World Athletics Day: খেলা ভালবাসলে ক্রীড়াবিদদের নিয়ে তৈরি এই পাঁচ ছবি না দেখলেই নয়!

World Athletics Day: খেলা ভালোবাসলে ক্রীড়াবিদদের নিয়ে তৈরি এই পাঁচ ছবি না দেখলেই নয়!

আজ World Athletics Day তে দেখে নেওয়া যাক এমন কিছু বাণিজ্য ফল ছবি যা নির্মিত হয়েছিল অ্যাথলেটদের জীবনের উপর ভিত্তি করে।

  • Share this:

#মুম্বই: মে মাসের ৭ তারিখে পালিত হয় World Athletics Day। দ্য ইন্টারন্যাশনাল অ্যামেচার অ্যাথলেটিক ফেডারেশন বা IAAF এই দিনটি পালন করে বিভিন্ন খেলায় তরুণ তরুণীদের উৎসাহ দেওয়ার জন্য। যাতে তাঁরা আরও বেশি করে বিভিন্ন ক্রীড়ায় অংশগ্রহণ করেন সেই জন্য। এটি IAAF-এর একটি বিশেষ সামাজিক দায়িত্বের প্রোজেক্ট যার নাম অ্যাথলেটিকস ফর আ বেটার ওয়ার্ল্ড, সেই প্রোজেক্টের অন্তর্গত। প্রথমবার এই দিনটি পালিত হয়েছিল ১৯৯৬ সালে এবং এই ইভেন্ট লঞ্চ করেছিলেন IAAF-এর সভাপতি প্রাইমো নেবিওলো।

আজ World Athletics Day তে দেখে নেওয়া যাক এমন কিছু বাণিজ্য ফল ছবি যা নির্মিত হয়েছিল অ্যাথলেটদের জীবনের উপর ভিত্তি করে।

ভাগ মিলখা ভাগ (Bhaag Milkha Bhaag)

২০১৩ সালে এই হিন্দি ছবি নির্মিত হয়েছিল বিখ্যাত দৌড়বিদ মিলখা সিংয়ের (Milkha Singh) জীবনের উপর ভিত্তি করে। তিনি ফ্লাইং শিখ বা উড়ন্ত শিখ নামেও পরিচিত ছিলেন। কমনওয়েলথ গেমে স্বর্ণপদক পেয়েছিলেন মিলখা। এই চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন ফারহান আখতার (Farhan Akhtar)।

পান সিং তোমর (Paan Singh Tomar)

২০১২ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ছবিটির পরিচালক ছিলেন তিগমাংশু ধুলিয়া (Tigmangshu Dhulia)। মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেন প্রয়াত অভিনেতা ইরফান খান (Irrfan Khan)। পান সিং তোমর ভারতীয় জাতীয় গেমসে সোনার পদক পেয়েছিলেন। পরিস্থিতির শিকার তোমর পরে ডাকাতে পরিণত হন।

চ্যারিয়টস অফ ফায়ার (Chariots of Fire)

১৯৮১ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত এই ছবিটি শুধু যে জনপ্রিয় হয়েছিল তাই নয় এটিকে অ্যাথলেটদের জীবনীমূলক ছবির মধ্যে শ্রেষ্ঠ ছবি বলে গণ্য করা হয়। ১৯২৪ সালে অলিম্পিক্সের সময় দুই অ্যাথলেট এরিক লিডেল ও হ্যারল্ড অ্যাব্রাহামসের জীবন নিয়ে এই ছবি তৈরি হয়েছিল।

আনব্রোকেন (Unbroken)

আমেরিকার অলিম্পিয়ান ও আর্মি অফিসার লুই জ্যাম্পেরিনির জীবন নিয়ে এই ছবি তৈরি হয়েছিল। ছবিটি প্রযোজনা ও পরিচালনা করেছিলেন অভিনেত্রী অ্যাঞ্জেলিনা জোলি (Angelina Jolie)। লরা হিলেনব্র্যান্ডের লেখা একটি বই থেকে এই ছবি তৈরি করা হয়।

দ্য টেরি ফক্স স্টোরি (The Terry Fox Story)

১৯৮৩ সালে এই ছবি মুক্তি পায়। টেরি ফক্স ছিলেন একজন ক্যানসার রোগী ও অ্যামপিউটি। তাঁর একটি পা ছিল না। কিন্তু টেরি ঠিক করেন যে এক পায়েই তিনি ক্যানাডা জুড়ে দৌড়ে বেড়াবেন এবং ক্যানসার রোগীদের জন্য অর্থ সংগ্রহ করবেন।

Published by:Simli Raha
First published: