বিনোদন

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

সুশান্তের শেষকৃত্যে কৃতি শ্যাননের সঙ্গে কথা হয়েছিল, মুখ খুললেন নায়কের বাবা কেকে সিং

সুশান্তের শেষকৃত্যে কৃতি শ্যাননের সঙ্গে কথা হয়েছিল, মুখ খুললেন নায়কের বাবা কেকে সিং

‘রবতা’র শ্যুটিং চলাকালীন কৃতির সঙ্গে সুশান্তের বিশেষ সম্পর্কের কথা সকলেই জানেন । নিন্দুকরা বলেন, এই কারণেই অঙ্কিতার সঙ্গে বিচ্ছেদটা সম্ভবপর হয়েছিল ।

  • Share this:

#মুম্বই: একমাত্র ছেলের মৃত্যু শোক তাঁকে যেন পাথর করে দিয়েছিল । এ ক’দিন শুধুই ছেলের ছবিটার সামনে বসে চোখের জল ফেলে গিয়েছেন তিনি । আবার নিজের সমস্ত দায়িত্ব-কর্তব্যও পালন করতেও ভোলেননি । আর হতভাগ্য পিতা হয়তো নিজের মনের মধ্যেও সেই উত্তর খুঁজে গিয়েছেন নিরন্তর, কেন এমন করল ছেলেটা ?

সুশান্তের মৃত্যুর ১৩ দিন কেটে গিয়েছে । তাঁর আত্মার শান্তি কামনায় রীতি মেনে সমস্ত শ্রাদ্ধশান্তিও সমাপ্ত । সুশান্তের পটনার বাড়িতেই আয়োজন করা হয়েছিল তাঁর স্মরণসভার । সেখানেও ছেলের ছবির সামনে স্থির হয়ে বসে থাকতে দেখা গিয়েছিল অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মী কেকে সিং’কে । অবশেষে নীরবতা ভাঙলেন সুশান্ত সিং রাজপুতের বাবা ।

শুক্রবারই প্রথম সংবাদ মাধ্যমের সামনে মুখ খোলেন তিনি । সুশান্ত-অঙ্কিতার সম্পর্ক, প্রেম, বিয়ের পরিকল্পনা সবটাই জানান । তবে সেই সম্পর্ক টেকেনি । ‘দিল বেচারা’ মুক্তির পর ২০২১-এর প্রথম দিকেই রিয়ার সঙ্গে বিয়ের কথা চলছিল সুশান্তের । সে কথাও বলেন তিনি ।

এ বার মুখ খুললেন সুশান্তের এক সময়ের ঘনিষ্ঠ বান্ধবী কৃতি শ্যাননকে নিয়ে । ‘রবতা’র শ্যুটিং চলাকালীন কৃতির সঙ্গে সুশান্তের বিশেষ সম্পর্কের কথা সকলেই জানেন । নিন্দুকরা বলেন, এই কারণেই অঙ্কিতার সঙ্গে বিচ্ছেদটা সম্ভবপর হয়েছিল । পরে অবশ্য সেই সম্পর্কেও ছেদ পড়ে ।

এ দিন সুশান্তের বাবা জানান, ১৫ জুন সুশান্তের শেষকৃত্যের সময় একমাত্র কৃতির সঙ্গেই কথা হয়েছিল তাঁর । তিনি বলেন, ‘‘অনেকেই তো এসেছিল । সবাইকে অত মনে নেই । তবে একমাত্র কৃতি শ্যাননই এগিয়ে এসেছিলেন কথা বলতে । আমার পাশে বসে অনেক কথাই বলছিলেন । খুব স্মার্ট মেয়েটি । আমি কোনও কথা বলার অবস্থায় ছিলাম না । উনি আমাকে বলছিলেন, সুশান্ত খুব ভাল একজন মানুষ ছিলেন ।’’

সুশান্তের মৃত্যুর পর কৃতির আবেগঘন পোস্ট নাড়া দিয়ে গিয়েছিল নেটিজেনদের । প্রিয় সুশ’কে নিয়ে নায়িকা লিখেছিলেন, ‘‘তোমার প্রখর মস্তিষ্কই তোমার বন্ধু, আবার তোমার সবচেয়ে বড় শত্রুও । ..... আমার হৃদয়ের অর্ধেকটা নিয়ে তুমি চলে গেলে । আর বাকি অর্ধেকটায় তুমি সারাজীবন বেঁচে থাকবে ।’’

 
View this post on Instagram
 

There are a lot of thoughts crossing my mind.. A LOT! But for now this is all i wanna say!

A post shared by Kriti (@kritisanon) on

তবে সুশান্তের শেষকৃত্যের সময় পাপারাৎজিদের আচরণে ক্ষুব্ধ হয়েছিলেন কৃতি । বেশ কিছু সাংবাদিক তাঁকে কাঁচ নামানোর জন্য অনুরোধ করেছিলেন । এ রকম শোকের মুহূর্তে এ ভাবে অস্বস্তিতে ফেলার জন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় সাংবাদিকদের এক হাত নেন নায়িকা ।

Published by: Simli Raha
First published: June 27, 2020, 1:31 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर