• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • প্রোফাইল পিক বদলালেন শোয়েব, 'তেরে নাম'-এর সলমনকে দেখল ট্যুইটার!

প্রোফাইল পিক বদলালেন শোয়েব, 'তেরে নাম'-এর সলমনকে দেখল ট্যুইটার!

Shoaib Akhtar Updated His Twitter Profile Pic and Desis are Seeing Tere Naam Salman Khan in it

Shoaib Akhtar Updated His Twitter Profile Pic and Desis are Seeing Tere Naam Salman Khan in it

বলিউড সুপারস্টার সলমন খানের (Salman Khan) ডাই-হার্ড ফ্যান কিংবদন্তি স্পিডস্টার শোয়েব আখতার (Shoaib Akhtar)৷ বাইশ গজ কাঁপানো পাকিস্তানের প্রাক্তন ফাস্টবোলার একবার বলেছিলেন যে, যদি কখনও তাঁর বায়োপিক করা হয়, তাহলে তিনি চাইবেন, সলমনই যেন তাঁর চরিত্রে অভিনয় করেন৷

  • Share this:

    #রাওয়ালপিণ্ডি: বলিউড সুপারস্টার সলমন খানের (Salman Khan) ডাই-হার্ড ফ্যান কিংবদন্তি স্পিডস্টার শোয়েব আখতার (Shoaib Akhtar)৷ বাইশ গজ কাঁপানো পাকিস্তানের প্রাক্তন ফাস্টবোলার একবার বলেছিলেন যে, যদি কখনও তাঁর বায়োপিক করা হয়, তাহলে তিনি চাইবেন, সলমনই যেন তাঁর চরিত্রে অভিনয় করেন৷

    সোশ্যাল মিডিয়ায় মারাত্মক সক্রিয় শোয়েব৷ খেলোয়াড় জীবনে মাঠে যে গতির ঝড় তুলতেন তিনি, এখন সেই ঝড়ই তোলেন বিতর্কিত মন্তব্যে৷ ইউটিউবে তাঁর এক একটা ভিডিও খবরের শিরোনামে চলে আসে৷ তাঁর চ্যানেলে রয়েছে ২.৫ মিলিয়ন সাবস্ক্রাইবার্স৷ ট্যুইটারে তাঁর রয়েছে ৩.৫ মিলিয়ন ফলোয়ার্স৷ খেলা ছাড়ার পরেও শোয়েবের ফ্যানবেসে কোনও ফারাক পড়েনি, উল্টে বেড়েছে৷

    শোয়েব ট্যুইটারে নতুন একটি প্রোফাইল পিকচার আপলোড করেছেন৷ কালো জামা ও কালো সানগ্লাসে একেবারে নায়কের মতোই দেখাচ্ছে রাওয়ালপিণ্ডি এক্সপ্রেসকে৷ শোয়েবের পোশাকের থেকেও নেটাগরিকদের অনেক বেশি নজর কেড়েছে তাঁর হেয়ারস্টাইল৷ ছবিতে দেখা যাচ্ছে শোয়েব মাঝ খানে সিঁথি করে দু'দিক দিয়ে লকসগুলো ঝুলিয়ে দিয়েছেন৷ যা দেখে অনেকেরই মনে হয়েছে শোয়েব নয়, তাঁরা যেন 'তেরে নাম' (Tere Naam)-এর সলমনকে দেখছেন৷  সেরকমই কয়েক'টি ট্যুইট রইল এখানে:

    ২০০৩ সালে সতীশ কৌশিকের পরিচালনায় 'তেরে নাম' বক্স অফিসে ঝড় তুলে দিয়েছিল৷ সলমনের চরিত্রের নাম ছিল 'রাধে'৷ সেখানে সলমনের চুলের স্টাইলের সঙ্গেই শোয়েবের চুলের মিল পাওয়া গেল৷ 'তেরে নাম' মুক্তি পাওয়ার পর সলমনের মতো চুল কাটার হিড়িক পড়ে গিয়েছিল দেশ জুড়ে৷ শোয়েবের ছবি দেখে কারোর মনে হয়েছে যে, 'তেরে নাম'-এর সিকোয়েল দেখছেন তিনি!

    Published by:Subhapam Saha
    First published: