Saif Kareena second child: তৈমুরের ভাইয়ের কী নাম রাখা হল? যা জানালেন দাদু রণধীর কাপুর

Saif Kareena second child: তৈমুরের ভাইয়ের কী নাম রাখা হল? যা জানালেন দাদু রণধীর কাপুর

২১ ফেব্রুয়ারি পুত্র সন্তানের জন্ম দিলেন করিনা

২১ ফেব্রুয়ারি পুত্র সন্তানের জন্ম দিলেন করিনা

  • Share this:

    #মুম্বই: খান-কাপুর পরিবার খুশিতে নাচছে, পরিবারে এসেছে ছোট্ট অতিথি! দ্বিতীয়বার মা হলেন করিনা! ১৫ তারিখ নাগাদ ডেলিভারির ডেট ছিল, ২১ ফেব্রুয়ারি পুত্র সন্তানের জন্ম দিলেন করিনা! তবে এবার প্রথম থেকেই খুব সতর্ক করিনা আর সৈফ! এক্কেবারে বিরাট-অনুষ্কার পথে হাঁটছেন! সদ্যোজাতর কোনও ছবি এখনও প্রকাশ্যে আসেনি! পাপারাৎজিরা রাতদিন হাসপাতালের বাইরে কাতর চোখে চেয়ে থাকলেও, সবই বৃথা! ছোটে নবাবের এক ঝলকও সামনে আসার জো নেই! চূড়ান্ত গোপনিয়তার বেড়াজাল!

    তৈমুরের নাম নিয়ে বিশাল তর্ক-বিতর্ক হয়েছিল! কেন তুর্কি আক্রমণকারীর নামে ছেলের নামকরণ করেছেন, প্রশ্নের মুখে পড়তে হয় সৈফ-করিনাকে! যদিও তাঁরা স্পষ্ট জানিয়ে দেন, তুর্কি আক্রমণকারীর নামে নয়, তৈমুরের অর্থ হল লোহা! এবার তৈমুরের ভাইয়ের নাম নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু হয়েছে হুড়োহুড়ি! সদ্যোজাতর কী নাম রেখেছেন সৈফ-করিনা? ইতিমধ্যেই শুরু নানা জল্পনা, কত-শত মিম ঘোরাঘুরি করছে নেট দুনিয়ায়! কিন্তু সব গরম কল্পনায় ঠাণ্ডা জল ঢেলে দিয়ে দাদু রণধীর কাপুর জানিয়ে দিলেন, আপাতত সদ্যোজাতর কোনও নাম রাখা হয়নি!

    কিন্তু তৈমুরের ভাই কার মতো দেখলে হল? করিনা না সৈফ? অন্তত এইটুকু জানান...দাদু রনধীর কাপুরের কাছে আবেদন রাখলেন পাপারাৎজি মহল... দাদু তখন নাতিকে দেখতে ব্রিজ ক্যান্ডি হাসপাতালেই যাচ্ছিলেন, মন খুশিতে ডগমগ, তাই আর নিরাশ করলেন না! জানালেন, 'তৈমুরের ভাই হুবহু তৈমুরের মতো দেখতে, একেবারে কার্বন কপি'! রণধীর কাপুর আরও জানান, করিনা আর সদ্যোজাত দুজনেই ভাল আছে, খুশিতে লাফালাফি শুরু করেছেন সৈফ!

    বেশ কয়েক মাস আগে এক সাক্ষাৎকারে করিনা জানিয়েছিলেন, তাঁর মেয়ে পছন্দ! কারণ, তিনি ও করিশ্মা যেভাবে তাঁর মায়ের দেখাশোনা করেন, ছেলেরা অতটা করে না! দিনকয়েক আগে জনৈক এক জ্যোতিষী ভাগ্যগণনা করে জানান যে, করিনার এবার মেয়ে সন্তান হবে৷ এই জ্যোতিষীই ক্যাপ্টেন কোহলি ও অনুষ্কার বিষয় ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন৷ জানিয়েছিলেন যে তাঁদের মেয়ে হবে,এবং সেই মতো মেয়েও হয় বিরুষ্কার৷ তাই সকলে এই জ্যোতিষীর বাণীর উপর অনেকটা ভরসা করেছিলেন৷ কিন্তু শেষপর্যন্ত জ্যোতিষীকে ভুল প্রমাণ করে পুত্রসন্তানেরই মা হলেন বেবো!

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published: