বন্ধুর শাড়ি, আংটির বদলে রাবার ব্যান্ড, বিয়ের ব্যয় কোভিডে ত্রাণে, দেড়শো টাকায় বিয়ে তারকা যুগলের

নবদম্পতি ভিরাফ ও সালোনি, ছবি-ফেসবুক

অতিমারিতে নজির তৈরি করলেন ভিরাফ পটেল এবং সালোনি খন্না । মুম্বইযের বান্দ্রার এক আদালতে সম্পন্ন হয়েছে তারকা যুগলের বিয়ে ।

  • Share this:

    মুম্বই : বিয়ের খরচের জন্য বরাদ্দ অর্থের বড় অংশ কোভিড ত্রাণে দান করার সিদ্ধান্ত নিয়ে মাত্র দেড়শো টাকায় বিয়ে । অতিমারিতে নজির তৈরি করলেন ভিরাফ পটেল এবং সালোনি খন্না । মুম্বইযের বান্দ্রার এক আদালতে সম্পন্ন হয়েছে তারকা যুগলের বিয়ে ।

    নবদম্পতি সংবাদমাধ্যমকে জানিযেছে, বহু দিন ধরেই তঁরা বিযের পরিকল্পনা করেছিলেন । জমকালো বিযের অনুষ্ঠান নিয়ে ভেবেও ছিলেন অনেক কিছু । কিন্তু এই পরিস্থিতিতে সেই রকম অনুষ্ঠান সম্ভব নয়, বুঝতে পেরেছিলেন দুজনেই । তাই আর অপেক্ষা না করে আদালতেই বাঁধলেন নতুন জীবনের গাঁটছড়া ।

    ছিমছাম বিয়ের অনুষ্ঠানে হজির ছিলেন মাত্র তিন জন বন্ধু । তাঁরাই সাক্ষী দিয়েছেন বিয়েতে । পরে আত্মীয় পরিজনদের সঙ্গে অনলাইনে দেখা করেন তারকা দম্পতি ।

    বিয়েতে আংটির বদলে নববধূর আঙুলে ভিরাফ পরিয়ে দিযেছেন রাবার ব্যান্ড । পরে মজা করে বলেছেন, নতুন কনে যে তাঁকে মারতে আসেনি, এই রক্ষে ! ভিরাফ জানিয়েছেন, এই পরিস্থিতিতে সব দোকানপাট বন্ধ । ফলে ইচ্ছে থাকলেও পছন্দসই গয়না কেনা সম্ভব হয়নি ।

    সাদামাটা বিয়েতে দুজনের পোশাকও ছিল স্নিগ্ধ । দুজনেই পরেছিলেন সাদা রঙের পোশাক । সালোনি পরেছিলেন সাদা শাড়ি, সঙ্গে কেতাদুরস্ত ব্লাউজ । ভিরাফের পরনে ছিল পশ্চিমী ফর্মাল । তবে তাঁদের কারওর পোশাকই নতুন নয় ।  সালোনি পরেছিলেন বন্ধুর শাড়ি । আর এক বন্ধু সাজিয়ে দেন তাঁকে ।  তাঁর শাড়ির সঙ্গে রং মিলিয়ে ভিরাফ খুঁজে নিয়েছেন একটি পুরনো পোশাক । বিয়ের পরে ফোটোসেশনে ধরা পড়েছে তাঁদের অন্তরঙ্গ শরীরী ভাষা ।

    বিজ্ঞাপন ও ধারাবাহিকের জনপ্রিয মুখ ভিরাফের সঙ্গে সালোনির আলাপ দু বছর আগে, একটি অনলাইন শো-এ । আলাপের সঙ্গে সঙ্গে বন্ধুত্ব এবং বন্ধুত্ব থেকে প্রেম । ফেব্রুয়ারির কুড়ি তারিখ সম্পন্ন হয় বাগদান । বিয়ের দিন ঠিক হয় মে মাসে । কিন্তু এপ্রিলে পাত্র পাত্রী দুজনেই করোনাআক্রান্ত হন । সংক্রমিত হন সালোনির বাবা মা-ও। ফলে খারিজ হয়ে যায় বিয়ের পরিকল্পনা । শেষে দুই পরিবারের অভিভাবকরা ভিডিয়ো কলে রেজিস্ট্রি বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন ।

    খুব অল্প সমযের মধ্যে সব কিছু ঠিক করা হয় । সালোনির শখ ছিল একটা আঁটির. সেটা না পেযে মনখারাপ হযেছে। কিন্তু জানিয়েছেন ভিরাফ বোঝেন কী করে স্ত্রীর মুখে হাসি ফোটাতে হয় । আত্মীয় পরিজনদের ছাড়া বিয়েতে প্রথমে মনমরা ছিলেন দুজনেই । কিন্তু পরে মানিয়ে নিয়েছেন পরিস্থিতির সঙ্গে ।

    ‘কিসমত’, ‘নামকরণ’, ‘লাল ইশক’-এর মতো জনপ্রিয় ধারাবাহিকের অভিনেতা ভিরাফ কজ করেছেন দুটি ছবিতেও । অন্যদিকে কিংফিশারের প্রাক্তন কর্মী সালোনি একজন প্রথমসারির মডেল । এই তারকাজুটি ঠিক করেছেন তাঁদের বিয়ের জন্য বরাদ্দ খরচের বড় অংশ তাঁরা স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা বা অন্য কোনও মাধ্যমে দান করবেন কোভিড ত্রাণে ।

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: