corona virus btn
corona virus btn
Loading

'বেইমান কঙ্গনা, এখন জাতীয়তাবাদের সুড়সুড়ি দিচ্ছে', মুম্বই প্রসঙ্গে বেনজির আক্রমণে শিবসেনা

'বেইমান কঙ্গনা, এখন জাতীয়তাবাদের সুড়সুড়ি দিচ্ছে', মুম্বই প্রসঙ্গে বেনজির আক্রমণে শিবসেনা
কঙ্গনা রানাওয়াত।

বলিউডে নেপোটিজম এবং মাদক চক্র নিয়ে সরব কঙ্গনা মুম্বইকে পাক অধিকৃত কাশ্মীরের সঙ্গে তুলনা করেন।

  • Share this:

#মুম্বই: মুম্বই শব্দটি এসেছে দেবী মুম্বা আইয়ের নাম থেকে। কঙ্গনা রানাওয়াতকে অপমান করেছে তাকেই। নিজেদের মুখপত্র সামনায় লিখল শিবসেনা।

সামনার সম্পাদকীয়তে লেখা হয়েছে, " যারা মুম্বা আই দেবীকে অপমান করেন তাঁরা আসলে বেইমান। এখন কঙ্গনার জাতীয়তাবাদকে হতিয়ার করে খেলা ঘোরানোর চেষ্টা ঠিক না।"

ঘটনার সূত্রপাত দিনয়কয়েক আগে। বলিউডে নেপোটিজম এবং মাদক চক্র নিয়ে সরব কঙ্গনা মুম্বইকে পাক অধিকৃত কাশ্মীরের সঙ্গে তুলনা করেন। মুম্বইবাসীর ভাবাবেগে আঘাত এই মন্তব্য, এই যুক্তিতে প্রতিবাদে মুখর হয় শিবসেনা। শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত কঙ্গনাকে 'হারামখোর' ও বলেন। এই বিতণ্ডায় স্পষ্টই দু'ভাগ হয়ে যায় বলিউড। অনেকেই বলতে থাকেন, কঙ্গনা যেমন মুম্বইকে কদর্য আক্রমণ করছেন, তেমনই সঞ্জয়ের এই মন্তব্যও অত্যন্ত কুৎসিত।মুম্বইয়ের দিকে আঙুল তুলতে সঞ্জয় সপাটে বলেন, কঙ্গনার আর মুম্বই আসার দরকার নেই।

দমবার পাত্রী নন কঙ্গনা। উত্তর ফিরিয়ে তিনিও সরাসরি বলেন, "আমার বাকস্বাধীনতা রয়েছে। যে কোনও প্রান্তে যাওয়ার অধিকারও রয়েছে।" কঙ্গনা একই সঙ্গে জানিয়ে দেন তিনি ৯ সেপ্টেম্বর মুম্বইয়ে পা রাখতে চলেছেন। পাশাপাশি সঞ্জয়কে ক্ষমা চাওয়ার কথা বলা হলে, সঞ্জয় বলেন, আগে মহারাষ্ট্রবাসীর কাছে ক্ষমা চাক কঙ্গনা।

এর মধ্যেই নিরাপত্তার খাতিরে কঙ্গনাকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক গ্রেড ওয়াই নিরাপত্তা দেয়। অর্থাৎ কঙ্গনা এখন থেকে ১১ জন সশস্ত্র নিরাপত্তারক্ষী পাবেন। তার মধ্যে অন্তত দু'জন সেনাকর্মী থাকবেন। বলাই বাহুল্য, দেশের বহু তাবড় ব্যক্তিত্ব এই সুরক্ষা বলয় পান না। অনেকে এই সুরক্ষা কিনে নেন।

রাজনৈতিক মহলের একাংশ তাই বলছে, কঙ্গনাকে সামনে রেখে ঘুঁটি সাজাচ্ছে বিজেপি সরকার। বিহার ভোট এবং মহারাষ্ট্রে হৃত গৌরব পুনরুদ্ধার, এই লক্ষ্যেই এই আগ্রাসন।

কঙ্গনা অবশ্য বাকস্বাধীনতা ও নারীর সম্মানকেই সামনে রেখে লড়ছেন। এও বলেছেন, এখনই রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার কোনও ইচ্ছে নেই তাঁর। আজ ট্যুইটারে কঙ্গনা বলেছেন, "মহারাষ্ট্র আমায় সব দিয়েছে, আমিও মহারাষ্ট্রকে এমন এক মেয়েকে দিয়েছি যে শিবাজীর জন্মভূমিতে নারীর সম্মান ও অস্মিতা রক্ষায় রক্ত দিতে পারে।"

এ দিকে সূত্রের খবর কঙ্গনার বিরুদ্ধে মুখ খোলায় জন্য থ্রেট কল পাচ্ছেন মুম্বইয়ের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখ। সিএনএন নিউজ এইটিন-এর সর্বভারতীয় প্রতিবেদক জানাচ্ছেন কোনও অজানা নম্বর থেকে ফোন করে মোট তিনবার সতর্ক করা হয়েছে অনিল দেশমুখকে, বলা হয়েছে কঙ্গনার বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেওয়ার চেষ্টা না করতে।

Published by: Arka Deb
First published: September 9, 2020, 9:23 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर