• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • GOSSIP MAMATA SAYS CENTRAL GOVERNMENT SHOULD GIVE 10 THOUSAND TO EVERY UNORGANIZED SECTORS PEOPLES ACCOUNT BEFORE EXTEND LOCKDOWN ED

লকডাউন আরও লম্বা চললে কেন্দ্রের উচিত সকলের অ্যাকাউন্টে ১০ হাজার টাকা দেওয়া: মমতা

এমন অবস্থায় সবথেকে বেশি সমস্যায় দিন আনি দিন খাই মানুষ অর্থাৎ অসংগঠিত ক্ষেত্রের শ্রমিকরা ৷

এমন অবস্থায় সবথেকে বেশি সমস্যায় দিন আনি দিন খাই মানুষ অর্থাৎ অসংগঠিত ক্ষেত্রের শ্রমিকরা ৷

  • Share this:

    #কলকাতা: করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে এক মাসেরও বেশি সময় ধরে চলছে লকডাউন ৷ বন্ধ সমস্ত কাজকর্ম, থমকে অর্থনীতি ৷ এমন অবস্থায় সবথেকে বেশি সমস্যায় দিন আনি দিন খাই মানুষ অর্থাৎ অসংগঠিত ক্ষেত্রের শ্রমিকরা ৷ এই সব শ্রমিকদের কথা ভেবেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এদের কেন্দ্রের কাছে প্রত্যেকের অ্যাকাউন্টে ১০ হাজার টাকা করে দেওয়ার আর্জি জানালেন ৷

    সোমবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানো প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী বলেন,‘লকডাউন বাড়ানো কেন্দ্রের ব্যাপার ৷ রাজ্য ২১ মে অবধি লকডাউনের পক্ষপাতী। তবে কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দিতে হবে।’ একইসঙ্গে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে এদিন ক্ষোভও উগড়ে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী ৷ তাঁর অভিযোগ রাজ্যের সঙ্গে কথা না বলেই একের পর এক নির্দেশিকা জারি করছে কেন্দ্র ৷

    লকডাউনে রোজগার বন্ধ অসংগঠিত ক্ষেত্রের শ্রমিকদের ৷ এদিন সেই প্রসঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘কোভিডের সঙ্গে লড়তেও হবে, আবার লোকের পেটে ভাতও দিতে হবে ৷ কেন্দ্রের উচিত এইসব ক্ষেত্রের মানুষদের অ্যাকাউন্টে ১০ হাজার টাকা করে দেওয়া৷ ১০০ দিনের কাজ করা শ্রমিক কাজ না পেলে খাবে কিভাবে?’

    এখানেই শেষ নয়, কেন্দ্রের উদ্দেশে তিনি ক্ষোভ উগরে বলেন, ‘কেন্দ্রের বক্তব্যে অস্পষ্টতা রয়েছে। কেন্দ্র একদিকে বলছে, লকডাউন ভালোভাবে মানতে হবে। আবার নির্দেশিকায় বলছে, কিছুক্ষেত্রে দোকানও খুলতে হবে। দোকান খুললে লোকে ভিড় জমাবে তাহলে লকডাউন মানা হবে কিভাবে! কেন্দ্রের বক্তব্যে তো কোনও স্পষ্টতা নেই। এর ফলে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে।’

    Published by:Elina Datta
    First published: