সোনু সুদের নামে খোলা হল মাংসের দোকান! জানার পর নিরামিষাসী অভিনেতার প্রতিক্রিয়া...

ভেজিটেরিয়ান সোনুর নামে মটনের দোকান! জানার পর কী বললেন বলিউড অভিনেতা?

রবিবার বলিউড অভিনেতা সোনু সুদ (Sonu Sood) একটি নিউজ এর প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বলেছেন, তাঁর নামে একটি মটন শপের নামকরণ করা হয়েছে।

  • Share this:

#মুম্বই: একটা মহামারী থমকে দিয়েছে গোটা দেশকে। চারিদিকে অক্সিজেন সঙ্কট, মহামারী সামাল দিতে জেরবার হচ্ছে স্বাস্থ্যবিভাগও। আর এই পরিস্থিতিতে বরাবর মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন বলিউড অভিনেতা সোনু সুদ (Sonu Sood)। তা কখনও পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরানো তো কখনও অসহায় কৃষককে ট্রাক্টর কিনে দেওয়া। এছাড়াও কাজ হারানো মানুষের রোজগারের ব্যবস্থাও করে দিয়েছেন। আর গতবারের মতো এবছরও সমানতালে তিনি মানুষের জন্য নিরলসভাবে কাজ করে চলেছেন। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে যখন বিপর্যস্ত চারিদিক, তখন আবারও ওষুধপত্র, অক্সিজেন কিংবা হাসপাতালে বেডের ব্যবস্থা করেছেন অভিনেতা।

আর এরই মধ্যে সম্প্রতি একটি মজার ঘটনা সামনে এসেছে। যেখানে একজন সোনুর নামে মটনের দোকান খুলেছেন। রবিবার বলিউড অভিনেতা সোনু সুদ একটি নিউজ এর প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বলেছেন, তাঁর নামে একটি মটন শপের নামকরণ করা হয়েছে। যা দক্ষিণ ভারতের একটি নিউজ চ্যানেল সম্প্রচারণ করে। আর তাতে দেখা যাচ্ছে এক ব্যক্তি তেলঙ্গানার করিমনগরে সোনুর নামে একটি মটনের দোকান চালাচ্ছেন। এমনকি দোকানের সামনে ঝুলছে সোনুর বিরাট একটি ছবিও। আর ঘটনাটি সোনুর নজরে আসতেই তিনিও মজার ছলেই হাসির ইমোজি দিয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। সোশ্যাল মিডিয়ায় সোনু লেখেন, 'আমি একজন নিরামিষাশী। আর আমার নামে মটনের দোকান! আমি কি এই ব্যক্তিকে শাক-সব্জি নিয়ে কোনও ব্যবসা শুরু করতে সাহায্য করতে পারি?' আর সোনুর এই প্রতিক্রিয়ার পরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ ভাইরাল হয় পরে পোস্টটি। নেটিজনেরাও এতে হাসির খোরাক পান।

অন্য দিকে সোনু সুদ জুন মাসে অন্ধ্রপ্রদেশে কয়েকটি অক্সিজেন প্ল্যান্ট স্থাপন করবেন বলে সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘোষণা করেন। তিনি বলেন “আমার অক্সিজেন প্ল্যান্টগুলির প্রথম সেট জুন মাসে কুর্নুল সরকারি হাসপাতালে এবং একটি জেলা হাসপাতাল, আত্মকুর, নেলোর, এপি-তে স্থাপন করা হবে বলে খুব আনন্দিত! এর পরে অন্যান্য রাজ্যে আরও অক্সিজেন প্ল্যান্ট স্থাপন করা হবে!" গ্রামীণ ভারতকে সমর্থন করে তিনি সম্প্রতি এই Twitter-এ এই পোস্টটি করেন।

Published by:Pooja Basu
First published: