• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • ‘ড্রাগ অ্যাডিক্ট ছিলাম’, নিজের মুখেই স্বীকার করছেন কঙ্গনা! পুরনো ভিডিও ফের ভাইরাল

‘ড্রাগ অ্যাডিক্ট ছিলাম’, নিজের মুখেই স্বীকার করছেন কঙ্গনা! পুরনো ভিডিও ফের ভাইরাল

এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় আসার পরেই নেটিজেনরা মুম্বই পুলিশ’কে ট্যাগ করতে শুরু করেন । যেখানে কঙ্গনা নিজের মুখেই তাঁর ড্রাগ নেওয়ার কথা স্বীকার করে নিয়েছিলেন ।

এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় আসার পরেই নেটিজেনরা মুম্বই পুলিশ’কে ট্যাগ করতে শুরু করেন । যেখানে কঙ্গনা নিজের মুখেই তাঁর ড্রাগ নেওয়ার কথা স্বীকার করে নিয়েছিলেন ।

এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় আসার পরেই নেটিজেনরা মুম্বই পুলিশ’কে ট্যাগ করতে শুরু করেন । যেখানে কঙ্গনা নিজের মুখেই তাঁর ড্রাগ নেওয়ার কথা স্বীকার করে নিয়েছিলেন ।

  • Share this:

    #মুম্বই: সুশান্তের মৃত্যুর পর থেকেই ঘটনার সূত্রপাত । একেবারে সম্মুখ সমরে নেমে পড়েছেন বলিউডের ক্যুইন । কখনও বি-টাউনের নেপোটিজম নিয়ে, কখনও বা মুভি মাফিয়াদের বিরুদ্ধে, কখনও আবার বলিউডে মাদক চক্র নিয়ে, কখনও মহারাষ্ট্র সরকারের বিরুদ্ধে ঝাঁসির রানির মতোই অস্ত্র শানিয়েছেন তিনি ।

    রিয়া-শৌভিক ও সুশান্তের অন্যান্য বন্ধুদের মাদক নেওয়া ও পাচার চক্রের সঙ্গে যোগসাজশ রয়েছে তার প্রমাণ পাওয়ার পড়েই বলিউডের মাদক কারবার নিয়ে বিস্ফোরণ ঘটান কঙ্গনা রানাওয়াত । ট্যুইটে তিনি দাবি করেন, রণবীর কাপুর, রণবীর সিং, ভিকি কৌশল, পরিচালক অয়ন মুখোপাধ্যায়...এদের রক্তের নমুনা পরীক্ষা করলেই সমস্ত তথ্য ফাঁস হয়ে যাবে । রিয়া তো চুনোপুঁটি, বলিপাড়ার রাঘব-বোয়ালদের এখনও ধরা বাকি রয়েছে ।

    শুধু তাই নয়, তিনি নিজে যে ড্রাগ নেন না তা প্রমাণ করতে এরপর কঙ্গনা নিজের রক্ত পরীক্ষা করাতে প্রস্তুত বলেও দাবি করেন । কোনও ড্রাগ পেডলারের সঙ্গে তাঁর যোগাযোগ আছে কিনা তা জানতে তাঁর ফোনের কল রেকর্ড দেখার আর্জিও জানান মুম্বই পুলিশকে । কিন্তু তার মাঝেই ভাইরাল হয়ে যায় কঙ্গনার পুরনো একটি ভিডিও । তাতে তিনি স্পষ্টতই স্বীকার করেছেন ড্রাগ অ্যাডিক্ট ছিলেন তিনি । তবে সেটা কিশোরী বয়সে । যখন প্রথম ইন্ডাস্ট্রিতে পা দিয়েছিলেন তিনি । সে সময় খারাপ সঙ্গে পড়ে যান, জীবন তালগোল পাকিয়ে যায়...আর সে সময়েই মাদকের নেশায় আচ্ছন্ন হয়ে যান ক্যুইন । তবে নায়িকা এও স্বীকার করেন, তিনি নিজেই সেই সর্বনাশা নেশা থেকে বেরিয়ে এসেছিলেন ।

    View this post on Instagram

    #KanganaRanaut talks about the time when she couldn’t close her eyes because tears won’t stop.

    A post shared by Kangana Ranaut (@kanganaranaut) on

    এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় আসার পরেই নেটিজেনরা মুম্বই পুলিশ’কে ট্যাগ করতে শুরু করেন । লেখেন, কঙ্গনা নিজের মুখেই তাঁর ড্রাগ নেওয়ার কথা স্বীকার করে নিয়েছিলেন ।

    সম্প্রতি আবার ভাইরাল হয়ে যায় কঙ্গনার প্রাক্তন বয়ফ্রেন্ড শেখর সুমনের ছেলে অধ্যয়ন সুমনের একটি পুরনো সাক্ষাৎকার । সেখানে অধ্যয়ন নিজে মুখে স্বীকার করেছেন, কঙ্গনা তাঁকে কোকেন নিতে বলেছিলেন । কিন্তু তিনি তা নিতে রাজি হননি । এই ভিডিও তুমুল ভাইরাল হতেই অধ্যয়ন আবার একটি ভিডিও মেসেজে তাঁর ভক্তদের জানান, পুরনো সাক্ষাৎকারের রেশ টেনে ধরে যেন তাঁর নাম এই ঘটনার সঙ্গে আর জড়ানো না হয় ।

    Published by:Simli Raha
    First published: