৩ বার বিয়ে ৩ বার ডিভোর্স! এই প্রথমবার মুখ খুললেন শাহিদ কাপুরের মা নীলিমা আজেম

৩ বার বিয়ে ৩ বার ডিভোর্স! এই প্রথমবার মুখ খুললেন শাহিদ কাপুরের মা নীলিমা আজেম

শাহিদের যখন সাড়ে তিন বছর বয়স তখনই বিচ্ছেদ হয় যায় নীলিমা-পঙ্কজের । ডিভোর্সের পর অভিনেত্রী সুপ্রিয়া পাঠককে বিয়ে করেন পঙ্কজ ।

শাহিদের যখন সাড়ে তিন বছর বয়স তখনই বিচ্ছেদ হয় যায় নীলিমা-পঙ্কজের । ডিভোর্সের পর অভিনেত্রী সুপ্রিয়া পাঠককে বিয়ে করেন পঙ্কজ ।

  • Share this:

    #মুম্বই: জীবন কখন কার কোন পথে এগিয়ে যাবে তা আগে থেকে বলা যায় না । আমরা এক রকম ভাবি, আর বাস্তবে হয় ঠিক তার উল্টো । বলি অভিনেতা শাহিদ কাপুর (Shahid Kapoor)-এর মা নীলিমা আজেম (Neelima Azeem)-এর জীবনের গল্পও খানিকটা সে রকমই।

    সম্প্রতি নিজের জীবন, বিয়ে, সম্পর্ক, বিচ্ছেদ নিয়ে মুখ খুললেন নীলিমা । নেটফ্লিক্সের ‘ডলি কিটি অউর ওহ চমকতে সিতারে’ ছবিতে শেষ দেখা গিয়েছে নীলিমা আজেমকে । সম্প্রতি বলিউড বাবল-কে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে নীলিমা জানিয়েছেন পঙ্কজ কাপুরের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক ও বিচ্ছেদের সময়কার কথা । ১৯৭৯ সালে পঙ্কজকে বিয়ে করেন নীলিমা । এরপর ১৯৮১-র ২৫ ফেব্রুয়ারি জন্ম হয় তাঁদের সন্তান শাহিদ কাপুরের । এর সাড়ে তিন বছর পরেই বিচ্ছেদ হয় যায় নীলিমা-পঙ্কজের । ডিভোর্সের পর অভিনেত্রী সুপ্রিয়া পাঠককে বিয়ে করেন পঙ্কজ ।

    নীলিমা বলেন, ‘‘এটা ছিল একেবারে প্রথমবার, যখন আমি জীবনে দুৎখ, কষ্ট, যন্ত্রণা, অবজ্ঞা, দুশ্চিন্তা, অজানা ভয়...এগুলো অনুভব করতে শুরু করি। আসলে সবটাই ছিল অনিশ্চয়তা থেকে । আমি এটা চাইনি, কিন্তু উনি বিয়ে থেকে বেরিয়ে এসেছিলেন । একসঙ্গে অনেক চিন্তা মাথায় ঘুরছিল, আমাকে আবার বাবা-মায়ের সঙ্গে থাকতে হবে, নিজের সন্তানকে একাই বড় করে তুলতে হবে, এ বার থেকে আমাকে স্বাবলম্বী হয়ে উঠতে হবে । যা আমি সর্বদা হতে চেয়েছিলাম, কিন্তু অন্য পথে ।’’

    নীলিমা এও বলেন, পঙ্কজ কাপুরের সঙ্গে ডিভোর্সের আগে পর্যন্ত কোনওদিন তিনি কারও থেকে প্রত্যাখ্যাত হননি । ছোট থেকেই তাঁর চারপাশের সবকিছু ভীষণ সুন্দর ছিল । নিজেকে তিনি ‘ঈশ্বরের প্রিয় সন্তান’ মনে করতেন । প্রথম বিয়ের থেকে এই ধাক্কা না পেলে জীবন সম্বন্ধে অন্য ধারনা পোষণ করতেন তিনি । নীলিমা বলেন, ‘‘যখন আমি ১৫ বছরের, পেশাদার ডান্সার হিসাবে কাজ শুরু করি । আর কোনও দিন পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি । সে সময়ের সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিকের ডান্সার ছিলাম । দূর্দান্ত বাবা-মা পেয়েছিলাম । খুব ভাল বন্ধুরা সবসময় আমাকে ঘিরে থাকত । নিজের প্রিয় বন্ধুকে বিয়ে করলাম । তাই আমার জানাই ছিল না, জীবনে এমনও হয়, যখন পা পিছলে মানুষ পড়ে যায় । আর প্রত্যাখ্যানের তো কোনও জায়গাই নেই । কারণ সবাই আমাকে পছন্দ করত, ভালবাসত । এটাই ছিল প্রথমবার, যখন আমিও পিছলে গিয়েছিলাম ।’’

    ১৯৮৪ সালে পঙ্কজ কাপুরের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর ১৯৯০-এ রাজেশ খট্টরকে বিয়ে করেছিলেন নীলিমা । তাঁদের ছেলে ঈশান খট্টরও এখন বলিউডের উঠতি তারকা । ইতিমধ্যেই অবশ্য ‘ধড়ক’, ‘বিয়ন্ড দ্য ক্লাউডস’, ‘কালি পিলি’, ‘আ স্যুইটেবল বয়’ ছবিতে অভিনয় করে সমালোচকদের বিপুল প্রশংসা কুড়িয়েছেন ঈশান ।

    ২০০১ সালে রাজেশ খট্টরের সঙ্গে বিচ্ছেদ হয় নীলিমার । এরপর ২০০৪ সালে নীলিমা বিয়ে করেন শাস্ত্রীয় সঙ্গীত শিল্পী রাজা আলি খানকে । যদিও সেই বিয়েও টেঁকেনি বেশিদিন । ২০০৯ সালে বিচ্ছেদ হয়ে যায় নীলিমা-রাজার ।

    Published by:Simli Raha
    First published: