্রশাসনের সমস্ত আচরণ বিধি মেনে চলবেন তিনি। এই ঘটনার জন্য সংক্রমণের কথা মাথায় রেখে যদি কোনও আগাম পদক্ষেপ নিতে হয়, তা-ও নেওয়া হবে।

Published by:Akash Misra
First published:

লেটেস্ট খবর