• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • নিজেদের চারতলা বিলাসবহুল অফিস কোয়ারেন্টাইনের জন্য ছেড়ে দিলেন শাহরুখ-গৌরি

নিজেদের চারতলা বিলাসবহুল অফিস কোয়ারেন্টাইনের জন্য ছেড়ে দিলেন শাহরুখ-গৌরি

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

এই কোয়ারেন্টাইনে মূলত শিশু, মহিলা এবং বয়স্কদের রাখা হবে।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লিঃ করোনা মোকাবিলায় আর্থিক অনুদানের পাশাপাশি বহু মানুষের মুখে খাবার তুলে দেওয়ার দায়িত্ব নিয়েছিলেন। এবার কোয়ারেন্টাইনের জন্য নিজেদের বিলাসবহুল চারতলা অফিস দিয়ে দিলেন কিং খান। শনিবার ব্রিহান মুম্বই মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনের অফিশিয়াল ট্যুইটার হ্যান্ডেলে এই খবর প্রকাশ করা হয়েছে। সেখানে পুরনিগমের তরফ থেকে এই তারকা দম্পতিকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, এই কোয়ারেন্টাইনে মূলত শিশু, মহিলা এবং বয়স্কদের রাখা হবে।

    করোনা মোকাবিলায় এগিয়ে এসেছে বলিউড। অক্ষয় কুমার, সলমন খান থেকে একাধিক অভিনেতা, অভিনেত্রী সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। সেখানে প্রথম থেকেই চুপ ছিলেন কিং খান। সোশ্যাল মিডিয়ার একাংশ প্রশ্ন তুলতে শুরু করেন বলিউড বাদশাকে নিয়ে। যানতে চাওয়া শুরু হয়, এই বিপর্যয়ে শাহরুখের অনুদান কত? এরপরই নীরবতা ভেঙে বলেন, “চ্যারিটি করতে হলে তা সম্মান আর ডিগনিটির সঙ্গে করা উচিত। কোনও বিশেষ কারণে কিছু কাউকে যদি দিতেই হয়, সেটা সকলকে জানিয়ে দিলে সেই উদ্দেশ্য নষ্ট হয়ে যায়”।

    এরপর অবশ্য শাহরুখের অনুদানের পরিমাণ প্রকাশ্যে আসে। করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় অনেক কিছু প্যাকেজ নিয়ে এগিয়ে এসেছেন তিনি। এগিয়ে এসেছে  তাঁর পরিচালনাধীন রেড চিলিস এন্টারটেইনমেন্ট, কলকাতা নাইট রাইডার্স। একটি বিবৃতি দিয়ে এই দুই সংগঠনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, PM Care ফান্ডে তারা অনুদান দেবে।

    এছাড়া মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে অনুদান দেবে রেড চিলিজ। এছাড়া, এছাড়া কলকাতা নাইট রাইডার্স ও 'মীর ফাউন্ডেশন' (Meer Foundation) মেডিকেল স্টাফদের ৫০ হাজার ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম দেবে। মহারাষ্ট্র ও পশ্চিমবঙ্গে এই সুরক্ষা সরঞ্জাম দেওয়া হবে। এছাড়াও 'এক সাথ' নামের আর একটি সংস্থার সঙ্গে মিলে মীর ফাউন্ডেশন মুম্বইয়ের সাড়ে ৫ হাজার পরিবারকে অন্তত একমাস খাদ্য সরবরাহ করবে। এছাড়া হাসপাতাল ও অন্য পরিবারের জন্য ২ হাজার প্যাকেট খাবার তৈরি করা হবে। তাছাড়া রোটি ফাউন্ডেশনের সঙ্গে মিলে মীর ফাউন্ডেশন ১০ হাজার দুঃস্থ মানুষকে প্রতিদিন খাবার দেবে। এছাড়া দিল্লিতে আরও একটি সংস্থার সঙ্গে মিলে মীর ফাউন্ডেশন মুদিখানা ও অন্য খাদ্য সামগ্রী আড়াই হাজারেরও বেশি দিন মজুর পরিবারকে অন্তত একমাস দেবে। ‌

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: