বিনোদন

corona virus btn
corona virus btn
Loading

তৈমুর নেটিজেনদের নয়নের মণি! বড় ছেলে ইব্রাহিমকে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারে নিষেধ বাবা সইফের!

তৈমুর নেটিজেনদের নয়নের মণি! বড় ছেলে ইব্রাহিমকে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারে নিষেধ বাবা সইফের!

ইব্রাহিমও বড় পর্দায় আত্মপ্রকাশের করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। সারা ইতিমধ্যেই তিনটে ছবি করে ফেলেছেন। সাবলীল অভিনেত্রী হিসেবে বলিউডে নিজের জায়গাও করে নিয়েছেন তিনি।

  • Share this:

#মুম্বই: কিছুদিন আগেই সইফ আলি খান জানিয়েছিলেন যে কন্যা সারার পর এ বার ছেলে ইব্রাহিমও বড় পর্দায় আত্মপ্রকাশের করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। সারা ইতিমধ্যেই তিনটে ছবি করে ফেলেছেন। সাবলীল অভিনেত্রী হিসেবে বলিউডে নিজের জায়গাও করে নিয়েছেন তিনি। সব সময়েই তিনি থাকেন মিডিয়া আর সোশ্যাল মিডিয়ার কেন্দ্রে।

যেমন দিদি, তেমনই ছোট ভাই! সবার মনোযোগ জন্মের পর থেকেই কেড়ে চলেছে পতৌদি পরিবারের এই উত্তরাধিকারী। তবে তৈমুর যে ভাবে সব সময়ে সাংবাদিক আর ফটোগ্রাফারদের নিশানায় থাকেন, ইব্রাহিমকে সে ভাবে সোশ্যাল মিডিয়ায় দেখা যায় না। বলতে গেলে ইব্রাহিমের একার ছবি পাওয়া বেশ দুর্লভ ঘটনা। একমাত্র পারিবারিক কোনও অনুষ্ঠান হলে তবেই ইব্রাহিমের এক-আধটা ঝলক মেলে।

এ বার বোঝা গেল সইফ এটা খুব সচেতন ভাবেই করেছেন। তিনি চেয়েছেন যে ইব্রাহিম মিডিয়া এবং সোশ্যাল মিডিয়া-দুই থেকেই দূরেই থাক। সইফ জানেন বিলক্ষণ- তাঁর ছেলে যেহেতু, তাই ইব্রাহিমের বড় পর্দায় অভিষেক হলেই তাঁর সঙ্গে তুলনা টানা হবে। অন্যান্য তারকা পুত্র বা কন্যাদের সঙ্গে যেমনটা হয়ে থাকে, এ ক্ষেত্রেও তার ব্যতিক্রম হবে না। ইব্রাহিম ধীরে ধীরে তাঁর ব্যক্তিত্ব গড়ে তুলছেন, তাই পাকাপাকি ভাবে পর্দায় আসার আগে তাঁর নিজেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় জাহির করার কোনও প্রয়োজন নেই বলেই মনে করছেন নবাব। জনগণ যত কম ইব্রাহিমকে দেখে, ততই সেটা তাঁর কেরিয়ারের পক্ষে ভালো বলে দাবি করেছেন সইফ। হৃতিক রোশনের  পর্দায় অভিষেকের সঙ্গে তুলনা টেনে সইফ বলেছেন যে বিস্ফোরণ যদি ঘটাতেই হয়, তা হলে ইব্রাহিম সেটা পর্দায় করবে।

তবে তৈমুরকে নিয়ে যে বিশ্রী রকমের ট্রোলিং হয়, সেই বিষয়কে বেশ শান্ত মাথাতেই সামলান সইফ। বড় শহরে ছোট্ট ফ্ল্যাটে দিনের পর দিন থাকতে থাকতে মানুষ বিভ্রান্ত হয়ে পড়ে আর সেই কারণেই তারকা বা তাঁদের ছেলেমেয়েদের উপরে সব হতাশা উগড়ে দেন বলে দাবি সইফের।

Published by: Shubhagata Dey
First published: December 4, 2020, 9:04 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर