• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • DEEPIKA PADUKONES FATHER PRAKASH PADUKONE ADMITTED IN HOSPITAL FOR COVID 19 TREATMENT RM

করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি দীপিকার বাবা প্রকাশ পাড়ুকোন, কোভিড পজিটিভ মা, বোন-ও

করোনা আক্রান্ত দীপিকা পাড়ুকোনের বাবা তথা ভারতীয় ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় প্রকাশ পাড়ুকোন। বেঙ্গালুরুর একটি হাসপাতালে তিনি চিকিৎসাধীন

করোনা আক্রান্ত দীপিকা পাড়ুকোনের বাবা তথা ভারতীয় ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় প্রকাশ পাড়ুকোন। বেঙ্গালুরুর একটি হাসপাতালে তিনি চিকিৎসাধীন

  • Share this:

    #মুম্বই:  করোনা আক্রান্ত দীপিকা পাড়ুকোনের বাবা তথা ভারতীয় ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় প্রকাশ পাড়ুকোন। বেঙ্গালুরুর একটি হাসপাতালে তিনি চিকিৎসাধীন। করোনা সংক্রমিত দীপিকার মা উজালা পাড়ুকোন ও বোন অনিশাও। জ্বর নিয়ে গত শনিবার হাসপাতালে ভর্তি হন প্রকাশ পাড়ুকোন, বর্তমানে তাঁর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল, জানা গিয়েছে, চলতি সপ্তাহেই হয়তো তাঁকে হাসপাতাল থেকে ছাড়া হতে পারে।

    পাড়ুকোন পরিবারের ঘনিষ্ঠ বিমল কুমার জানান, '' ১০ দিন আগে প্রকাশ পাড়ুকোন, স্ত্রী উজালা ও ছোট মেয়ে অনিশার মধ্যে করোনার কিছু উপসর্গ দেখা যায়। পরীক্ষা করালে রিপোর্ট কোভিড পজিটিভ আসে। এরপর তিনজনেই বাড়িতে হোম আইসোলেশনে ছিলেন। কিন্তু এক সপ্তাহ পরও প্রকাশের জ্বর না কমায় তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে তিনি অনেকটাই সুস্থ, হয়তো আর ২-৩ দিনের মধ্যেই ছেড়ে দেবে। উজালা ও অনিশা বাড়িতেই আইসোলেশনে আছেন।''

    অন্যদিকে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের থাবায় যখন দিশেহারা গোটা দেশ, তখন আর্ত মানুষের পাশে দাঁড়ালেন দীপিকা পাড়ুকোন। নিজের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলে শেয়ার করলেন অতি-প্রয়োজনীয় কিছু নম্বর। তবে অক্সিজেন বা হাসপাতালের বেড নয়, দীপিকা ছড়িয়ে দিলেন মানসিক স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সমস্যা সমাধানের জন্য গুরুত্বপূর্ণ কিছু নম্বর। বলা বাহুল্য, প্রতিটি নম্বরই যথাযথ ভাবে প্রতিপাদিত। তিনি লেখেন, 'আমি এবং আমার পরিবার এই সমস্যার সময়ে ক্রমাগত চেষ্টা করছি ভাল থাকার। এই সময়ে আমরা যেন ভুলে না যাই, আমাদের মানসিক ভাবে ভাল থাকাটাও সমান ভাবে গুরুত্বপূর্ণ। মনে রাখতে হবে, তুমি একা নও, এই কঠিন সময়ে আমরা এক সঙ্গে রয়েছি। এককাট্টা। মনে রাখবে সব সময়, আমাদের সঙ্গে আশা আছে।' এর পর হ্যাশট্যাগ দিয়ে দীপিকা লেখেন #Youarenotalone, @tillfoundation।' এর সঙ্গে সঙ্গেই দীপিকা গোলাপি রঙের ১২টি ভিন্ন ভিন্ন স্লাইডে প্রয়োজনীয় ও গুরুত্বপূর্ণ নম্বর ভাগ করে নেন।

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published: