Aamir Khan: আমিরের ইচ্ছে ছিল মদ খেয়ে শট দেবেন ৩ ইডিয়টস-এ, তার পর যা হল জানাচ্ছেন শরমন!

আমিরের ইচ্ছে ছিল মদ খেয়ে শট দেবেন ৩ ইডিয়টস-এ, তার পর যা হল জানাচ্ছেন শরমন!

আমির আইডিয়া দিয়েছিলেন যে সত্যি সত্যি মদ্যপান করে অভিনয় করতে। এতে অভিনয় আরও নিখুঁত হবে বলে তাঁর ধারণা ছিল।

  • Share this:

#মুম্বই: মদ্যপান যে শরীরের ক্ষতি করে সেটা আর কেউ মানুক বা না মানুক, অভিনেতারা অক্ষরে অক্ষরে মেনে চলেন। মাঝেমধ্যে তাঁরা একটু আধটু বেসামাল হয়ে পড়েন ঠিকই তবে শরীর ঠিক রাখতে অনেকেই এই বদ নেশা এড়িয়ে চলেন। আর সেখানে আমির খানের (Aamir Khan) মতো নিষ্ঠাবান অভিনেতা কিনা সহ অভিনেতা শরমন যোশীকে (Sharman Joshi) পরামর্শ দিলেন মদ্যপান করার।

শরমনের কোনও ক্ষতি করার অভিপ্রায় কিন্তু আমিরের ছিল না। আসলে ছবির প্রয়োজনেই এমন কথা বলেছিলেন তিনি। আসল ঘটনায় আসা যাক এবার। সম্প্রতি ৫১ বছরে পা দিলেন আর মাধবন (R Madhavan)। মাধবন, শরমন আর আমির তিনজনে একসঙ্গে ৩ ইডিয়টস (3 Idiots) ছবিতে কাজ করেছিলেন। ২০০৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত সেই ছবি ছিল ব্লকব্লাস্টার। সহ অভিনেতার জন্মদিন উপলক্ষ্যেই ছবির কিছু স্মৃতি মনে পড়ে যায় শরমনের।

ছবিতে একটি দৃশ্য ছিল যেখানে সিঁড়ির উপর বসে নিজেদের জীবন ও আগামী দিনের স্বপ্ন নিয়ে কথা বলতে দেখা যায় ফারহান, র‍্যানচো আর রাজু রস্তগিকে। এখানে তিন বন্ধুই ছিলেন মদ্যপ অবস্থায়। আর এইভাবেই তাঁরা কলেজের অধ্যক্ষ ভাইরাসকে হেনস্থা করেন। শরমন বলেন যে এই দৃশ্য শ্যুট করার আগে আমির আইডিয়া দিয়েছিলেন যে সত্যি সত্যি মদ্যপান করে অভিনয় করতে। এতে অভিনয় আরও নিখুঁত হবে বলে তাঁর ধারণা ছিল। বলিউডে এমনিতেই আমিরের নাম মিস্টার পারফেকশনিস্ট বলে। ছবির শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত প্রতিটি বিষয় নিয়ে ভীষণ খুঁতখুঁতে তিনি।

আমিরের পরামর্শ মেনে দৃশ্যটি শুট করার আগে আমির ও শরমন দু'জনেই অল্প বিস্তর মদ্যপান শুরু করেন। মাধবন বা ম্যাডি পরে আসেন সেটে। মাধবন এমনিতে খুব একটা মদ্যপান করেন না। কিন্তু সে দিন দু'পাত্র পান করেই তিনি বেসামাল হয়ে যান। শরমন বলেন যে এটা একটা ঐতিহাসিক ঘটনা। কারণ ম্যাডি এমনিতেই মদের ধারপাশ দিয়ে যান না। তাই তাঁকে মদ্যপ অবস্থায় দেখা একটা ভাগ্যের ব্যাপার।

শরমনের এখনও মনে আছে যে ছবি মুক্তির পরে পরিচালক রাজকুমার হিরানি (Rajkumar Hirani), তিনি আর মাধবন দক্ষিণ আমেরিকার আরুবা বলে একটি দ্বীপে বেড়াতে গিয়েছিলেন। সেখানে মাধবনের সঙ্গে তাঁর বন্ধুত্ব আরও গভীর হয় বলে জানিয়েছেন তিনি।

Published by:Raima Chakraborty
First published: