Kangana Ranaut: অস্বাভাবিক যৌনতা ও ধর্ষণের জন্য আটক কঙ্গনা রানাওয়াতের দেহরক্ষী!

ধর্ষণের অভিযোগে আটক কঙ্গনার ব্যক্তিগত দেহরক্ষী ।

কঙ্গনার ব্যক্তিগত দেহরক্ষী (Bodyguard)-কে আটক করল মুম্বই পুলিশ । তাঁর বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও অস্বাভাবিক যৌনতার অভিযোগ আনা হয়েছে ।

  • Share this:

    #মুম্বই: বিতর্কের ঠিক কেন্দ্রবিন্দুতে থাকেন সবসময় । কন্ট্রোভার্সি ক্যুইন বলা হয় বলি-নায়িকা কঙ্গনা রানাওয়াত (Kangana Ranaut)-কে । সমালোচনা, ট্রোলিং তাঁর পিছু ছাড়ে না । কখনও নিজের মন্তব্যের জন্য, কখনও বা নিজের আচরণে বা অন্যকে সমালোচনা করার জন্য বিতর্কের মধ্যমণিতেই থাকতে ভালবাসেন বলি-ক্যুইন । আবারও বিতর্কের মধ্যে জড়াল তাঁর দেহরক্ষীর নাম ।

    কঙ্গনার ব্যক্তিগত দেহরক্ষী (Bodyguard)-কে আটক করল মুম্বই পুলিশ । তাঁর বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও অস্বাভাবিক যৌনতার অভিযোগ আনা হয়েছে । অভিযুক্তের নাম কুমার হেগড়ে (Kumar Hegde)। মুম্বইয়ের আন্ধেরি অঞ্চলের এক মহিলা বিউটিশিয়ান তাঁর বিরুদ্ধে ধর্ষণ, প্রতারণা এবং বিকৃত যৌনতার অভিযোগ তুলেছেন । নির্যাতিতার অভিযোগ, গত আট বছর ধরে তাঁরা প্রেমের সম্পর্কে রয়েছেন । গত বছর লকডাউনের সময় থেকে বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন তাঁরা । লিভ-ইন শুরু করেন ।

    কিন্তু গত ২৭ এপ্রিল তার কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা নেয় কুমার। এরপর কোনও একটা কাজে কর্নাটকে যায় সে । তারপর থেকেই তাঁকে এড়িয়ে চলতে শুরু করে কুমার । ক্রমশ যোগাযোগ রাখা কমিয়ে দেয় । এরপরেই এক মহিলার ফোন আসে ওই বিউটিশায়ানের কাছে । যিনি নিজেকে কুমারের মা বলে পরিচয় দেন এবং জানান কুমার অন্যত্র বিয়ে করেছে । এখন সে ওই মহিলার সঙ্গেই আছে ।

    এরপরেই গত ১৯ মে মুম্বইয়ের ডিএন নগর থানায় কুমারের বিরুদ্ধে একটি আফআইআর (FIR) দায়ের করেন ওই বিউটিশিয়ান মহিলা। ভারতীয় দণ্ডবিধির (Indian Penal Code/ IPC) ৩৬৭ (376) ধারা অনুযায়ী ধর্ষণ, ৩৭৭ (377) ধারা অনুযায়ী অপ্রাকৃত যৌনতা এবং ৪২০ (420) ধারায় কুমারের বিরুদ্ধে মামলা রুজু হয়েছে । অভিযুক্তকে আটক করা হয়েছে । তবে গোটা ঘটনায় অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াতের কোনও প্রতিক্রিয়া এখনও পাওয়া যায়নি ।

    Published by:Simli Raha
    First published: