Sonu Sood: কুর্নিশ! এ বার গোটা গ্রামের মুখে দু’বেলা অন্ন তুলে দেওয়ার দায়িত্ব নিলেন সোনু সুদ

Sonu Sood: কুর্নিশ! এ বার গোটা গ্রামের মুখে দু’বেলা অন্ন তুলে দেওয়ার দায়িত্ব নিলেন সোনু সুদ

গোটা গ্রামের দায়িত্ব নিলেন সোনু সুদ । ছবি- ইনস্টাগ্রাম ।

লকডাউনের পর থেকে কাজ নেই গ্রামের মানুষদের হাতে । তাই মধ্যপ্রদেশের মালওয়া অঞ্চলের প্রত্যন্ত গ্রাম নিমাচের সমস্ত বাসিন্দাদের দু-বেলা পেট পুরে খাওয়ানোর দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিয়েছেন সোনু সুদ (sonu Sood) ।

  • Share this:

    #মুম্বই: গত বছর থেকে এখনও পর্যন্ত এক ও একমাত্র বাস্তব হিরো বলিটাউনের অভিনেতা সোনু সুদ (Sonu Sood)! লকডাউন (Lockdown)-এ তিনি নিঃস্বার্থভাবে পরিযায়ী শ্রমিক (Migrant Labour)-দের পাশে দাঁড়িয়েছেন। বিশেষ গাড়ি, বাসের ব্যবস্থা করে শ্রমিকদের পৌঁছে দিয়েছেন নিজ-নিজ বাড়িতে। এখানেই শেষ নয়! দেশের যে-কোনও প্রান্তে যখনই কেউ বিপদে পড়েছেন, সোনুকে একবার জানালেই হল... সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন 'দাবাং' স্টার। লকডাউনে বহু মানুষ কর্মহারা হয়েছেন। সোনু তাঁদের সাহায্য করেছেন নতুনভাবে জীবন শুরু করতে। অসহায়দের চিকিৎসা করিয়েছেন। পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে পৌঁছানো থেকে শুরু করে, বেকারদের কর্মসংস্থান করা, কারও অনলাইন ক্লাসের ব্যবস্থা করা, কারও বাড়িতে ট্রাক্টর পৌঁছে দেওয়া, কাউকে আবার চিকিৎসার খরচ দেওয়া.... মানুষের কাছে যেন ঈশ্বরের দূত হয়ে এসেছিলেন সোনু সুদ । এই কাজ করতে গিয়ে তিনি নিজেও করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন । কিন্তু দমে যাননি । মারণ রোগকে হারিয়ে ফের নতুন উদ্যমে ফিরে এসেছেন ।

    View this post on Instagram

    A post shared by Sonu Sood (@sonu_sood)

    এ বার সোনু গোটা গ্রামের ‘মসিহা’ হয়ে উঠলেন । লকডাউনের পর থেকে কাজ নেই গ্রামের মানুষদের হাতে । তাই মধ্যপ্রদেশের মালওয়া অঞ্চলের প্রত্যন্ত গ্রাম নিমাচের সমস্ত বাসিন্দাদের দু-বেলা পেট পুরে খাওয়ানোর দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিয়েছেন তিনি। সোনু নিজে একটি নাচের রিয়্যালিটি শো’য়ের বিচারক । ডান্স দিওয়ানে (Dance Deewane)-র উদয় নামের এক প্রতিযোগী একবার সোনুকে জানান তাঁদের গ্রামের মানুষদের দুরাবস্থার কথা। মধ্যপ্রদেশ সরকার করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে লকডাউন ঘোষণা করেছে । আগামী ৭ মে পর্যন্ত প্রাথমিক ভাবে লকডাউন চলার কথা । দীর্ঘ দিন লকডাউনের কারণে সেখানকার দিনমজুর পরিবারগুলি দু’বেলা খেতে পারছে না । উদয় নিজেও দিনমজুর । একটি চিঠিতে সোনুকে গোটা পরিস্থিতির কথা জানিয়েছিলেন উদয় ।

    View this post on Instagram

    A post shared by Sonu Sood (@sonu_sood)

    আর তারপরেই আর্তের ডাকে সাড়া দিয়ে তাঁদের দায়িত্ব নিয়ে নেন সোনু । উদয়কে তিনি কথা দেন, তাঁদের গ্রামে যতদিনই লকডাউন চলুক না কেন, ২ মাস, ৬ মাস যতদিন খুশি তা চললেও গ্রামবাসীদের মুখে অন্ন তুলে দেওয়ার দায়িত্ব তাঁর । সকলের বাড়িতে রেশন পৌঁছে দেবেন তিনি । গ্রামের সকলকে নিশ্চিন্ত থাকার অনুরোধও করেন সোনু ।

    কিছুদিন আগেই সোনুর ফোনের একটি ভিডিও এসেছিল প্রকাশ্যে । কয়েক সেকেন্ডের সেই ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, কী ভাবে মানুষ তাঁর কাছে সাহায্যের জন্য কাতর আবেদন নিয়ে আসছেন । মাত্র কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে ঝড়ের গতি মেসেজ আর কল আসছিল তাঁর ফোনে ।

    Published by:Simli Raha
    First published: