Nadeem-Shravan: স্ত্রীকে নিয়ে কুম্ভস্নানে গিয়েই করোনা আক্রান্ত হন শ্রাবণ, দাবি ছেলের

Nadeem-Shravan: স্ত্রীকে নিয়ে কুম্ভস্নানে গিয়েই করোনা আক্রান্ত হন শ্রাবণ, দাবি ছেলের

শ্রাবণ রাঠোড়

৯০-এর দশকের তারকা মিউজিক কম্পোজার জুটি নদিম সাইফি ও শ্রাবণ রাঠোড়। নদিম-শ্রাবণ (Nadeem-Shravan) নামেই তাঁরা সবচেয়ে বেশি পরিচিত ছিলেন। সেই জুটি বৃহস্পতিবার ছিনিয়ে নিয়েছে করোনা।

  • Share this:

    #মুম্বই: বৃহস্পতিবারই ফের করোনা (Coronavirus) কেড়ে নিয়েছে বলিউডের আরেক তারকা, সঙ্গীত পরিচালক শ্রাবণ রাঠোড়কে (Shravan Rathod)। শুক্রবার জানা গিয়েছে, কয়েকদিন আগেই স্ত্রীকে নিয়ে কুম্ভমেলায় (Maha Kumbh 2021) গিয়েছিলেন তিনি। শ্রাবণের ছেলে সঞ্জীব রাঠোড় জানিয়েছেন, হরিদ্বার থেকে মেলা ঘুরে আসার পর থেকেই শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন শ্রাবণ। পরে শ্রাবণ ও তাঁর স্ত্রী দু'জনেই করোনা পজিটিভ (Corona Positive) ধরা পড়েন। ৯০-এর দশকের তারকা মিউজিক কম্পোজার জুটি নদিম সাইফি ও শ্রাবণ রাঠোড়। নদিম-শ্রাবণ (Nadeem-Shravan) নামেই তাঁরা সবচেয়ে বেশি পরিচিত ছিলেন। সেই জুটি বৃহস্পতিবার ছিনিয়ে নিয়েছে করোনা।

    ছেলে সঞ্জীবের কথায়, 'আমরা কোনওদিন ভাবিনি আমাদের পরিবারকে এমন কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যেতে হবে। বাবা চলে গেলেন। আমি, মা ও ছোট ভাইও করোনা আক্রান্ত। ভাই হোম আইসোলেশনে রয়েছেন। কিন্তু বাবার শেষকৃত্যের জন্য ওকে কাজের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।' মুম্বইয়ের সেভেনহিলস হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন সঞ্জীব ও তাঁর মা বিমলাদেবী। শ্রাবণও এখানেই ভর্তি ছিলেন। ছেলে ও মা এখন অনেকটাই সুস্থ হয়েছেন।

    বৃহস্পতিবার তাঁর মৃত্যুর খবর ঘোষণা করেছেন নাদিম সইফি। তিনি জানিয়েছেন, 'শানু বেঁচে নেই। আমরা আমাদের সব খারাপ সময়, ভালো সময়ে পাশে থেকেছি। চড়াই-উৎরাই এক সঙ্গে দেখেছি। আমরা কখনও একে অপরের থেকে দূরে থাকিনি। আমি আমার যন্ত্রণা ভাষায় প্রকাশ করতে পারছি না। কিন্তু আমার প্রাণের বন্ধু, আমার সব কিছুর সঙ্গী শ্রাবণ নেই। এ আমি মানতে পারছি না। শেষ কয়েকদিনেও আমি ওর সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রেখে গিয়েছি। ও হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পরও সব রকম ভাবে পাশে থাকার চেষ্টা করেছি। কিন্তু শেষ রক্ষা হল না।'

    তাঁর মৃত্যুতে বলিউডের অনেকেই শোকাহত। ট্যুইটারে শোকবার্তা জানিয়েছেন গায়িকা শ্রেয়া ঘোষাল। তিনি লিখেছেন, 'ফের একটা বড় ক্ষতি। শ্রাবণজির মৃত্যুর খবর মানতে পারছি না। সত্যিকারের একজন বিনীত মানুষ ছিলেন তিনি। সেই সঙ্গে একজন বড় সঙ্গীত পরিচালক। তাঁর চলে যাওয়া মেনে নেওয়া যায় না। ভগবান তাঁর পরিবারকে শক্তি দিন।'

    Published by:Raima Chakraborty
    First published: