Shilpa Shetty: করোনাকালে প্রেম শেখাচ্ছেন শিল্পা, গাইছেন 'করোনা পেয়ার হ্যায়'!

করোনাকালে প্রেম শেখাচ্ছেন শিল্পা, গাইছেন 'করোনা পেয়ার হ্যায়'!

কাচের দেওয়ালের দুই দিকে দাঁড়িয়ে ছবি শেয়ার করেছেন শিল্পা (Shilpa Shetty)। ক্যাপশনে লিখেছেন, 'করোনার সময় প্রেম। করোনা পেয়ার হ্যায়'।

  • Share this:

    #মুম্বই: মে মাসের শুরুতেই গোটা পরিবার করোনা আক্রান্ত হওয়ার কথা শেয়ার করেছিলেন শিল্পা শেট্টি (Shilpa Shetty)। রবিবার ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করলেন কী ভাবে এই করোনার সময় স্বামী রাজ কুন্দ্রার (Raj Kundra) সঙ্গে প্রেম করছেন তিনি। কাচের দেওয়ালের দুই দিকে দাঁড়িয়ে ছবি শেয়ার করেছেন শিল্পা। ক্যাপশনে লিখেছেন, 'করোনার সময় প্রেম। করোনা পেয়ার হ্যায়'। বোঝাই যাচ্ছে, কোয়ারান্টিনের জেরে তাঁদের কোয়ালিটি টাইমে কতটা টান পড়েছে।

    শনিবারই চারিদিকে খারাপ খবরে ভরে যাওয়ার মুহূর্তে খানিক হাল্কা চালের 'খুশি' থাকার ভিডিও শেয়ার করলেন তারকা দম্পতি। রাজ কুন্দ্রা নিজেই ইনস্টাগ্রামে একটি পুরনো ভিডিও শেয়ার করেছেন। সেখানে তিনি লিখেছেন, 'করোনা আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ আমি। তবে আমার মনে হল খানিক আনন্দ ও হাসি ছড়িয়ে দিই চারিদিকে। করোনাকে হারিয়ে তোলার এই একমাত্র উপায় ইতিবাচক মানসিকতা।'

    ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, শিল্পা শেট্টি ও রাজ কুন্দ্রা মজা করছেন একটি লটারি জেতা নিয়ে। কয়েকদিন আগেই শিল্পা নিজে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি দীর্ঘ পোস্টে জানিয়েছিলেন, পরিবারের প্রত্যেকেই করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি লিখেছিলেন, 'পরিবারের কাছে গত ১০ দিন খুবই কষ্টকর। আমার শ্বশুর-শাশুড়িরা করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। শামিসা, ভিয়ান-রাজ, আমার মা এবং শেষ পর্যন্ত রাজ। ওঁরা প্রত্যেকেই চিকিৎসকের পরামর্শে নিজেদের ঘরে আইসোলেশনে রয়েছেন।' শিল্পা জানিয়েছিলেন, তাঁদের বাড়ির দুই কর্মচারীও করোনায় অসুস্থ।

    করোনার খবর দেওয়ার কয়েকদিন আগে অবশ্য শিল্পা সোশ্যাল মিডিয়া থেকে কয়েকদিন বিরতি নেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন। নিজের যোগাসনের একটি ছবি এবং আমেরিকার লেখক অদ্রে লর্ডের লাইন উল্লেখ করে নায়িকা লিখেছিলেন সেই কথা। শিল্পা আরও লিখেছিলেন, 'আমি জানি এই যুদ্ধ সহজ নয় আমাদের কারও কাছেই। কিছুটা সময় নিন। আপনার কিছুটা সময় প্রয়োজন নিজের পায়ে ফের একবার দাঁড়ানোর এবং অন্যকে সাহায্যের হাত বাড়ানোর মানসিকতা তৈরির করার।' কাজের দিক থেকে শিল্পাকে শেষ দেখা গিয়েছিল, 'নিকম্মা' ও 'হাঙ্গামা ২' ছবিতে।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published: