• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • মাদক যোগে ‌প্রথম সমন রিয়াকেই, সন্দেহ ড্রাগ চালানে জড়িত অন্তত ২০ জন নেতা-অভিনেতা

মাদক যোগে ‌প্রথম সমন রিয়াকেই, সন্দেহ ড্রাগ চালানে জড়িত অন্তত ২০ জন নেতা-অভিনেতা

রিয়া এবং দলবল সুশান্তকে দিনের পর দিন মাদকে ডুবিয়ে রাখতেন, অভিযোগ সুশান্তের দিদির

রিয়া এবং দলবল সুশান্তকে দিনের পর দিন মাদকে ডুবিয়ে রাখতেন, অভিযোগ সুশান্তের দিদির

সুশান্তের দিদির স্পষ্ট বক্তব্য আর অপেক্ষা না করে গ্রেফতার করা হোক রিয়াকে। তাঁর অভিযোগ, আর্থিক ভাবে তাঁকে তছরূপ করার জন্যেই তাঁকে মাদকের নেশায় ডুবিয়ে রাখত রিয়া ও দলবল।

  • Share this:

    #মুম্বই: মাদক রাখা, সেবন কর ও পাচার করার মতো এক গুচ্ছ অভিযোগে রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে ২০,২৭ এবং ২৯ নং ধারায় মামলা দায়ের করেছে নার্কোটিক্স কন্ট্রোল বুরো। সুশান্ত মামলায় মাদক যোগ খুঁজতে ইডি ও এনসিবি আদাজল খেয়ে নামায় অন্তত ২০ জন ডাকসাইটে অভিনেতা ও রাজনৈতিক নেতার নাম জড়াতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। সূত্রের খবর, সর্বপ্রথম রিয়াকেই সমন পাঠাতে চলেছে এনসিবি। শুক্রবারের মধ্যেই মুম্বই পৌঁছতে পারেন এনসিবি ডেপুটি ডিরেক্টর অফ অপারেশন কেপিএস মালহোত্রা।

    মঙ্গলবারই সামনে আসে রিয়ার মাদক যোগের বিষয়টি। এক বেসরকারি চ্যানেলের স্টিং অপারেশনে দেখা যায়, জয়া শা নামক এক মহিলার সঙ্গে ১৪ জুন দু'বার কথা বলেন রিয়া। ১৫ জুন তাঁদের মধ্যে কথা হয় অন্তত ৫ বার।

    শুধু তাই নয়, দেখা যাচ্ছে, ২০১৯ সালের ২৫ নভেম্বর রিয়াকে জয়া লেখেন, "চারটে ড্রপ দিয়ে দাও কফি বা চায়ে বা জলে। ওকে ওটা চুমুক দিয়ে খেতে দাও। তিরিশ চল্লিশ মিনিট যেতে দাও, দেখতে পাবে কিক।" রিয়া উত্তরে থ্যাংক ইউ বলেন জয়াকে।

    অন্য দিকে, রিয়ার সঙ্গে মিরান্ডা সুশি নামক এক জনের কথা হয় ২০২০সালের ১৭ এপ্রিল। দেখা যায় মিরান্ডা রিয়াকে লিখেছন, "হাই রিয়া, আমাদের জিনিসটা একদম শেষ হয়ে গিয়েছে।" তিনি আরও লেখেন, তিনি যার কাছ থেকে ওই বস্তুটি নিয়েছিলেন তা ইতিমধ্যেই শেষ হয়ে গিয়েছে। তার কাছে শুধুই মারিজুয়ানা জাতীয় নেশাদ্রব্য রয়েছে।

    এই বিষয়ে তদন্তকারীদের নজর ঘোরাতে চায় সুশান্তের পরিবারও। সুশান্তের দিদির স্পষ্ট বক্তব্য আর অপেক্ষা না করে গ্রেফতার করা হোক রিয়াকে। তাঁর অভিযোগ, আর্থিক ভাবে তাঁকে তছরূপ করার জন্যেই তাঁকে মাদকের নেশায় ডুবিয়ে রাখত রিয়া ও দলবল। অভিযোগ, পরিবারের সঙ্গেও যোগাযোগ করতে দেওয়া হত না। তবে রিয়ার আইনজীবী এই তত্ত্বকে উড়িয়ে দিয়ে বলছেন, যে কোনও মুহূর্তে তাঁর কৌসুলি রক্তপরীক্ষার জন্য তৈরি।

    Published by:Arka Deb
    First published: