corona virus btn
corona virus btn
Loading

#DearZindagiReview: আলিয়ার মাস্টারস্ট্রোক, এই ছবি ভালো থাকার পাসওয়ার্ড !

#DearZindagiReview: আলিয়ার মাস্টারস্ট্রোক, এই ছবি ভালো থাকার পাসওয়ার্ড !

গোটা জীবনটা আসলে কী ভালো থাকার খোঁজ করে যাওয়া ? আর তার জন্যই কী ভালো ভালো জিনিসের সান্নিধ্যে আসার চেষ্টা ? সেই

  • Share this:

#কলকাতা: গোটা জীবনটা আসলে কী ভালো থাকার খোঁজ করে যাওয়া ? আর তার জন্যই কী ভালো ভালো জিনিসের সান্নিধ্যে আসার চেষ্টা ? সেই সুন্দর জিনিসকে আঁকড়ে নিয়েই কী এগিয়ে চলা ৷ সেই জিনিস যদি হঠাৎ মাঝ পথে হাত ফসকে যায় ! ব্যস, গেল, গেল, সব গেল? জীবনের কাঁটা যেন থমকেই গেল ? উপরের সব কটি প্রশ্নের উত্তরই যেন একে একে দিয়েছেন পরিচালক গৌরি সিন্ডের দ্বিতীয় ছবি ‘ডিয়ার জিন্দগি’ ৷ যেখানে ভালো থাকাটা আসলে ঠিক কীরকম? কোনও কিছুই যে ‘পারমানেন্ট’ নয়, তাই যেন বার বার হাতুড়ির মতো মাথায় বার বার আঘাত করেছেন গৌরি সিন্ডে ৷ আর সেই হাতুড়িটাই একেবারে শক্তপোক্ত ভাবে গোটা ছবিতে ধরে রেখেছেন আলিয়া ভাট !

ছবিটা কেমন তা বলার আগে, বরং ছবির গল্পটা অল্প করে বলা যাক ৷ সহজ কথায় বলতে গেলে, গৌরি সিন্ডের ‘ডিয়ার জিন্দেগি’ ছবির গল্প এক বাক্যেই শেষ হয়ে যায়৷ বার প্রেমে ধোকা খাওয়া একটি মেয়ে সাইকোলজিস্টের কাছে এসে পুরনো জীবন ফিরে পায় ! কিন্তু গৌরি সিন্ডে ছবিকে এত সহজে তৈরি করেননি ৷ বরং ছবিকে বেঁধেছেন একেবারে মনস্তত্ত্বের দিক থেকে !

‘ডিয়ার জিন্দেগি’ একেবারেই সংলাপ নির্ভর ছবি ৷ যেখানে শুধু কথার ওপর কথা দিয়েই চিত্রনাট্য এগিয়ে চলে ৷ তাই এই ছবির একটাও সংলাপ মিস করা মানে, ছবির কোনও একটা গুরুত্বপুর্ণ পয়েন্ট মিস করে গেলেন ৷ একটু অন্যরকম ভাবে বলতে গেলে এই ছবির সংলাপই ছবির মোদ্দা কথা বলে গিয়েছে প্রত্যেকটি কথোপকথনে ৷ তাই ছবি একটু এগিয়ে যাওয়ার পরেই, এই ছবির দুই মূল চরিত্র কায়রা (আলিয়া ভাট) ও শাহরুখ খান (জাহাঙ্গির) কথোপকথনই বেশিমাত্রায় ছবিতে জায়গা করে নিয়েছে ৷ আর যখনই চরিত্রগুলো স্ক্রিনে একা, তখনই গোটা স্ক্রিন জুড়ে ক্লোজআপ !

গৌরি সিন্ডের ‘ডিয়ার জিন্দেগি’ একেবারেই আলিয়া ভাটের ছবি ৷ শাহরুখ রয়েছেন ৷ তিনি রয়েছেন ভালো ভাবেই ৷ তবে গোটা ছবির মূল শক্তি কিন্তু আলিয়া ভাটই ৷ কায়রা চরিত্রের সঙ্গে তিনি যেন একেবারেই নিজেকে মিলিয়ে ফেলেছেন ৷ আর দর্শক আসনে বসে আপনি বাধ্য কায়রার সঙ্গে নিজেকে মিলিয়ে ফেলতে ৷

শাহরুখ খান এই ছবিতে চিত্রনাট্যের সঙ্গেই নিজেকে মেলে ধরেছেন ৷ তার পরিমিত অভিনয়ই এই ছবি থেকে সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি !

গৌরি সিন্ডে প্রথম ছবি ‘ইংলিশ ভিংলিশ’-এর ফর্মূলাতেই যেন ফেলেছেন ডিয়ার জিন্দেগিকে ৷ আশে-পাশে দেখা সমস্যাকে তুলে ধরেন ছবির পর্দায় ৷ আর শুধু সমস্যা তুলে ধরেই ক্ষান্ত থাকেন না গৌরি ৷ ছবির শেষে রীতিমতো পাসওয়ার্ড রেখে যান সব সমস্যার সমাধানে ৷

‘ডিয়ার জিন্দেগি’র বেলাতেও এরকমই করলেন গৌরি ৷ সিনেমা হল থেকে বেরিয়ে কায়রার সমস্যাকে ভুলে যাবেন ৷ মনে থাকবে শুধুই গৌরির শেখানো সমাধানের পথ ৷

First published: November 25, 2016, 7:59 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर