বিনোদন

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

প্যারালিসিসে শয্যাশায়ী জনপ্রিয় অভিনেত্রী, চিকিৎসার খরচ চালাতে আর্থিক সাহায্যের আবেদন স্বামীর

প্যারালিসিসে শয্যাশায়ী জনপ্রিয় অভিনেত্রী, চিকিৎসার খরচ চালাতে আর্থিক সাহায্যের আবেদন স্বামীর

অভাবে জনপ্রিয় অভিনেত্রী, আর্থিক সাহায্যের আবেদন স্বামীর

  • Share this:

#মুম্বই:  টেলিভিশনের জনপ্রিয় অভিনেত্রী নিশি সিং ভাদলি! 'হিটলার দিদি', 'কুবুল হ্যায়', 'ইশকবাজ', 'তেনালি রামা'-র মতো সুপারহিট সিরিয়ালের চেনা মুখ নিশি দু'বছর ধরে গুরুতর অসুস্থ! গত বছর ফেব্রুয়ারি মাসে স্ট্রোক হওয়ার পর তাঁর শরীরের একটি দিকে প্যারালাইসিস হয়ে যায়। তার পর থেকে বাড়িতেই আবদ্ধ জীবন, স্বাভাবিক হাঁটাচলার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলেন।

গত বছরের শেষের দিকে শারীরিক অবস্থার সামান্য উন্নতি হতে থাকে, আর তখনই চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে ফের আরেকবার স্ট্রোকে আক্রান্ত হন নিশি! একদিকে চিকিৎসা, ওষুধের বিপুল খরচা অন্যদিকে করনা আবহে দীর্ঘ লকডাউনে কর্মজীবন যবুথবু...চরম আর্থিক সংকটের মুখে  নিশির স্বামী অভিনেতা-লেখক সঞ্জয় সিং ভাদলি। বাধ্য হয়েই স্ত্রীর চিকিৎসার খরচ চালাতে আর্থিক সাহায্যের বিনীত আবেদন করেছেন।

সঞ্জয় জানিয়েছেন, '২০১৯-এর ফেব্রুয়ারিতে বাড়িতেই পড়ে যান নিশি। তড়িঘড়ি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়, ৭-৮দিন পর্যন্ত কাউকে চিনতে পারছিলেন না। এরপর আমরা তাঁকে বাড়িতে নিয়ে আসি। ধীরে ধীরে ভাল হচ্ছিলেন, কিন্তু এই বছর রাখির সময় ফের স্ট্রোক হয়। শরীরের বাঁদিকে প্যারালাইসিস হয়ে গিয়েছে, কোনও অনুভূতিই নেই। একা কোনওকিছুই করতে পারেন না!'

দম্পতির দুই সন্তান রয়েছে। বড় ছেলের ১৯ বছর বয়স, দিল্লিতে নিশির বাবা-মায়ের কাছে থাকেন। ১৬ বছরের ছোট মেয়ে তাঁদের সঙ্গেই মুম্বইতে থাকেন। একা ছোট মেয়ের পক্ষে মায়ের দেখভাল করা সম্ভব নয়, তাই সঞ্জয় নিজেই কাজ বন্ধ রেখে স্ত্রীর খেয়াল রাখছেন। করোনাভাইরাসের জেরে এমনিতেই এ'বছরের অনেকটা সময় কোনও কাজ করতে পারেননি, এখন নিশির দেখাশোনা করার জন্য নতুন কোনও কাজের চেষ্টা করতে পারছেন না, তারউপর পাহাড়প্রমাণ খরচা... নিরুপায় হয়েই  আর্থিক সাহয্যের আবেদন জানালেন সঞ্জয়। তিনি বলেন, '' নিশির চিকিৎসার জন্য অনেক টাকার প্রয়োজন। গত ২ বছরে আমরা আমাদের সমস্ত জমানো টাকা শেষ করে ফেলেছি। বাড়িটা পর্যন্ত বন্ধক দেওয়া। আমাদের আর্থিক সাহায্যের ভীষণ প্রয়োজন।''

Published by: Rukmini Mazumder
First published: September 25, 2020, 6:58 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर