সতর্কতা প্রশাসনিক স্তরে, জেগে থাকবেন তিনিও, ঘাটালবাসীকে আশ্বস্ত করে ভিডিয়োবার্তা দেবের

দেব, ছবি-ফেসবুক

ঘূর্ণিঝড়ের সময় কী করবেন, কী করা ঠিক নয়, এই নিয়ে সতর্ক করেছেন দেব ৷ তাঁর কথায়, ‘ঘরের বাইরে থাকবেন না ৷ কোনও গাছ বা বিপজ্জনক বাড়ির নীচেও আশ্রয় নেবেন না৷’

  • Share this:

    অতিমারির দ্বিতীয় ঢেউয়ের মধ্যেই দোরগোড়ায় ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’ ৷ এই কঠিন সময়ে ঘাটালবাসীর পাশে আছেন দেব ৷ মঙ্গলবার একটি ভিডিয়ো বার্তায় সোশ্যাল মিডিয়ায় একথা ঘোষণা করলেন অভিনেতা-সাংসদ ৷

    ঘূর্ণিঝড়ের সময় কী করবেন, কী করা ঠিক নয়, এই নিয়ে সতর্ক করেছেন দেব ৷ তাঁর কথায়, ‘ঘরের বাইরে থাকবেন না ৷ কোনও গাছ বা বিপজ্জনক বাড়ির নীচেও আশ্রয় নেবেন না৷’ বৈদ্যুতিন যন্ত্রপাতির থেকেও দূরে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি ৷ মোবাইলে যথেষ্ট চার্জ দিয়ে রাখা, পাম্প চালিয়ে জল তুলে রাখা, হাতের কাছে দেশলাই, টর্চ রাখার মতো জরুরি কথাগুলিও ঘরের লোকের মতো মনে করিয়ে দিয়েছেন তিনি ৷

    বিপর্যয় হলেও প্রশাসন যে পরিস্থিতি সামলাতে প্রস্তুত, সে আশ্বাসও দিয়েছেন তিনি ৷ জানিয়েছেন, মেদিনীপুর শহর এবং ঘাটালে পৌঁছে গিয়েছে এনডিআরএফ এবং এসডিআরএফ-এর দু’টি করে দল ৷ পাশাপাশি, বিপর্যয় মোকাবিলায় সতর্ক আছে পূর্ত দফতর, বন দফতর এবং সেচ দফতরও ৷ ঘাটালের প্রতি ব্লকে তৈরি হয়েছে ‘ফ্লাড আইসোলেশন সেন্টার’৷ সেখানে কোভিড ও নন কোভিড ওয়ার্ডের বন্দোবস্ত আছে ৷ মাস্ক ও অন্যান্য কোভিডসুরক্ষার সঙ্গে ব্যবস্থা থাকবে খাবারের ৷

    সব ব্যবস্থার পাশাপাশি তিনি নিজেও বিনিদ্র রজনী কাটাবেন বিপর্যয়ের আশঙ্কায় জানিয়েছেন তারকা সাংসদ ৷ যে কোনও প্রয়োজনে ঘাটালবাসী তাঁকে পাশে পাবেন, আশ্বাস নায়কের ৷

    কিন্তু শুধু প্রশাসন বা সরকার একা কোনও বিপর্যয় পাড়ি দিতে পারে না ৷ সে কথাও বলেছেন দেব ৷ তাই তাঁর আবেদন, যাঁদের পাকা বাড়ি আছে, তাঁরা যেন দরকারে গৃহহীন আর্তদের অন্তত এক রাতের জন্যেও আশ্রয় দেন ৷

    আবহাওয়া দফতরের খবর, বুধবার সকাল আটটায় ল্যান্ডফল প্রক্রিয়া শুরু করবে এই সাইক্লোন। অবশেষে এগারোটা নাগাদ ওড়িশার ভদ্রকের চাঁদবালি ধামরা বন্দরে  আছড়ে পড়বে এই সাইক্লোন। গোটা প্রক্রিয়াটি চলবে অন্তত  দুইঘণ্টা ধরে। ঘূর্ণিঝড়ের চোখটি ১১টা থেকে ১টা-র মধ্যে বাংলার উপকূলবর্তী অঞ্চলের উপর দিয়েই যাবে। ফলে এর প্রভাবে বাংলার উপকূলবর্তী এলাকা এবং উত্তর ওড়িশায় ব্যাপক দুর্যোগর সম্ভাবনা থাকছে। ঝড়বৃষ্টির কবলে পড়বে দুই মেদিনীপুর, দুই ২৪ পরগণা ছাড়াও বাঁকুড়া পুরুলিয়া। কলকাতাতেও প্রভাব ফেলবে সাইক্লোন ইয়াস। কলকাতায় গতিবেগ থাকবে ৬৫-৮৫ কিলোমিটারের মধ্যে। সাইক্লোনের প্রভাবে আজ থেকেই কলকাতা দুই চব্বিশ পরগণা , মেদিনীপুর, হাওড়া ,হুগলি তে ভারী বৃষ্টি হবে। পুরুলিয়াতেও ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: