লাফিং আউট লাউড! প্রাণখোলা হাসির টিপস দিচ্ছেন বলিউডের গ্ল্যাম মম শিল্পা শেট্টি

লাফিং আউট লাউড! প্রাণখোলা হাসির টিপস দিচ্ছেন বলিউডের গ্ল্যাম মম শিল্পা শেট্টি

শরীর ও মন উভয় চাঙ্গা রাখতে প্রতিদিন হাসুন। টিপস দিলেন বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টি।

শরীর ও মন উভয় চাঙ্গা রাখতে প্রতিদিন হাসুন। টিপস দিলেন বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টি।

  • Share this:

    #মুম্বই: দৈনন্দিন জীবনে ব্যস্ততার মধ্যে কোথাও আমরা হাসতে ভুলে গিয়েছি। সেই প্রাণখোলা হাসি দেখা এখন বড়ই দুর্লভ। তার মধ্যে করোনাসুরের উপদ্রবে মানুষের মনে আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। অনেকেই মানসিক অবসাদে ভুগছেন। তাই এ বার নিজেকে খুশি রাখতে মন খোলা হাসির বার্তা দিলেন বলিউডের গ্ল্যাম মম তথা অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টি।

    নিজের শরীর চর্চা নিয়ে তিনি বরাবর সচেতন। হামেশাই নিজের যোগ-ব্যায়ামের ভিডিয়ো পোস্ট করছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। কিন্তু কেবল শরীর চর্চা করলেই হবে নাকি! সঙ্গে মনকেও ভাল রাখতে হবে তো। মন এবং শরীর দুটো ভাল থাকলে তবেই না গ্ল্যামার ঝরে পড়বে।

    বলিউডের অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টি সম্প্রতি তাঁর ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডলে একটি ছবি পোস্ট করেছেন, যেখানে তাঁকে দেখা যাচ্ছে প্রাণখোলা হাসিতে। সঙ্গে ক্যাপশনে লিখেছেন, "কখনও ভেবে দেখেছেন বন্ধুর সঙ্গে কাটানো হাসির মুহূর্ত গুলো কেন এত ভাল লাগে? শরীর ও মন উভয় চাঙ্গা রাখতে প্রতিদিন হাসুন। এটি আপনাকে কেবল সুস্বাস্থ্যের অধিকারি করে তুলবে না, আপনার মেনটাল স্ট্রেসকেও দূরে সরাবে। তাই কোনও কিছু না ভেবে জোরে জোরে হাসা অভ্যেস করুন"।

    তিনি আরও বলেন, "নির্দ্বিধায় এবং প্রাঞ্জল হাসি আমাদের চটজলদি জীবনে কেমন মুশকিল হয়ে পড়েছে। বন্ধু বা পরিবারের সঙ্গে দেখা করা এই সময় একটা চ্যালেঞ্জ। অতএব আপনি যদি সেই সুযোগ পান, তাহলে একদমই হাতছাড়া করবেন না। পরিবার বা বন্ধুদের সঙ্গে সিনেমা দেখুন, ঘুরতে যান। কিছু কমেডি সাহিত্য পড়ুন, কিন্তু সব সময় নিজেকে খুশি রাখার চেষ্টা করবেন। কারণ ভিতর থেকে হাসাই হল আপনার মোক্ষম ওষুধ "।

    ১৩ বছর পর আবার বড় পর্দায় ফিরছেন শিল্পা শেট্টি। সংসার জীবন থেকে এ বার একটু সরিয়ে এনে নিজেকে সময় দিতে উৎসাহী শিল্পা পরের বছর দু’টি ছবিতে কাজ করছেন, নিকাম্মা এবং হাঙ্গামা টু।

    সাব্বির খান পরিচালিত রম-কম ও অ্যাকশনে ভরপুর ছবি ‘নিকাম্মা’য় অভিনয় করেছেন অভিমন্যু দাসানি এবং শিরলে সেটিয়া। হাঙ্গামা টু-এ অভিনয় করেছেন পরেশ রাওয়াল, প্রণীতা সুভাষ ও মিজান। ছবিটি ২০০৩ সালে প্রিয়দর্শনের ছবি ‘হাঙ্গামা’র ফলো আপ।

    Published by:Somosree Das
    First published: