শিক্ষিকার ভূমিকায় সারা আলি খান! সেলফি তুলতে আসায় ভক্তকে প্রচণ্ড ধমক দিলেন নায়িকা

শিক্ষিকার ভূমিকায় সারা আলি খান! সেলফি তুলতে আসায় ভক্তকে প্রচণ্ড ধমক দিলেন নায়িকা

শিক্ষিকার ভূমিকায় সারা আলি খান! কোভিডকালে ভক্তকে শেখালেন স্বাস্থ্যবিধির গুরুত্ব!

সারা যেহেতু নিজে মাস্ক পরেছিলেন এবং অন্যকে সচেতন করছিলেন সেটা নেটিজেনদের বেশ মনে ধরছেন।

  • Share this:

#মুম্বই: সম্প্রতি সারা আলি খানকে (Sara Ali Khan) দেখা গেল মুম্বই বিমানবন্দরে। তিনি তাঁর মা অমৃতা সিং (Amrita Singh) ও ভাই ইব্রাহিম আলি খানকে (Ibrahim Ali Khan) নিয়ে মলদ্বীপ বেড়াতে গিয়েছিলেন। ফেরার সময় বিমানবন্দরে তাঁকে লেন্সবন্দী করেন চিত্রগ্রাহকরা।

আর সেখানেই একটি ভিডিও এখন ভাইরাল হয়ে ঘুরছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। সারাকে দেখে তাঁর এক ভক্ত এগিয়ে আসেন এবং সেলফি তুলতে উদ্যত হন। ভক্তের মুখের মাস্ক নেমে এসেছিল থুতনির কাছে। আর এসব দেখে বেজায় চটে যান সারা। সারা নিজে মাস্ক ও ফেসশিল্ড পরেছিলেন। ভক্ত প্রায় তাঁর ঘাড়ের কাছে এসে পড়ায় আঁতকে ওঠেন সারা। তিনি সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার চেষ্টা করছিলেন। তার সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে এটাও বলতে শোনা যায় যে এই ভক্ত যেটা করছেন সেটা ঠিক করছেন না। এই ভাবে স্বাস্থ্যবিধি উড়িয়ে দেওয়া একদমই উচিত হচ্ছে না। সারা যেহেতু নিজে মাস্ক পরেছিলেন এবং অন্যকে সচেতন করছিলেন সেটা নেটিজেনদের বেশ মনে ধরছেন। সারার দায়িত্ববোধ তাঁদের ভালো লেগেছে।

একজন নেটিজেন মন্তব্য করেন যে এই ভাবে শুধুমাত্র একটা সেলফি তোলার জন্য মাস্ক নামিয়ে নেওয়া মোটেই ঠিক হচ্ছে না। এতে এই ব্যক্তি যেমন নিজেকে বিপদে ফেলছেন, সে ভাবেই অন্যদেরও বিপদের দিকে ঠেলে দিচ্ছেন। আরেকজন নেটিজেনও একই সুরে কথা বলেন। তিনি বলেন যে সারার সঙ্গে সেলফি তোলার সুযোগ পরেও পাওয়া যাবে। কিন্তু জীবন একটাই। সেটা গেলে কিন্তু আর ফিরে আসবে না। তাই নিজেকে এবং অন্যদের এই ভাবে দয়া করে বিপদের মুখে ফেলবেন না।

আগামী দিনে সারাকে দেখা যাবে অক্ষয়কুমার (Akshay Kumar) ও ধনুষের (Dhanush) বিপরীতে অতরঙ্গি রে (Atrangi Re) ছবিতে।

তবে ভক্তকে শিক্ষা দিলেও সারা কিন্তু এই করোনার সময়েই বেশ এদিক ওদিক বেরিয়ে আসছেন। মলদ্বীপ গিয়েছেন, গোয়া গিয়েছেন, আবার গুলমার্গও ঘুরে এসেছেন। মুম্বইয়ের অবস্থা খুব একটা ভালো নয়। এমত অবস্থায় তারকাদের মনের সুখে ভ্রমণ এবং সেখান থেকে সুখী সুখী আহ্লাদি মুখ করে ছবি পোস্ট করা নিয়েও সরব হয়েছেন নেটিজেনদের একাংশ। প্রতিবাদ জানিয়েছেন শোভা দে-র (Shobhaa De) মতো লেখিকা এবং নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকিও (nawazuddin siddiqui)।

Published by:Simli Raha
First published:

লেটেস্ট খবর