corona virus btn
corona virus btn
Loading

'ইতিহাস আপনার বিচার করবে!' এ বার সরাসরি সনিয়াকে আক্রমণ কঙ্গনার

'ইতিহাস আপনার বিচার করবে!' এ বার সরাসরি সনিয়াকে আক্রমণ কঙ্গনার
সনিয়াকে নিশানা করলেন কঙ্গনা৷

কঙ্গনার সঙ্গে মহারাষ্ট্র সরকার এবং শিবসেনার সংঘাত চরমে পৌঁছেছে৷ বুধবার বৃহন্মুম্বই পুরসভা কঙ্গনার অফিস ভাঙতে শুরু করে৷

  • Share this:

#মুম্বই: এ বার সরাসরি সনিয়া গান্ধিকে নিশানা করলেন অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত৷ কংগ্রেস সভানেত্রীকে উদ্দেশ্য করে ট্যুইটারে তিনি লিখলেন, 'ইতিহাস আপনার নিস্তব্ধতা এবং উদাসীনতার বিচার করবে৷' ইতিমধ্যে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেকেও সনিয়া-সেনা বলে কটাক্ষ করেছেন কঙ্গনা৷ অভিনেত্রীর অভিযোগ,  হয়রানির জন্যই তাঁর অফিস ভাঙতে শুরু করেছে মহারাষ্ট্র সরকার৷ যেহেতু কংগ্রেসও মহারাষ্ট্রের জোট সরকারে রয়েছে, সেই কারণেই সনিয়াকে আক্রমণ করেছেন কঙ্গনা৷

ট্যুইটারে সনিয়াকে উদ্দেশ্য করে কঙ্গনা লিখেছেন, 'সম্মানীয় কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধিজি, যে ভাবে আপনার সরকার আমার সঙ্গে ব্যবহার করছে, একজন মহিলা হিসেবে আপনি কি তাতে বিচলিত নন? বি আর আম্বেদকর সংবিধানে যে নীতিগুলি আমাদের দিয়েছেন, সে গুলি অনুসরণ করার জন্য কি আপনি আপনার সরকারকে অনুরোধ করতে পারেন না?'

আরও কড়া ভাষায় এর পর কঙ্গনা লিখেছেন, 'আপনি পশ্চিমের দেশে বড় হলেও ভারতে বসবাস করেছেন৷ আপনি হয়তো মহিলাদের লড়াই সম্পর্কে ওয়াকিবহল৷ আপনার সরকার আইনশৃঙ্খলাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে মহিলাদের এ ভাবে হয়রান করছে দেখার পরও আপনার নিস্তব্ধতা এবং উদাসীনতার বিচার ইতিহাস একদিন করবে৷ আশা করি, এ বিষয়ে আপনি হস্তক্ষেপ করবেন৷'

শুধু তাই নয়, দলের প্রতিষ্ঠাতা বাল ঠাকরের প্রসঙ্গ তুলে ফের একবার শিবসেনাকেও এ দিন বিঁধেছেন কঙ্গনা৷ ট্যুইটারে তিনি এ দিন লিখেছেন, 'বাল ঠাকরের ভয় ছিল একদিন তাঁর তৈরি শিবসেনা কংগ্রেসের সঙ্গে হাত মেলাবে৷ তাঁর দলের এই অবস্থা দেখে আজ তিনি কী ভাবছেন, তা খুব জানতে ইচ্ছে করছে৷' বৃহষ্পতিবারই শিবসেনাকে সনিয়া-সেনা বলে কটাক্ষ করেছিলেন কঙ্গনা৷

কঙ্গনার সঙ্গে মহারাষ্ট্র সরকার এবং শিবসেনার সংঘাত চরমে পৌঁছেছে৷ বুধবার বৃহন্মুম্বই পুরসভা কঙ্গনার অফিস ভাঙতে শুরু করে৷ পরে বম্বে হাইকোর্টের নির্দেশে সেই কাজ স্থগিত হয়ে যায়৷ অন্যদিকে মুম্বই পুলিশ কঙ্গনার মাদক যোগ নিয়ে তদন্তে নামছে৷ মহারাষ্ট্র সরকার পুলিশকে সেই ছাড়পত্র দিয়ে দিয়েছে বলে খবর৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: September 11, 2020, 2:18 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर