Home /News /entertainment /
প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার অভূতপূর্ব পদক্ষেপ, 'বিট্টু' দেখার পর যা করলেন মনে রাখবে দর্শক

প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার অভূতপূর্ব পদক্ষেপ, 'বিট্টু' দেখার পর যা করলেন মনে রাখবে দর্শক

গুরুতর চোট প্রিয়াঙ্কার Photo : File Photo

গুরুতর চোট প্রিয়াঙ্কার Photo : File Photo

শিশুশিক্ষার জন্য কিছু করাটা দায়িত্ব ও কর্তব্য হওয়া উচিত প্রতিটি মানুষের, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া

  • Share this:

    #মুম্বই: একটি ছোট্ট ছবি অস্কার পুরস্কারের আঙিনায় দাঁড়িয়ে। কিন্তু এই ছবি যে জাদু চাবি হয়ে অজস্র দ্বার খুলে দেবে, সে কথা কে জানত? সিনেমার কাজ শুধু মানুষের চোখ খুুলে দেওয়া নয়। আরও গভীর, আরও সুদূরপ্রসারী কোনও ভাবনা ভাবতে পারলেন কয়েকজন । একতা কপূর, গুণিত মোঙ্গা, তাহিরা কাশ্যপ খুরানা, রুচিকা কপূর শেখ মিলে তৈরি করেছিলেন 'ইন্ডিয়ান উওম্যান রাইজিং'। তাঁরা এবার জোট বাঁধলেন আমেরিকান স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা এডুকেট গার্লস ইউএসএ র সঙ্গে। তাঁদের এক বিরাট কর্মযজ্ঞের সূত্রপাত এই ছবির মাধ্যমেই।

    'বিট্টু'। ছবিটি এখন অস্কার দৌড় প্রতিযোগিতায় সামিল। ছবির মুখ্য ভূমিকায় দুই ছোট্ট মেয়ে রানি ও রেণু কুমারী। হিমালয়ের কোলে বেড়ে ওঠা দুই স্কুলপড়ুয়া। এক বিষম বিপদে পড়ে তারা অদ্ভুত এক ঝুঁকি নেয়। পরিবারও তাদের পাশে দাঁড়ায়নি। এ তো গেল গল্প, সত্যিই যে তারা এখনও শিক্ষার আলো দেখেনি। বাস্তবে তারা নিরক্ষর।

    এই সহাবস্থান যাঁর উদ্যোগে হল, তিনি প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। দীর্ঘদিন হলিউড ছবিতে অভিনয় করার সুবাদে একটা পাকাপাকি জায়গা তৈরি হয়েছে তাঁর। তিনিই এগিয়ে এসে একটা মিশন তৈরি করে দিলেন।

    "এই ছবি এক চরম দারিদ্র্য আর অনিশ্চয়তার কথা বলে। যা আমাদের ব্যর্থতা। এই ছবি শুধু দেখে ভালমন্দ বিচার করার নয়। সমাধান বের করার অস্ত্র হিসেবে কাজ করেছে বিট্টু। দেখার পর থেকে আমি ক্রমাগত ভেবে চলেছি, নারীশক্তির মূল যে শিশুকন্যারা, তাদের কথা কতটুকু ভেবেছি আমরা? এই সহাবস্থানের পর আমরা এগিয়ে যাব ভারতের প্রত্যন্ত গ্রামে, দুর্গম এলাকা, যেখানে শিশুরা শিক্ষা থেকে সম্পূর্ণ বঞ্চিত, সেখানে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার। সিনেমার মাধ্যমে সারা বিশ্ব আমাদের পাশে এসে দাঁড়াক এটাই কাম্য। " জানিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা।

    তিনি আরও বলেছেন, শিশুশিক্ষার জন্য কিছু করাটা দায়িত্ব ও কর্তব্য হওয়া উচিত প্রতিটি মানুষের।

    বিট্টু ছবির পরিচালক করিশমা দেব দুবে জানিয়েছেন, " এই অসাধ্যসাধন ওই দু'টো বাচ্চাই করেছে। আমার ভূমিকা খুবই কম। অস্কার দৌড়ে দোরগোড়ায় পৌঁছনো শুধু নয়। এদের প্রতিভার কদর করা দূরে থাক, প্রতি দিনের সামান্য চাহিদাটুকু মেটাতেই এদের অনিশ্চিত ভবিষ্যতের দিকে ঠেলে দেওয়া হয়। এই ভাবনা বদলের সময় এসেছে। হয়ত এইভাবে প্রথম রাস্তাটা খোলা হল। এর পর আরও দরজা খুলবে।" জানালেন আশাবাদী পরিচালক।

    শর্মিলা মাইতি

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published:

    Tags: Priyanka Chopra

    পরবর্তী খবর