corona virus btn
corona virus btn
Loading

জাল প্রেসক্রিপশনে সুশান্তকে নিষিদ্ধ ওষুধ খাওয়াচ্ছিলেন দিদি প্রিয়াঙ্কা সিং, পুলিশে অভিযোগ দায়ের রিয়ার

জাল প্রেসক্রিপশনে সুশান্তকে নিষিদ্ধ ওষুধ খাওয়াচ্ছিলেন দিদি প্রিয়াঙ্কা সিং, পুলিশে অভিযোগ দায়ের রিয়ার

রিয়ার অভিযোগ, নকল প্রেসক্রিপশন বানিয়ে ভাইকে ওষুধ দিয়েছিলেন প্রিয়াঙ্কা সিং এবং সেই নিষিদ্ধ ওষুধ খাওয়ার ৫ দিনের মধ্যেই সুশান্তের মৃত্যু হয়

  • Share this:

#মুম্বই: সুশান্ত সিং রাজপুতের দিদি প্রিয়াঙ্কা সিং-এর বিরুদ্ধে মুম্বই পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করলেন রিয়া চক্রবর্তী। সুশান্তের চর্চিত প্রেমিকার অভিযোগ, নকল প্রেসক্রিপশন বানিয়ে ভাইকে ওষুধ দিয়েছিলেন প্রিয়াঙ্কা এবং সেই নিষিদ্ধ ওষুধ খাওয়ার ৫ দিনের মধ্যেই সুশান্তের মৃত্যু হয়। রিয়ার অভিযোগ, ভুয়ো প্রেসক্রিপশনের মাধ্যমে সুশান্তের মানসিক অবসাদ দূর করার জন্য এমন কিছু ওষুধ দেওয়া হয়েছিল যা বৈধ ভাবে কেনা সম্ভব নয়।

সম্প্রতি প্রকাশ্যে আসে সুশান্তের মৃত্যুর ঠিক ৬ দিন আগে অভিনেতার সঙ্গে তাঁর দিদির হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট। সেখানে দেখা যায়, প্রিয়ঙ্কা তাঁর ভাইকে লিব্রিয়াম, নেক্সিটো এবং লোনাজেপ নামের তিনটি ওষুধ খেতে বলেন। ‘অ্যাংজাইটি অ্যাটাক’-এর জন্যই সুশান্তকে এই ওষুধ দিয়েছিলেন বলে দাবি প্রিয়াঙ্কার। উল্লেখ্য, এই ৩টি ওষুধকে টেলি মেডিসিনস প্র্যাকটিস গাইডলাইনসে ক্ষতিকর এবং নিষিদ্ধ বলে উল্লেখ করা হয়েছে। এই চ্যাটের ভিত্তিতেই পুলিশের কাছে প্রিয়াঙ্কার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন রিয়া চক্রবর্তী। তনি জানান, সুশান্ত আর প্রিয়াঙ্কার মধ্যে যেদিন এই ওষুধ নিয়ে চ্যাট হয়, সেদিনই তিনি সুশান্তের বাড়ি ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন।

সোমবার একটি ৬ পাতার দীর্ঘ অভিযোগনামা পুলিশের কাছে জমা দেন রিয়া চক্রবর্তী! তিনি লিখেছেন, প্রিয়াঙ্কার কথায় সুশান্তকে অন্যায়ভাবে সাইকোট্রপিক ওষুধ দিয়েছিলেন রাম মোনোহর লোহিয়া হাসপাতালের চিকিৎসক তরুণ কুমার। তিনি জানান, IPC 1860, Narcotics Drugs and Psychotropic Drug Act 1985 ও Telemedicine Practice Guidelines 2020 অনুযায়ী প্রিয়াঙ্কা সিং, চিকিৎসক তরুণ কুমার-সহ আরও কয়েকজনের বিরুদ্ধে শীঘ্র FIR দায়ের করা উচিৎ।

রিয়া জানান, নকল প্রেসক্রিপশনে সুশান্তকে দিল্লির রামমনোহর লোহিয়া হাসপাতালের ‘আউট পেশেন্ট ডিপার্টমেন্ট’-এর রোগী বলে উল্লেখ করা হয়। তার মানে, তিনি  চিকিৎসার জন্য ওই দিন সেখানে উপস্থিত ছিলেন। অথচ সেখানে উল্লেখ করা দিন, অর্থাৎ ৮ জুন, সুশান্ত মুম্বইতে ছিলেন।

অন্যদিকে, রবিবারের পর আজ, সোমবার মাদক কাণ্ডে রিয়া চক্রবর্তীকে জেরা করে নারকোটিক্স কন্ট্রোল অ্যান্ড ব্যুরো। এনসিবি সূত্রে জানা যায়, জেরায় ড্রাগস বা মাদক প্রসঙ্গে রিয়ার দাবি, তিনি নিজে কখনও মাদক সেবন করেননি, নিজে কখনও মাদক কেনেননি এবং কখনও মাদকে হাত পর্যন্ত দেননি। জেরায় রিয়া শুধুমাত্র এ'টুকুই স্বীকার করেছেন, বারকয়েক তিনি সুশান্ত সিং রাজপুতের জন্য মাদকের ব্যবস্থা করেন!

সুশান্ত মৃত্যু তদন্ত চলাকালীন মাদকের গন্ধ পান সিবিআই আধিকারিকরা! তারপরই তদন্ত শুরু করে নারকোটিক্স কনট্রোল ব্যুরো বা এনসিবি! ইতিমধ্যেই মাদক চক্রে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার রিয়া চক্রবর্তীর ভাই শৌভিক চক্রবর্তী, সুশান্তের প্রাক্তন হাউজ ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডা ও সুশান্তের রাঁধুনী দীপেশ! এবার এনসিবি-র জেরায় সুশান্ত মৃত্যু মামলার অন্যতম মূল সন্দেহভাজন রিয়া চক্রবর্তী! রবিবার, সোমবারের পর আগামিকাল মঙ্গলবারও রিয়াকে জেরা করবে এনসিবি।

Published by: Rukmini Mazumder
First published: September 7, 2020, 10:23 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर