ভারতের সার্জিকাল স্ট্রাইক নিয়ে চুপ কেন আলি জাফর ? : পরেশ রাওয়াল

ভারতের সার্জিকাল স্ট্রাইক নিয়ে চুপ কেন আলি জাফর ? : পরেশ রাওয়াল
  • Share this:

#মুম্বই: ১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় ভারতীয় সিআরপিএফ জওয়ানের কনভয়ে আত্মঘাতী হামলা চালায় জঙ্গিরা! শহিদ হন ৪২জন জওয়ান! এর ঠিক ১২ দিনের মাথায় ২৬ ফেব্রুয়ারি, পুলওয়ামার নৃশংস হামলার বদলা নিল ভারত। নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে হানা দেয় ১২টি মিরাজ-২০০০ যুদ্ধবিমান। বালাকোটে জইশ ঘাঁটি লক্ষ্য করে ফেলা হয় ১০০০ কেজি বোমা, গুঁড়িয়ে দেওয়া হয় একাধিক জঙ্গিঘাঁটি ৷ নিহত প্রায় ৩০০ জঙ্গি! ২৭ ফেব্রুয়ারি পাক মাটিতে ভেঙে পড়ে ভারতের যুদ্ধবিমান মিগ ২১ ৷ বিমানে থাকা উইং কমান্ডর অভিনন্দনকে হেফাজতে নেয় পাকিস্তান। অবশ্য আজ বিকেলে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান জানিয়েছেন আগামিকালই অভিনন্দনকে মুক্তি দেবে পাকিস্তান।

পুলওয়ামা হামলাকে 'নিন্দাজনক' বলার জন্য ১৯ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানি অভিনেতা ও গায়ক আলি জাফর ইমরান খানের প্রশংসা করে একটি ট্যুইট করেন! এবার তাঁকে বিদ্রূপ করলেন বলিউডের বর্ষীয়াণ অভিনেতা ও রাজনৈতিক নেতা পরেশ রাওয়াল! তাঁর প্রশ্ন, এবার তাহলে ভারতের সার্জিকাল স্ট্রাইক নিয়ে কেন চুপ রয়েছেন আলি জাফর ?

বু্বু্বু্বু্বু্বুবুব

'মেরে ব্রাদার কি দুলহন', 'লন্ডন প্যারিস', 'নিউ ইয়র্ক', 'টোটাল সিয়াপা'-র মতো একাধিক হিন্দি ছবিতে কাজ করেছেন আলি জাফর।

প্রসঙ্গত, ১৮ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানি শিল্পীদের নিষিদ্ধ করেছিল বলিউড সিনে ওয়ার্কার্স অ্যাসোসিয়েশন। 'পাক শিল্পীদের কাজে নেওয়া যাবে না !' পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার প্রতিবাদে এমনই বিবৃতি দিয়েছিল অল ইন্ডিয়া সিনে ওয়ার্কার্স অ্যাসোসিয়েশন (AICWA)। ‘Pakistani Artists Banned in Film Industry’ নামের ওই বিবৃতিতে জানানো হয়েছিল-- '' সিআরপিএফের কনভয়ে আত্মঘাতী জঙ্গি হানার তীব্র ধিক্কার জানাচ্ছে AICWA। শহিদ জওয়ানদের পরিবারের প্রতি আমাদের গভীর সমবেদনা। সন্ত্রাশবাদ রুখতে আমরা দেশের পাশে রয়েছি। কোনও সংস্থা যদি পাক শিল্পীদের সঙ্গে কাজ করে বা করতে চায়, সেক্ষেত্রে সেই সংস্থার বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে!''

২৬ ফেব্রুয়ারি, মঙ্গলবার পাকিস্তান সরকার ঘোষণা করেছে, ওদেশে কোনও ভারতীয় ছবি মুক্তি পাবে না।

First published: 07:26:25 PM Feb 28, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर