Priyanka Chopra: বয়স হচ্ছে, বদলাচ্ছে গড়ন ! বাথটবে স্বামীকে শরীর দেখতে দেন না নগ্ন প্রিয়াঙ্কা

Priyanka Chopra Jonas

বয়সের সঙ্গে সঙ্গে তাঁর শারীরিক কাঠামোতে যে পরিবর্তন ধরা দিচ্ছে, তা নিয়ে তিনি খুব একটা স্বচ্ছন্দ সব সময়ে বোধ করেন না।

  • Share this:

#ওয়াশিংটন: "দেখুন, মিথ্যা আমি বলব না, বলে লাভও নেই! আমাকেও এই বিষয়টা প্রভাবিত করে বইকি! আমি যত বুড়ো হচ্ছি, আমার শরীরের গড়নও সেই মতো বদলে যাচ্ছে, সবার সঙ্গেই যেমনটা হয়ে থাকে আর কী! এই ব্যাপারটা আমাকে মেনে নিতেই হবে। তাই নিজেকে বলি- আচ্ছা, এই বয়সে তাহলে এরকম গড়ন হয়, এই বয়সে তাহলে শরীরটা এরকম দেখতে লাগে! শেষ পর্যন্ত যত্ন তো সেই বর্তমান সময়ের শরীরেরই নিতে হয়, ১০ বা ২০ বছর আগে আমার শরীর যে রকম ছিল, তা নিয়ে ভেবে তো কোনও লাভ নেই", সাম্প্রতিক এক সাক্ষাৎকারে এই কথাগুলো বলেছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া জোনাস (Priyanka Chopra Jonas)।

নায়িকার বলা এই কথাগুলোই বুঝিয়ে দিচ্ছে যে বয়সের সঙ্গে সঙ্গে তাঁর শারীরিক কাঠামোতে যে পরিবর্তন ধরা দিচ্ছে, তা নিয়ে তিনি খুব একটা স্বচ্ছন্দ সব সময়ে বোধ করেন না। "একেকটা দিন তো এরকম হয়েই থাকে যে প্রাণপণ চেষ্টা সত্ত্বেও নিজেকে দেখতে ভালো লাগছে না। এই ব্যাপারটার সঙ্গে বেশ জোর করেই মানিয়ে নিতে হয়। এরকম হলে আমি তখন আর নিজের লুক নিয়ে ভাবি না, এমন কিছু ভাবার চেষ্টা করি যা আমার মন ভালো রাখবে", বলছেন তিনি।

তবে একই সঙ্গে শারীরিক গড়ন নিয়ে সমাজ যে সৌন্দর্যের মানদণ্ড তৈরি করে রেখেছে, তার সঙ্গে লড়াই চালিয়ে যাওয়াটা যে কিছু মাত্রায় হলেও ক্লান্তিকর, সেটাও মেনে নিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা। তিনি বলছেন, "এটার সঙ্গে খাপ খাইয়ে নেওয়া অবশ্যই কঠিন একটা কাজ। এমন হলে ভাবতে হয় যে সবাই কত ভালোবাসেন, ভিতর থেকে সন্তুষ্ট থাকার চেষ্টা করতে হয়"! তিনি নিজেও যে এই মানসিক প্রচেষ্টার মধ্যে দিয়েই নিজেকে ভালো রাখেন, সেটা কবুল করতে পিছ-পা হননি আন্তর্জাতিক এই তারকা।

আর এই ভিতর থেকে সন্তুষ্ট থাকার ব্যাপারটা একমাত্র তখনই হয়, যখন নিজেকে পর্যাপ্ত পরিমাণে সময় দেওয়া যায়। প্রিয়াঙ্কা জানিয়েছেন যে তাঁর ক্ষেত্রে এই নিজস্ব সময় কাটানো হল স্ননের ঘরের সাবান উপচে পড়া বাথটবে নগ্ন শরীর ডুবিয়ে গান শোনা! এই সময়ে তিনি যে ধারেকাছে কাউকে ঘেঁষতে দেন না, এমনকি স্বামী নিক জোনাসকেও (Nick Jonas) নয়, তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা। বয়সের ব্যাপার এখানে নেই, যদি নিকও যোগ দেন, তাহলে তো সেটা আর নিজস্ব সময় থাকে না!

Published by:Piya Banerjee
First published: